ঢাকা, সোমবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৭, ৮ কার্তিক ১৪২৪, ২ সফর ১৪৩৯
শিরোনামঃ
রোহিঙ্গা সংকটের স্থায়ী সমাধান চায় বাংলাদেশ ও ভারত কফি আনান কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নের তাগিদ বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া ১৪ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা শিশু অপুষ্টিতে মারা যেতে পারে নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের কাজে নিরপেক্ষতা থাকতে হবে: সিইসি হোয়াইট ওয়াশ হলো বাংলাদেশ গত কদিনে বাংলাদেশে ঢুকেছে প্রায় ৪০ হাজার রোহিঙ্গা ১১ সাক্ষীকে জেরার জন্য খালেদার আবেদন হাই কোর্টে নিষ্পত্তি নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের কাজে নিরপেক্ষতা থাকতে হবে: সিইসি নিরাপদ সড়ক গড়ে তোলার লক্ষ্যে সবাই আইন মেনে চলুন আবহাওয়ার উন্নতি: দেশের বিভিন্ন রুটে নৌ চলাচল স্বাভাবিক নির্বাচন নিয়ে সরকার নীল নকশা করছে: রিজভী স্পেনের কেন্দ্রীয় শাসন না মানার ঘোষণা কাতালান প্রেসিডেন্টের উন্নত বাংলাদেশ গড়তে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখুন: জয় ইপিএল-এ জয় পেয়েছে চেলসি ও ম্যানসিটি বেড়িবাঁধ ভেঙে বিভিন্ন জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, ব্যাহত ফেরি চলাচল টানা বৃষ্টিতে ডুবে গেছে ঢাকার বিভিন্ন এলাকা টানা বৃষ্টিতে দেশের বিভিন্ন বন্দরের কার্যক্রমে স্থবিরতা মালয়েশিয়ায় ভূমিধসে তিন বাংলাদেশীসহ ৪ শ্রমিকের মৃত্যু কাতালোনিয়ার স্বায়ত্তশাসন বাতিল করে দিলো স্পেন

শাহজালাল বিমানবন্দরে ট্যাক্সি সার্ভিসে অরাজকতা

প্রকাশিত: ১০:৩৯ , ১২ অক্টোবর ২০১৭ আপডেট: ০৫:১৬ , ১২ অক্টোবর ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ভাড়ায় চালিত পরিবহন ও ট্যাক্সি সার্ভিসে চলছে অরাজকতা। যাত্রীদের অভিযোগ- একটি প্রভাবশালী চক্রের নিয়ন্ত্রণে নিুমানের ও এসি ছাড়া যানবাহন চালানো হলেও ভাড়া নেয়া হচ্ছে দ্বিগুণ। রাজধানীতে ভালোমানের ট্যাক্সি সার্ভিস চললেও বিমানবন্দরে সেগুলো ঢুকতে পারে না সিন্ডিকেটের কারণে। এমনকি উবার সার্ভিসও মেলে না। ফলে হয়রানির শিকার হচ্ছেন যাত্রীরা।

দুবাই থেকে প্রায় দুই বছর পর দেশে ফিরেছেন প্রবাসী কর্মী আমেনা। গাবতলী যেতে একটি গাড়ির জন্য টার্মিনালে বসে আছেন দুই ঘন্টা। বিমানবন্দরের পরিবহন দালালদের টানাহেঁচড়া আর বাড়তি ভাড়ার কারণে অনেকটাই নিরুপায় তিনি। তার মতো এমন অবস্থা অন্যান্য যাত্রীদেরও।

সারা দুনিয়ায় বিমান বন্দরে যাত্রীসেবার জন্য উন্নত পরিবহন ব্যবস্থা ও ভালোমানের ট্যাক্সি সার্ভিস থাকলেও ঢাকার চিত্র উল্টো। বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের ভোগান্তিতে পড়তে হয় যানবাহনের জন্য। বিশেষ করে প্রবাসী কর্মীরা হয়রানির শিকার হন বেশি। বিমানবন্দর কেন্দ্রীক একটি পরিবহন চক্র যেমন তেমন গাড়ি চালায়, ভাড়া আদায় করে ইচ্ছেমত।

সিভিল এভিয়েশনের অনুমতিতে বিমানবন্দরে যাত্রী পরিবহণ করছে করছে তিনটি কোম্পানী। এর বাইরে বিমানবন্দরে অন্য কোন ট্যাক্সি ও উবারের গাড়ি ঢুকতে পারে না বলে অভিযোগ চালকদের।

বেসরকারি ট্যাক্সি সার্ভিস কোম্পানী তমা গ্র“পের চেয়ারম্যান জানান, সিন্ডিকেট মুক্ত করতে না পারলে বিমান বন্দরের যাত্রী পরিবহণ ব্যবস্থা উন্নত হবে না।

এই অবস্থায় বিমানবন্দরে সব ট্যাক্সি সার্ভিস ও উবার উন্মুক্ত করে দেয়া হলে প্রতিযোগিতা যেমন বাড়বে, তেমনি যাত্রী সেবার মানও বাড়বে বলে মনে করেন তিনি।

 

এই সম্পর্কিত আরো খবর

মিয়ানমার থেকে অনুপ্রবেশ চলছে

গত কদিনে বাংলাদেশে ঢুকেছে প্রায় ৪০ হাজার রোহিঙ্গা

কক্সবাজার প্রতিনিধি: মিয়ানমার সেনাবাহিনীর দমন-পীড়ন অব্যাহত থাকায় এখনও বাংলাদেশের বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশ করছে রোহিঙ্গারা। গত...

জলাবদ্ধতা নিরসনে সমন্বিত পরিকল্পনার তাগিদ

টানা বৃষ্টিতে ডুবে গেছে ঢাকার বিভিন্ন এলাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক: একটু বৃষ্টিতেই যেন ছোট ছোট নদীতে পরিণত হয় রাজধানীর রামপুরা, বনশ্রী ও মালিবাগ এলাকার মূল সড়কসহ সব অলিগলি। গত কয়েকদিনের...

৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত বহাল

টানা বৃষ্টিতে দেশের বিভিন্ন বন্দরের কার্যক্রমে স্থবিরতা

ডেস্ক প্রতিবেদন: টানা তিনদিনের বৃষ্টিতে দেশের বিভিন্ন বন্দরের কার্যক্রমে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে। নিম্নচাপের কারণে চট্টগ্রাম, মংলা ও...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is