ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫

2018-07-22

, ৯ জিলকদ্দ ১৪৩৯

মৈত্রীর বন্ধন সুদৃঢ় হবে : হাসিনা ও মোদি

খুলনা-কোলকাতা রেলপথে দ্বিতীয় মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনের উদ্বোধন

প্রকাশিত: ০৭:৪৪ , ০৯ নভেম্বর ২০১৭ আপডেট: ০৪:৩০ , ০৯ নভেম্বর ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক : দু’দেশের জনগণের মধ্যে সম্পর্ক আরো দৃঢ় করার অঙ্গীকারে খুলনা-কলকাতা রুটে নতুন ট্রেন বন্ধন এক্সপ্রেসের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এসময় মৈত্রী এক্সপ্রেসের নতুন সেবার উদ্বোধনও করা হয়। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধনী আয়োজনে যোগ দেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, দুই দেশের জনগণের মধ্যে যোগাযোগ আরো দৃঢ় হওয়ার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। আর আগামীতে প্রতিবেশী দুই দেশের বন্ধন নিবিড় হওয়ার কথা বলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক আরো দৃঢ় করতে বৃহস্পতিবার সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করা হয় বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেনের। একই সময় মৈত্রী এক্সপ্রেসের বর্ধিত সেবার পাশাপাশি দ্বিতীয় ভৈরব ও দ্বিতীয় তিতাস সেতুও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কনফারেন্সে যোগ দেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীও।
 
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এমন উদ্যোগের মধ্য দিয়ে প্রতিবেশী দুই দেশের নাগরিকদের মধ্যে যোগাযোগ আরো দৃঢ় হবে। জনগণের কল্যাণে এমন গঠনমূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার আকাঙ্খাও ব্যক্ত করেন তিনি।

এসময় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, আগামীতে বাংলাদেশ ও ভারতের মৈত্রী আরো দৃঢ় হবে। প্রতিবেশী দুই দেশের মধ্যে যোগাযোগ আরো নিবিড় হওয়ার তাগিদ দেন মোদি।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান।

 

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

দেশের প্রথম পরমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের সাথে ঈশ্বরদীর রেলসংযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ পাবনার ঈশ্বরদী থেকে দেশের প্রথম পরমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র রূপপুর পর্যন্ত রেলপথ নির্মাণে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের সাথে...

গাইবান্ধার ৩৩ কিলোমিটার মরণ ফাঁদ

গাইবান্ধা প্রতিনিধি: মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের গাইবান্ধার ৩৩ কিলোমিটার অংশ। গোবিন্দগঞ্জ থেকে ধাপেরহাট এলাকায় প্রতিনিয়তই...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is