ঢাকা, সোমবার, ১৬ জুলাই ২০১৮, ১ শ্রাবণ ১৪২৫

2018-07-15

, ২ জিলকদ্দ ১৪৩৯

ফুলেল শ্রদ্ধায় বিদায় মিন্টু বসু

প্রকাশিত: ০৭:৩৩ , ০৪ অক্টোবর ২০১৭ আপডেট: ০৭:৩৩ , ০৪ অক্টোবর ২০১৭

বরিশাল প্রতিনিধি: প্রবীণ সাংবাদিক, মুক্তিযোদ্ধা, লেখক, সাংস্কৃতিক সংগঠক মিন্টু বসুকে চোখের জল আর ফুলেল শ্রদ্ধায় চির বিদায় জানালেন বরিশালবাসী। 

গতকাল মঙ্গলবার রাতে নিজ বাসভবনে মারা যান মিন্টু বসু। তার মৃত্যু খবর ছড়িয়ে পড়লে সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক অঙ্গনসহ নানা শ্রেণি পেশার মানুষ তার মরদেহ দেখতে ছুটে যান। আজ বুধবার সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা ও রাষ্ট্রীয় সম্মাননায় চির বিদায় জানানো হয় বহুমাত্রিক প্রতিভার এই মানুষকে।

গুণী এ মানুষটি ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার বৈচন্ডি গ্রামে ১৯৪৮ সালের ১২ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন। সুদীর্ঘ ৪৪ বছর ধরে তিনি সাংবাদিকতার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। স্বাধীন বাংলাদেশে প্রথম সংবাদপত্র ‘বাংলাদেশ’ পত্রিকায় মিন্টু বসুর সাংবাদিকতায় হাতে খড়ি। তবে, মিন্টু বসুর সাংবাদিকতা জীবনের শুরু হয়েছিল মুক্তিযুদ্ধের রণাঙ্গনে ‘মুখপত্র বিপ্লবী বাংলাদেশ’ পত্রিকার মাধ্যমে।

মিন্টু বসু কর্মজীবনে ঢাকা থেকে প্রকাশিত দৈনিক আজাদ, দৈনিক দেশবাংলা এবং দৈনিক বাংলার বাণীতে বরিশাল প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করেছেন। এছাড়াও দীর্ঘদিন তিনি একুশে টেলিভিশনের বরিশাল প্রতিনিধিও ছিলেন।

লেখক, সাংস্কৃতিক সংগঠক মিন্টু বসুকে ১৯৯৩ সালে ঢাকার নাট্য সংগঠন লোক নাট্যদল শ্রেষ্ঠ নাট্যকর্মীর পদকে ভূষিত করেন। এছাড়া বরিশালে বিপ্লবী দেবেন্দ্রনাথ ঘোষ পদক পান তিনি।  বর্ণাঢ্য এই জীবনে তিনি অর্ধশত নাটকে অভিনয় ও নির্দেশনা দিয়েছেন।

বুধবার সকালে মিন্টু বসুর মরদেহ তার প্রিয় কর্মস্থল খেয়ালী গ্র“প থিয়েটারের সামনে নেওয়া হয়। পরে তার মরদেহে রাষ্ট্রীয় সম্মান জানানো হয়। পরে বরিশাল মহাশ্মশানে তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হয়।
দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর মঙ্গলবার রাতে ৭১ বছরে নিভে যায় বহুমাত্রিক প্রতিভাবান এই গুণী মানুষটির জীবন প্রদীপ।
 

এই বিভাগের আরো খবর

গাজীপুরে সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রমাণ ভোটার উপস্থিতি- ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিপুল সংখ্যক ভোটার উপস্থিতিই প্রমাণ...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is