ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৮, ৪ শ্রাবণ ১৪২৫

2018-07-18

, ৫ জিলকদ্দ ১৪৩৯

বেলাই বিলের বুকে

প্রকাশিত: ০৩:২২ , ১০ অক্টোবর ২০১৭ আপডেট: ০৩:২২ , ১০ অক্টোবর ২০১৭

ডেস্ক প্রতিবেদন: নৌকা নিয়ে বিলের মধ্যে ভেসে বেড়ানো, শাপলা তোলা আর নৌকায় শুয়ে আপন মনে গান গাওয়া..............! এসব অনেককেই হয়তো ছোটবেলার সেই পাড়াগাঁয়ের কথা মনে পড়িয়ে দেয়। পড়িয়ে দেয় বিলের কিনারা ঘেঁষে ঠিক মধ্যদুপুরে ছুটে বেড়ানোর স্মৃতি। যান্ত্রিক এই শহরে যানজটের ভিড়ে প্রায়ই হয়তো আমাদের পেছনে ফেলে আশা সেই সেই øিগ্ধ স্মৃতি টানে। কিন্তু আমরা খুঁজে পাই না পেছনে ফেরার সেই পথ। বেলাই বিলের বুকে ঘুরে এসে একদিনের জন্য হলেও সেই ছোটবেলার স্মৃতি হাতরিয়ে নেওয়া সম্ভব।

ঢাকার কাছেই অবস্থিত বেলাই বিলের রূপ-সৌন্দর্যে অনন্য। এর কোনো কোনো স্থানে প্রায় সারা বছরই পানি থাকে। তবে বর্ষায় এর রূপ বেড়ে যায় বহুগুণ। বিলটি আট বর্গমাইল এলাকার বাড়িয়া, ব্রাহ্মণগাঁও, বক্তারপুর ও বামচিনি মৌজা গ্রাম ঘেরা বেলাই বিল বি¯তৃত।

ইতিহাস

৪০০ বছর আগের ইতিহাসে বেলাই বিলে কোনো গ্রামের অস্তিত্ব ছিল না। খরস্রোতা চেলাই নদীর কারণে বিলটিও খরস্রোতা হিসেবে বিরাজমান ছিল। বলা হয়ে থাকে, ভাওয়ালের ভূস্বামী ঘটেশ্বর ঘোষ ৮০টি খাল কেটে চেলাই নদীর জল শেষ করে ফেলেন। তার পরই এটি বিলে পরিণত হয়।

যা দেখবেন

বিল মানেই শাপলা। বেলাই বিলে সাদা ও নীল শাপলার ছড়াছড়ি। এ ছাড়া আশপাশে রয়েছে চড়ুই পাখি। স্বচ্ছ টলটলে পানি! খুব বেশি চওড়া নয় চেলাই নদী, তবে খুব গভীর। আছে ডিঙি নৌকা। বিলের চার পাশে দ্বীপের মতো গ্রাম। বামচিনি মৌজা বেলাই বিলের একটি দ্বীপগ্রাম। এক মৌজায় এক বাড়ি, লাল মাটি। এখানে রয়েছে সারি সারি তালগাছ।

কোথায় খাবেন

এখানে খাবার তেমন কোনো ব্যবস্থা নেই, সুতরাং বহনযোগ্য খাবার সঙ্গে নিয়ে নিন।

কীভাবে যাবেন

গুলিস্তান থেকে বাসে গাজীপুর বাসস্ট্যান্ড। সেখান থেকে রিকশা বা টেম্পোতে কানাইয়া বাজার। এখানেই বেলাই বিল। বিলের ঘাটে সারি সারি নৌকা বাঁধা। দরদাম করে নৌাকা নিয়ে ঘুরে বেড়াতে পারেন।
   

এই বিভাগের আরো খবর

একদিনের ট্যুর!

ডেস্ক প্রতিবেদন: কম খরচে কম সময়ে ঘুরতে যাওয়ার জন্যে চট্টগ্রেমের সীতাকুন্ড এবং মিরসরাইয়ের রেঞ্জ গুলো অনেক বেশী সুবিধাজনক। কেউ চাইলে দিনে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is