ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

2018-05-21

, ৬ রমজান ১৪৩৯

ইন্টারনেট এখন বিলাস সামগ্রী নয় অতি প্রয়োজনীয় সেবাখাত

প্রকাশিত: ০৯:৪৬ , ১৯ অক্টোবর ২০১৭ আপডেট: ০৩:২১ , ১৯ অক্টোবর ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগের তিন ব্যবসার সবগুলোর চাইতেই ইন্টারনেট সংযোগ অতি দ্রুত বেড়ে ওঠা নবীনতম বাণিজ্য। শুধু ঘরে ঘরে বা অফিস, আদালত, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে নয়, ইন্টারনেট চাই এখন হাতের মুঠোয়। নারী পুরুষ নির্বিশেষে, বয়সেরও কোন বালাই নেই, সবার চাই ইন্টারনেট। এটা বিলাস সামগ্রী নয়, যোগাযোগের জন্য এখন অতি প্রয়োজনীয় সেবা খাত। ফলে স্বাভাবিক ভাবেই আগের তিন ব্যবসার অনেক পড়ে এসে সমাজে দ্রুত বিস্তারে সবাইকে ছাড়িয়ে গেছে ইন্টারনেট বাণিজ্য।

৯০ দশকের শেষ দিকে স্থানীয় কিছু পরিসেবা প্রদানকারী সংস্থা ডায়াল-আপ এর সাহায্যে ইন্টারনেট ও ই-মেইল ব্যবহারের সুযোগ সৃষ্টি করে প্রথম। এর  ব্যবহাকারীর সংখ্যা ৫০০ ছাড়ায়নি। তার মাত্র দেড় দশক পর এখন ইন্টানেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা কোটি কোটি। নব্বই দশকের শেষে এবং বিগত দশকের প্রথম ভাগে ব্যক্তিগত উদ্যোগে সাইবার ক্যাফে নামে এলাকা ভিত্তিক কিছু বাণিজ্য কেন্দ্র গড়ে ওঠে।  ঘরে ঘরে ইন্টারনেট সংযোগ পৌঁছুতে শুরু করলে সেগুলোতে ভিড় কমে।

তথ্য প্রযুক্তির এ যুগে ইন্টারনেট ছাড়া জীবন কল্পনাই করা যায়না। এ চাহিদার কথা মাথায় রেখেই নতুন ধারণার এ ব্যবসার সাথে জড়িত হচ্ছে শিক্ষিত তরুণ উদ্যোক্তারা।

বিটিআরসি’র কাছ থেকে লাইসেন্স নিয়ে এলাকা ভিত্তিক গড়ে উঠেছে ইন্টারনেট সেবা প্রদানকারীদের নেটওয়ার্ক। গ্রাহক পর্যায়ে তারাই সেবা দিয়ে থাকে। একেকটি আইএসপি সর্বোচ্চ তিনটি থানায় কার্যক্রম চালাতে পারে। তবে, এলাকাভিত্তিক কার্যক্রম হওয়ায় স্থানীয় প্রভাবশালীদের হয়রানির মুখে পড়ে।

বাংলাদেশ প্রথমবার সাবমেরিন ক্যাবলের সাথে যুক্ত হয় ২০০৬ সালে। এবছর দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবলে যুক্ত হওয়ায় ব্যান্ডউইথ এর মূল্য কম হলেও যন্ত্রাংশের দাম বৃদ্ধি ও নতুন করে শুল্ক আরোপে এ ব্যবসায় সুবিধে কমছে বলে দাবি ব্যবসায়ীদের।

ব্রডব্যান্ড সংযোগ ব্যবহারে দক্ষিণ এশিয়ায় চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। ঘনবসতিপূর্ণ এই সমাজে মোবাইল এখন বহুমূখী ব্যবহারের জন্য জরুরি পণ্য, যেখানে ইন্টারনেট অপরিহার্য, ফলে এর ব্যবসা নিশ্চিত। 

এই বিভাগের আরো খবর

নিরাপত্তা সংস্থার জন্য নেই নীতিমালা, অপরাধে জড়ানোর অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক : গত তিন দশক ধরে বাণিজ্যিক নিরাপত্তা সংস্থাগুলো কাজ করলেও তাদের ব্যবসা পরিচালনার জন্য কোনো নীতিমালা তৈরি হয়নি আজও।...

বেসরকারি নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠানে কাজ করছে ১০ লাখেরও বেশি মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশে মাত্র তিন দশকে ৭’শর বেশী বাণিজ্যিক নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান সরকারি, বেসরকারি স্থাপনায় এবং বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ...

সফটওয়্যার খাতে রয়েছে দক্ষ জনশক্তি আর অবকাঠামো সুবিধার অভাব

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশে বিদেশে প্রতি বছরই সফটওয়্যারের বাজার সম্প্রসারণ হচ্ছে ত্রিশ থেকে চল্লি¬শ শতাংশ। ফলে প্রচুর সম্ভাবনা এ খাতে থাকলেও...

সফটওয়্যার রপ্তানি আয় বেড়ে দাঁড়িয়েছে আটশ’ মিলিয়ন ডলারে

নিজস্ব প্রতিবেদক : দক্ষ জনশক্তি, অবকাঠামোগত সীমাবদ্ধতার মধ্যেও ২০০০ সালে সফটওয়্যার রপ্তানি আয় ছিল যেখানে দুই দশমিক আট মিলিয়ন ডলার, এ বছর তা...

সফটওয়্যার খাতে কর্মসংস্থান হয়েছে পাঁচ লাখ মানুষের

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের সফটওয়্যারের অভ্যন্তরীণ বাজার প্রায় এক বিলিয়ন ডলারের আর বৈশ্বিক বাজার পাঁচ শত বিলিয়ন ডলারের। প্রযুক্তি খাতে গত...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is