ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫

2018-07-22

, ৯ জিলকদ্দ ১৪৩৯

বাজারে কমছে চালের দাম 

প্রকাশিত: ০৫:১৪ , ১০ নভেম্বর ২০১৭ আপডেট: ০৫:১৪ , ১০ নভেম্বর ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: সরবরাহ বেশি থাকায় রাজধানীর বাজারে কমতে শুরু করেছে বিভিন্ন প্রকার চালের দাম। গত এক সপ্তাহে প্রকারভেদে চালের দাম ৫ থেকে ৭ টাকা কমেছে। এদিকে, বাজারে আসতে শুরু করেছে শীতের সবজি। অন্যদিকে, গত দু’সপ্তাহ বাড়তে থাকা পেঁয়াজের দাম ১০ থেকে ১৫ টাকা কমেছে। স্থিতিশীল আছে নিত্যপণ্য, মাছ ও মাংসের দাম। 

দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে দফায় দফায় ভয়াবহ বন্যা, পাহাড়ী ঢলে ব্যাপক ক্ষতি হয় ফসলি জমির। এতে অস্থির হতে থাকে চালের বাজার। মার্চ-এপ্রিল মাসে যে সাধারণ মোটা চালের দাম ছিলো ৩২ থেকে ৩৫ টাকা, কয়েকদফা বাড়ার পর তা দাঁড়ায় ৫২-৫৫ টাকায়।

তবে, গেলো কয়েক মাসের উর্ধ্বমুখি চালের বাজারে কিছুটা স্বস্তি ফিরতে শুরু করেছে গেলো সপ্তাহ থেকে। কেজিতে সব চালের দামই কমেছে ৫ থেকে ৮ টাকা পর্যন্ত।

এদিকে, বাজারে শীতের মৌসুমী সবজি আসলেও সরবরাহ কম থাকায় কমেনি দাম। মূলা ৬০, ফুলকপি ৪০, পঠল ৬০, বেগুন ৮০, সিম ১০০, বেনঢি ৮০, কাঁচা মরিচ ১২০ টাকা কেজি ধরে বিক্রি হচ্ছে। 

সবজির উর্ধ্বমুখী দামের কারণে ক্ষুব্ধ ক্রেতারা। তবে, মাস খানেকের মধ্যে সবজির দাম কমবে বলে আশা করেছেন বিক্রেতারা।

অন্যদিকে, হঠাৎ বাড়তে থাকা পেঁয়াজের দাম কেজিতে ১০ থেকে ১৫ টাকা কমে প্রকারভেদে ৬০ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আলু ২০, রসুন ৮০, আদা ১২০, চিনি ৫২ টাকা কেজি ধরে বিক্রি হচ্ছে। 

এদিকে, বাজারে ইলিশসহ অন্যান্য মাছের সরবরাহ বাড়ায় কিছুটা কম দামে বিক্রি হচ্ছে মাছ। এছাড়া আগের দামেই বিক্রি হচ্ছে মুরগী, গরু ও খাসির মাংস, রসুন ও ভোজ্য তেলসহ বেশ কিছু নিত্যপণ্য।

এই বিভাগের আরো খবর

বন্যার পর তীব্র নদী ভাঙন

ডেস্ক প্রতিবেদন : সারাদেশে বন্যা পরিস্থিতির আরো উন্নতি হয়েছে। তবে বিভিন্ন জেলায় দেখা দিয়েছে ভাঙন। ওই সকল এলাকায় ত্রাণ না পৌঁছানোয়...

পাবনায় বাঁশের সাঁকো দিয়ে ৫০ হাজার মানুষের চলাচল

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনা সদরের কামারডাংগা-চরপাড়া সংলগ্ন ছোট নদীর উপরে বাঁশের সাঁকো দিয়ে প্রতিদিন চলাচল করে হাজারো মানুষ। আশপাশের ১০ গ্রামের...

সারাদেশে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি

ডেস্ক প্রতিবেদন : সারাদেশে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে শুরু করেছে। লালমনিরহাট, নীলফামারি, কুড়িগ্রাম, জামালপুর ও সিরাজগঞ্জে বন্যার পানি...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is