ঢাকা, শনিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৭, ৬ কার্তিক ১৪২৪, ৩০ মহাররম ১৪৩৯
শিরোনামঃ
উন্নত বাংলাদেশ গড়তে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখুন: জয় বেড়িবাঁধ ভেঙে বিভিন্ন জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, ব্যাহত ফেরি চলাচল টানা বৃষ্টিতে ডুবে গেছে ঢাকার বিভিন্ন এলাকা টানা বৃষ্টিতে দেশের বিভিন্ন বন্দরের কার্যক্রমে স্থবিরতা ডি-এইট সম্মেলনে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পেয়েছে রোহিঙ্গা ইস্যু আওয়ামী লীগে জঙ্গি-সন্ত্রাসি ও চাঁদাবাজের ঠাঁই নেই: ওবায়দুল সু চি’র নীরবতায় রোহিঙ্গাদের ওপর সেনা নিপীড়ন চলছে: ইউনূস ভারী বর্ষণে কলাপাড়ায় বেড়িবাঁধ ভেঙে ১১ গ্রাম প্লাবিত রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ: আমীর খসরু মালয়েশিয়ায় ৩৯ বাংলাদেশিসহ ১১৩ অভিবাসী আটক একটি গোষ্ঠী রোহিঙ্গাদের সন্ত্রাসী কাজে ব্যবহার করতে চায়: কামরুল প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার আহ্বান ইনজুরির কারণে শেষ ওয়ানডেতেও খেলতে পারছেন না তামিম দিনাজপুর ও নেত্রকোনার চাষিরা দিশাহারা স্পেনের অংশ কাতালোনিয়া আছে, থাকবে: রাজা ষষ্ঠ ফিলিপ আলফাডাঙ্গায় মধুমতির ভাঙন এলাকায় ড্রেজিং প্রকল্প উদ্বোধন আফগানিস্তানে দু’টি মসজিদে আত্মঘাতী বোমা হামলা, নিহত ৭২ হাঁস পালন করে ঝিনাইদহের শতাধিক খামারির মুখে হাসি ড্রাগন চাষে লাভবান হচ্ছেন পটুয়াখালীর চাষিরা ভারী বর্ষণে কলাপাড়ায় বেড়িবাঁধ ভেঙে ১১ গ্রাম প্লাবিত

বন্যায় অনাবাদী হয়ে পড়েছে জামালপুরের ফসলি জমি

প্রকাশিত: ০৮:০৯ , ১২ অক্টোবর ২০১৭ আপডেট: ০৫:১৭ , ১২ অক্টোবর ২০১৭

জামালপুর প্রতিনিধি: এ’বছর দুই দফা বন্যায় অনাবাদী হয়ে পড়েছে জামালপুরের বিস্তির্ন এলাকার ফসলি জমি। বন্যায় ফসল নষ্ট হয়ে যাওয়ায় আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়ায় মূলধনের অভাবে নতুন করে আবাদ করতে পারছেন না কৃষকরা। ফলে দুশ্চিন্তা বেড়েছে তাদের। তবে ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে কৃষকদের সবধরণের সহায়তা প্রদানের আশ্বাস দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।
জামালপুরে এবার ১ লাখ ৫ হাজার ৪০০ হেক্টর জমিতে আমন ধান চাষের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও বন্যার কারণে তা পূরণ হয়নি। কৃষি বিভাগের তথ্যমতে জুলাই ও আগস্টের বন্যায় নষ্ট হয়েছে জেলার ৭ উপজেলার ৪৮ হাজার ৭৯৭ হেক্টর জমির ফসল। এর মধ্যে কেবল রোপা আমন ও বীজতলা নষ্ট হয় ৪৬ হাজার ৬২ হেক্টর জমির।
বন্যায় বীজতলা আর ফসল নষ্ট হয়ে আর্থিকভাবে ক্ষতির মুখে পড়েন চাষীরা। আগামী রবি মৌসুমে এই ক্ষতি কাটিয়ে উঠার সম্ভাবনা থাকলেও পুঁজি নিয়ে অনিশ্চয়তায় আছেন তারা। ফলে জেলার বিস্তীর্ন এলাকা অনাবাদী হয়ে থাকার আশঙ্কা বাড়ছে। তাই সরকারি সহায়তার দাবি জানিয়েছে তারা।
তবে, কৃষকদের বন্যার ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে সব ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা প্রশাসক আহমেদ কবির।
অনাবাদী জমিগুলো চাষের আওতায় আনতে পর্যাপ্ত কৃষি ঋণ, বিনামূল্যে চারা-বীজ ও সার প্রদানসহ প্রণোদনার ব্যবস্থা নিতে জেলা কৃষি বিভাগের সহায়তা চান চাষীরা।
 

এই সম্পর্কিত আরো খবর

নাটোরে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং সেন্টার পরিদর্শনে তথ্য সচিব

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরে নবনির্মিত শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার পরিদর্শন করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সচিব সুবীর...

আওয়ামী লীগে জঙ্গি-সন্ত্রাসি ও চাঁদাবাজের ঠাঁই নেই: ওবায়দুল

সিলেট প্রতিনিধি: আওয়ামী লীগে কোনো জঙ্গি-সন্ত্রাসি ও চাঁদাবাজের ঠাঁই হবে না বলে মন্তব্য করেছেন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং  সড়ক পরিবহণ...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is