ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারী ২০১৮, ৩ মাঘ ১৪২৪, ২৮ রবিউস সানি ১৪৩৯
শিরোনামঃ
বরেণ্য সংগীতশিল্পী শাম্মী আক্তার আর  নেই রাজধানীর বাসাবাড়িতে তীব্র গ্যাস সংকট গণতান্ত্রিক অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশ : প্রণব আট ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন সমাপ্ত হবে দুই বছরের মধ্যে মেয়র পদে তাবিথই ২০ দলীয় জোটের প্রার্থীঃ রিজভী খালেদা আগামী প্রধানমন্ত্রীঃ মওদুদ অনুপ্রবেশ নিয়ে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের কড়া হুঁশিয়ারি খালেদা জিয়ার পক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ কলম্বিয়ায় সেতু ধসে নিহত ৯ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় আইনি বাধা নেই বাল্যবিয়ে আজও দেশের বড় সামাজিক সমস্যা নিরোধ আইন করেও বন্ধ হয়নি বাল্যবিয়ের চর্চা ২০৩০ সালের মধ্যে বাল্যবিয়ে অর্ধেকে নামানোর ঘোষণা সরকারের শিক্ষা ও স্বাস্থ্যের জন্য বাল্যবিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ চাঁদপুরে পিকআপ-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ৩ বিয়ের গসিপে বিরক্ত সোনাম কাপুর

দ্রুত ফাস্ট ফুড ব্যবসার বিস্তার ঘটেছে দেশে

প্রকাশিত: ০৯:২৬ , ১৯ অক্টোবর ২০১৭ আপডেট: ০৩:২৪ , ১৯ অক্টোবর ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: একসময় দেশের মানুষের ধারণার মধ্যেই ছিল না এমন অন্তত চারটি ব্যবসা বিগত তিন দশকে শুরু হয়ে চোখের পলকে বিশাল রূপ নিয়েছে। এখন হাজার হাজার কোটি টাকার নিয়মিত বাণিজ্যের খাত এগুলো। যা শুধু ব্যবসা-বাণিজ্যের উদ্যোক্তাদের কাছে জনপ্রিয় নয়, এর ভোক্তা বা ব্যবহারকারীদের কাছেও গুরুত্বপূর্ণ ও জনপ্রিয়। এর একটি ফাস্ট ফুড। পশ্চিমা সংস্কৃতির এই খাবারের বাজার শুধু দেশে বি¯তৃতই হয়নি, ঘরে ঘরে ফাস্ট ফুড তৈরির সংস্কৃতি গড়ে উঠেছে।

আশির দশকে একটু একটু করে যাত্রা শুরুর গল্প ছড়াতে থাকে ফাস্ট ফুডের। হতে থাকে জনপ্রিয়। প্রথমে দেশীয় নামে, তার পর বিদেশ চেন শপের নামেও গড়ে ওঠে ফাস্ট ফুডের দোকান।  গত এক দশকেরও বেশি সময় ধরে কেএফসি, পিজা হাটের মত ব্র্যান্ডও আসে দেশে। ফাস্ট ফুড এখন শহর গুলোর অলিতে গলিতে, এমনকি ছড়াচ্ছে গ্রামীণ জনপদেও।

শিশু-কিশোরদের থেকে শুরু করে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া শিক্ষার্থীদের ফাস্ট ফুডে আগ্রহ বেশি - এমন ধারণা পাল্টে গেছে। এখন বরং ফাস্ট ফুডে কার আগ্রহ নেই তা খোঁজে পাওয়া কঠিন। মুরগি, গরু আর সবজি দিয়ে বানানো বাহারি নামের রকমারি ফাস্ট ফুডে ঠাসা বাজার।

ফাস্ট ফুড ব্যবসার উদ্যোক্তাদের বেশির ভাগ তরুণ প্রজন্মের। এখাতের কর্মীরাও তরুণ, কাজ করে ছাত্র-ছাত্রীরাও। স্থানীয় প্রশাসন থেকে লাইসেন্স নিতে হয় ফাস্ট ফুডের দোকান করতে হলে। দেশে কত দোকান মোট তার হিসেব নেই। আছে সুবিধা-অসুবিধার নানা জায়গা। নিরাপদ খাদ্য অধিদপ্তরের পর্যবেক্ষণ এক্ষেত্রে দুর্বল।

সবসময় দোকানে গিয়ে খাওয়ার ধকল এড়াতে বাসায় ফাস্ট ফুড তৈরির এক সংস্কৃতি যুক্ত হয়েছ্ েবাসায় সহজে তৈরির জন্য বাজারে সহজে প্রস্তুতকৃত কাচামালের বাণিজ্যও জনপ্রিয় হয়েছে।  

অতি দ্রুত বিস্তার ঘটা ফাস্ট ফুড ব্যবসায় নীতিমালা প্রণয়ন ও মনিটরিং জোরদারের তাগিদ রয়েছে। যা হলে মান নিয়ন্ত্রণসহ নানা ইতিবাচক উন্নয়ন ঘটবে বলে সংশ্লিষ্টদের ধারণা।

এই বিভাগের আরো খবর

নিরাপত্তার জন্য সংসদ ভবন পরিদর্শনের সুযোগ কম সাধারণ মানুষের

নিজস্ব প্রতিবেদক : দূর থেকে দেখে অভিভূত হওয়া ছাড়া জাতীয় সংসদ ভবনের ভেতরে গিয়ে দেখবার সুযোগ সাধারণের জন্য নেই বললেই চলে। অধিবেশন চলার সময়...

সংসদ ভবন নির্মাণের সাথে জড়িয়ে আছে স্থপতি মাযহারুল ইসলামের নামও

নিজস্ব প্রতিবেদক : বর্তমান জাতীয় সংসদ ভবন নির্মাণের পরিকল্পনা শুরু হয় দেশ স্বাধীনের আগে। পঞ্চাশের দশকের শেষে আইয়ূব খানের সামরিক সরকার এই...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is