ঢাকা, রবিবার, ২২ অক্টোবর ২০১৭, ৭ কার্তিক ১৪২৪, ১ সফর ১৪৩৯
শিরোনামঃ
ঢাকায় ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রাতে প্রধানমন্ত্রীর সাথে সৌজন্য সাক্ষাত রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের অবস্থানকে গুতেরেসের সমর্থন গত কদিনে বাংলাদেশে ঢুকেছে প্রায় ৪০ হাজার রোহিঙ্গা ১১ সাক্ষীকে জেরার জন্য খালেদার আবেদন হাই কোর্টে নিষ্পত্তি নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের কাজে নিরপেক্ষতা থাকতে হবে: সিইসি বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া ১৪ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা শিশু অপুষ্টিতে মারা যেতে পারে নিরাপদ সড়ক গড়ে তোলার লক্ষ্যে সবাই আইন মেনে চলুন টস জিতে ব্যাটিংয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা আবহাওয়ার উন্নতি: দেশের বিভিন্ন রুটে নৌ চলাচল স্বাভাবিক নির্বাচন নিয়ে সরকার নীল নকশা করছে: রিজভী ২৫টি নির্বাচন পর্যবেক্ষক সংস্থার সাথে বৈঠকে বসেছে ইসি ফাইনালে আজ মুখোমুখি হচ্ছে ভারত ও মালয়েশিয়া স্পেনের কেন্দ্রীয় শাসন না মানার ঘোষণা কাতালান প্রেসিডেন্টের উন্নত বাংলাদেশ গড়তে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখুন: জয় ইপিএল-এ জয় পেয়েছে চেলসি ও ম্যানসিটি বেড়িবাঁধ ভেঙে বিভিন্ন জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, ব্যাহত ফেরি চলাচল টানা বৃষ্টিতে ডুবে গেছে ঢাকার বিভিন্ন এলাকা টানা বৃষ্টিতে দেশের বিভিন্ন বন্দরের কার্যক্রমে স্থবিরতা মালয়েশিয়ায় ভূমিধসে তিন বাংলাদেশীসহ ৪ শ্রমিকের মৃত্যু কাতালোনিয়ার স্বায়ত্তশাসন বাতিল করে দিলো স্পেন

মুক্তামনির হাতে চতুর্থ দফা অস্ত্রোপচার

প্রকাশিত: ০৪:৫৮ , ০৮ অক্টোবর ২০১৭ আপডেট: ০৪:৫৮ , ০৮ অক্টোবর ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিরল রোগে আক্রান্ত শিশু মুক্তামনির হাতে চতুর্থ দফা অস্ত্রোপচার হয়েছে। রোববার সকালে তার হাতে এই অপারেশন হয়।

অপারেশন শেষে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্তলাল সেন বলেন, সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত অপারেশন চলে। পরে স্থানান্তর করা হয় আইসিইউতে। তার শারিরিক অবস্থা ভাল আছে।

এদিকে, আজ মুক্তামনির হাতের স্কিন গ্রাফটিংয়ের প্রাথমিক ধাপ শেষ হয়েছে। বার্ন এন্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের পরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম জানান, কয়েকটি ধাপে পুরো হাতে চামড়া লাগাতে হবে। এ জন্য আরও কয়েকটি অপারেশন করতে হবে। আগামী ১৬ ডিসেম্বরে মধ্যে মুক্তামনি পুরোপুরি সুস্থ হবেন বলেও  আশা প্রকাশ করেন তিনি।

এর আগে গত ১২ আগস্ট মুক্তামনির হাতে প্রথম অস্ত্রোপচার করা হয়। ২৯ আগস্ট দ্বিতীয়দফা অস্ত্রোপচারের সময় শরীরের তাপ বেড়ে যায়। সেদিন ২০ ভাগ অস্ত্রোপচার করে স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। পরে ৫ সেপ্টেম্বর অস্ত্রোপচার সম্পন্ন করেন চিকিৎসকরা।

মুক্তামনির টিউমারের বিষয়টি সবার নজরে আসে গণমাধ্যমে প্রকাশের পর। পরে চলতি বছরের ১১ জুলাই তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়। তার জন্যে গঠিত আট সদস্যের মেডিকেল বোর্ড জানায়, এটি একটি বিরল রোগ, নাম ‘হাইপারকেরাটোসিস’।

পরবর্তীতে রোগের বিবরণসহ মুক্তামনির সকল কাগজপত্র সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানকার চিকিৎসকরা জানান, মুক্তামনির অসুখ আরোগ্যযোগ্য নয়। এর পর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ।

এই সম্পর্কিত আরো খবর

রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতা রাখা যাবে না

নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের কাজে নিরপেক্ষতা থাকতে হবে: সিইসি

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে. এম. নূরুল হুদা বলেছেন, নির্বাচন পর্যবেক্ষক সংস্থাগুলোকে নিরপেক্ষ ও...

সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রীর আহ্বান

নিরাপদ সড়ক গড়ে তোলার লক্ষ্যে সবাই আইন মেনে চলুন

নিজস্ব প্রতিবেদক: নিরাপদ সড়ক গড়ে তোলার লক্ষ্যে সবাইকে আইন মেনে চলার আহ্বান জানিয়েছেন সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। রোববার...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is