ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

2019-05-22

, ১৭ রমজান ১৪৪০

বাড়ছে তামাক চাষ, কমছে রবিশস্য আবাদ

প্রকাশিত: ০৫:৫১ , ২৪ মার্চ ২০১৭ আপডেট: ০৫:৫১ , ২৪ মার্চ ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক
দেশের বিভিন্ন জেলায় দিনদিন বাড়ছে তামাক চাষ। তামাক কোম্পানিগুলোর দেয়া নানা সুযোগ-সুবিধার কারণে চাষীরা ঝুঁকছেন ক্ষতিকর তামাক চাষে। এর ফলে, একদিকে জমির উর্বরা শক্তি কমছে, অন্যদিকে ধানসহ রবিশস্যের আবাদ কমে যাওয়ায় বাড়ছে খাদ্য ঘাটতির শঙ্কা। এছাড়াও কয়েক বছর ধরে তামাক পাতা পোড়াতে গার্মেন্টের উচ্ছিষ্ট কাপড় ব্যবহার করায় পরিবেশও মারাত্মকভাবে দূষিত হচ্ছে। স্থানীয় কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা মনে করেন, তামাক চাষে কৃষকদের আগ্রহ কমাতে প্রয়োজন অন্য ফসল চাষে ভর্তুকি দেয়া।

মানিকগঞ্জে এবার দুই হাজার হেক্টর জমিতে তামাকের চাষ হয়েছে। ধানসহ বিভিন্ন রবিশস্যের বদলে ব্যাপকভাবে চাষ হচ্ছে ক্ষতিকর তামাকের। বাদ যায়নি বসতবাড়ির আশপাশের ফাঁকা জায়গাগুলোও। পুরুষের পাশাপাশি তামাক চাষে জড়িয়ে পড়েছে নারী ও শিশুরাও। চাষীরা বলছেন, কোম্পানিগুলো নানা রকম সুযোগ-সুবিধা দেয়ায় তামাক চাষে আগ্রহী হচ্ছেন তারা। থাকছে চড়া দামে তামাক কেনার নিশ্চয়তাও।

এ ব্যাপারে জেলার কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন, তামাক চাষ নিরুৎসাহিত করতে নিয়মিত কৃষকদের পরামর্শ দিলেও কাজ হচ্ছেনা। এ অবস্থায় অন্য ফসল উৎপাদনে কৃষকদের ভর্তুকি দেয়ার ব্যবস্থা করা জরুরী বলে মনে করছেন তারা।

এদিকে, মেহেরপুরেও বাড়ছে তামাক চাষ। চলতি বছর চাষ হয়েছে ৩ হাজার ৬৫০ হেক্টর জমিতে। যা আগের বছরের তুলনায় ৮৫০ হেক্টর বেশি। চাষীরা বলছেন, বিভিন্ন কোম্পানি বিনামূল্যে বীজ, সার ও কীটনাশকসহ নগদ অর্থ সহায়তা দেয়ার বাড়ছে তামাক চাষ।

এছাড়া, গত কয়েক বছর ধরে তামাক চুল্লীতে গার্মেন্টের উচ্ছিষ্ট কাপড় ব্যবহার করা হচ্ছে। এতে মারাতœকভাবে দূষিত হচ্ছে পরিবেশ। বাড়ছে অ্যাজমা ও ব্রঙ্কাইটিসসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার শঙ্কা।

তবে পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর তামাক চাষ বন্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন।  

তামাক চাষ এসব এলাকার খাদ্য নিরাপত্তার জন্য হুমকির পাশাপাশি পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার ক্ষেত্রেও বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠেছে। তাই ক্ষতিকর তামাকের চাষ বন্ধে প্রশাসনকে আরো তৎপর হবার আহ্বান জানিয়েছেন পরিবেশবাদীরা।

এই বিভাগের আরো খবর

ফরিদপুরে লিচুর বাম্পার ফলন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ফরিদপুরে লিচুর বাম্পার ফলন হলেও হাসি নেই কৃষকের মুখে। কেননা, তীব্র গরমের কারণে লিচু ফেটে গাছ থেকে ঝরে পড়ছে। শেষ সময়ের...

বান্দরবান পৌরসভার সাবেক কমিশনারকে অপহরণের অভিযোগ 

বান্দরবান প্রতিনিধি: বান্দরবান পৌরসভার পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার ও পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি চথোয়াইমং মারমাকে অপহরণের অভিযোগ...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is