ঢাকা, বুধবার, ২২ নভেম্বর ২০১৭, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

ঝালকাঠিতে দুই বিচারক হত্যার এক যুগ আজ

প্রকাশিত: ০৩:৫৫ , ১৪ নভেম্বর ২০১৭ আপডেট: ০৪:১০ , ১৪ নভেম্বর ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঝালকাঠিতে দুই বিচারক হত্যার এক যুগ আজ। ২০০৫ সালের এ দিন জেএমবির বোমা হামলায় ঝালকাঠির জেলা জজ আদালতের দুই বিচারক শহিদ সোহেল আহমেদ ও জগন্নাথ পাঁড়ে নিহত হন। সেদিনের ঘটনায় ঝালকাঠিসহ গোটা দেশেই আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। বিচারক হত্যার এক যুগে জেলাবাসী দেশ থেকে চিরতরে জঙ্গিবাদের বিনাশ কামনা করেছেন।

২০০৫ সালের এ দিন সকালে আদালতে যাওয়ার সময় ঝালকাঠির পূর্বচাঁদকাঠী এলাকায় জজ কোয়ার্টারের রাস্তায় বোমা হামলায় নিহত হন দুই বিচারক। নিষিদ্ধ সংগঠন জেএমবি’র এক সদস্য বিচারক জগন্নাথ পাঁড়ে ও শহিদ সোহেল আহমেদকে একটি চিরকুট পড়তে দেয়ার পরপরই তাদের বহনকারী গাড়িতে বোমা হামলা হয়। এ ঘটনায় গাড়ির ড্রাইভার সুলতান হোসেন বাদী হয়ে ঝালকাঠি থানায় অস্ত্র ও বিষ্ফোরক আইনে পৃথক দু’টি মামলা দায়ের করেন।

আদালতের রায়ে এই মামলায় জেএমবি এর তৎকালীন প্রধান শায়খ আব্দুর রহমানসহ শীর্ষ ৬ জঙ্গির ফাঁসি কার্যকর করা হয়। রায়ে ঝালকাঠির মানুষ সন্তুষ্ট হলেও, দেশে আজও জঙ্গিবাদ বিদ্যমান থাকায়, তাদের অস্তুষ্টির কথা জানিয়েছেন। এদিকে, স্থানীয়দের দাবীর মুখে হত্যার স্থানে নির্মান করা হচ্ছে স্মৃতিস্তম্ভ।

জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি জানান, দিবসটি প্রতিবছর তারা যথাযথভাবে পালন করে দুই নিহত বিচারপতিকে স্মরণ করেন।

বিচারক হত্যার এক যুগে দাঁড়িয়ে ঝালকাঠির মানুষের একটাই দাবি, দেশ থেকে চিরতরে যেন জঙ্গিবাদ নির্মূল হয়।

 

এই সম্পর্কিত আরো খবর

ঘোড়ামারা আজিজসহ ৬ যুদ্ধাপরাধীর রায় দেয়া হতে পারে আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক : গাইবান্ধার সাবেক সংসদ সদস্য, জামায়াত নেতা আবু সালেহ মুহাম্মদ আব্দুল আজিজ মিয়া ওরফে ঘোড়ামারা আজিজসহ ছয় আসামির বিরুদ্ধে...

নিম্ন আদালতের বিচারকদের শৃঙ্খলাবিধির চূড়ান্ত খসড়া সুপ্রিম কোর্টে

নিজস্ব প্রতিবেদক: নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলাবিধির চূড়ান্ত খসড়া সুপ্রিম কোর্টে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল...

যুদ্ধাপরাধের মামলায় অভিযুক্ত গাইবান্ধার আজিজের রায় হতে পারে কাল

নিজস্ব প্রতিবেদক: গাইবান্ধার সাবেক সাংসদ জামায়াত নেতা আবু সালেহ মুহাম্মদ আব্দুল আজিজ মিয়া ওরফে ঘোড়ামারা আজিজসহ ছয় আসামির বিরুদ্ধে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is