ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১ পৌষ ১৪২৪, ২৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯
শিরোনামঃ
শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস আজ  রায়েরবাজার বধ্যভূমিতে সকল যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দাবি ওয়ান প্লানেট সম্মেলন শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী জলবায়ু খাতে ৭ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের পরিকল্পনা সরকারের সৌদি আরবে জিয়া পরিবারের বিপুল অর্থ, তদন্ত করবে দুদক পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র সংসদ নির্বাচন দাবিতে সোচ্চার হোন থার্টিফার্স্ট নাইটে উন্মুক্ত স্থানে কোনো অনুষ্ঠান নয়: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শিক্ষা অধিদপ্তর-বোর্ড ও বিজি প্রেস থেকে প্রশ্ন ফাঁস হয়: দুদক বিএনপি নির্বাচনে না আসলে গণতন্ত্র বাধাগ্রস্ত হবে না পল্লী বিদ্যুতে অতিরিক্ত ইলেকট্রিশিয়ান নিয়োগ দেওয়ায় মানববন্ধন রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা তুঙ্গে হাইকোর্টে লক্ষ্মীপুরের ইউএনওর ক্ষমা প্রার্থনা খাগড়াছড়িতে ৬ সশস্ত্র যুবক আটক চট্টগ্রামের সেবা সমূহ ডিজিটালাইজড হওয়ার তাগিদ দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সারা দেশে বিএনপির বিক্ষোভ আকায়েদের বিরুদ্ধে মার্কিন পুলিশের তিন অভিযোগ আশুগঞ্জে আমন চাল সংগ্রহ অভিযান শুরু ভূমিমন্ত্রীর ছেলে তমালকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ গাইবান্ধায় যুবলীগ নেতার ও বরগুনায় জেলের মরদেহ উদ্ধার ঢামেক হাসপাতাল দিচ্ছে ডিজিটাল ডেথ সার্টিফিকেট

কলা কমাবে হার্ট অ্যাটাক

প্রকাশিত: ০৩:৫৫ , ১১ অক্টোবর ২০১৭ আপডেট: ০৩:৫৫ , ১১ অক্টোবর ২০১৭

ডেস্ক প্রতিবেদন: কলার অনেক গুণ আছে যা রয়েছে আমাদের অজানা। নিয়মিত কলা খেলে হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক প্রতিহত করা যায়। এমনই বলছেন চিকিৎসকরা। সম্প্রতি ব্রিটিশ হার্ট ফাউন্ডেশনের গবেষকরা জানিয়েছেন, পটাশিয়ামের কম-বেশির কারণেই হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের প্রবণতা দেখা দেয়। পটাশিয়াম কম থাকলে হার্টের ব­কেজ রোধ করতে সহায়তা করে। কলায় আছে পর্যাপ্ত পরিমানে পটাশিয়াম; যা হার্ট সুস্থ্য রাখতে সহায়তা করে। কলা হজমেও সাহায্য করে, আবার ওজন কমাতেও এর জুড়ি নেই। তবে খুব বেশি কলা খেলে আবার পেটে ব্যাথা, ডায়রিয়া দেখা দিতে পারে। তাই পরিমিত কলা খেলে শরীর সুস্থ থাকবে, মনে করছেন গবেষকরা।

কলা ছাড়াও আলু, ব্রুকলি, অঙ্কুরিত ছোলা, মাছ, পোল্ট্রিজাত দ্রব্যে পটাশিয়াম থাকে। সেগুলি খেলেও হার্ট অ্যাটাকের প্রবণতা কমে। তবে কলার থেকে উপকারী কিছু নেই। জেনে নিন কলার কয়েকটি গুণাগুণ।

১। কলা আঁশযুক্ত ফল। এটি হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। হজম জনিত সমস্যা দূর করতে প্রতিদিন একটি করে কলা খান।

২। শরীরে হিমোগে­াবিন ও ইনসুলিনের জন্য প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন-বি৬ প্রয়োজন। কলাতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-বি৬ আছে।

৩। প্রতিদিন ১টি করে কলা খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করবে। যাঁরা উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভোগেন, তারা প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় কলা রাখুন, তাহলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।

৪। প্রতিদিন ব্যায়াম করার আগে ১ টি কলা খেয়ে নিন। এটি আপনার রক্তে শর্করার পরিমান ঠিক রাখবে। সাথে ব­াড সুগারও নিয়ন্ত্রণ করবে।

৫। কলায় প্রচুর পরিমাণে আয়রণ আছে। নিয়মিত কলা খেলে দেহের রক্ত শূন্যতা দূর হয়।

৬। কলা ওজন কমাতেও সাহায্য করে থাকে। এক গবেষণায় দেখা গেছে, কলা দীর্ঘক্ষণ পেট ভরার অনুভূতি দিয়ে থাকে। ফলে অন্য কোন খাবার খাওয়ার রুচি ও আগ্রহ থাকে না। যা ওজন কমাতে সাহায্য করে থাকে।

৭। আঁশযুক্ত খাবার কার্ডিওভাসকুলার রোগের ঝুঁকি কমিয়ে থাকে। প্রতিদিন কলা খান আর হৃদরোগ থেকে দূরে থাকুন।

৮। শরীরের পেশির সুস্থতার জন্য কলা বেশ উপকারী। ব্যায়ামের আগে কিংবা পরে কলা খান, এটি আপনার পেশীর সমস্যা দূর করবে এবং পায়ের মজবুত পেশী গঠনে সাহায্য করে।

৯। অনেকের ধারণা লেবু, আর কমলাতেই শুধু ভিটামিন সি আছে। কলাতেও পাওয়া যায় কিছু পরিমাণে ভিটামিন সি। এছাড়া প্রয়োজনীয় অনেক পুষ্টি উপাদান আসে কলা থেকে।

১০। কলাতে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম আছে যা বিষণœতা দূর করতে সাহায্য করে। আমরা অনেক সময় বিভিন্ন কারণে বিষন্নতায় ভুগি। বিষন্নতা দূর করতে কলা অনেক বেশি কার্যকরী।

১২। কলাতে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম আছে যা মস্তিষ্কে অক্সিজেন সরবারহ করে থাকে। এটি দেহের জলের পরিমাণ ঠিক রাখতে সাহায্য করে থাকে।

 

এই বিভাগের আরো খবর

বায়ু দূষণে বছরে শ্বাসকষ্টে ভোগে ১ কোটি ৭০ লাখ শিশু: ইউনিসেফ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বায়ু দূষণের কারণে পৃথিবীতে ১ কোটি ৭০ লাখ শিশু শ্বাসকষ্টসহ মস্তিষ্কের নানা রোগে ভুগছে বলে জানিয়েছে ইউনিসেফ। বুধবার...

স্বাধীনতার ৪৬ বছর

স্বাস্থ্য সেবার মান নিয়ে আছে বঞ্চনার দীর্ঘশ্বাস

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিজয়ের ৪৬ বছরে স্বাস্থ্য খাতে অনেক কিছু জয় করেছে দেশ, শুধু পারেনি স্বাস্থ্য সেবার মান নিয়ে সাধারণ মানুষের মন জয় করতে।...

মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে অব্যবস্থাপনায় সুফল পাচ্ছেনা রোগীরা

মেহেরপুর প্রতিনিধি: অব্যবস্থাপনায় চলছে মেহেরপুরের ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের কার্যক্রম। রোগীদের অভিযোগ অত্যাধুনিক...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is