ঢাকা, বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

2018-09-19

, ৮ মহাররম ১৪৪০

আকতার ও তাসোয়াতের লক্ষ্য টেনিসের উন্নয়নে কাজ করা

প্রকাশিত: ০৩:১৩ , ০৩ ডিসেম্বর ২০১৭ আপডেট: ০৩:১৩ , ০৩ ডিসেম্বর ২০১৭

ক্রীড়া প্রতিবেদক: স্বপ্ন ছিল টেনিস খোলোয়াড় হয়ে বিশ্বে নাম ছড়াবেন বাংলাদেশের হয়ে। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দেশের হয়ে খেলেছেন দুই বাংলাদেশি তরুণ আকতার হোসেন ও তাসোয়াত কলিংস। এখন তাদের লক্ষ্য দেশের টেনিসের উন্নয়নে কাজ করা। তবে ফেডারেশনের সহযোগিতা না পেয়ে হতাশ তারা। সম্প্রতি ইন্টারন্যাশনাল জুনিয়র টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপে চীন দলের কোচ হয়ে আসা দুই তরুণ বৈশাখী অনলাইনডটকমকে দেওয়া একান্ত সাক্ষাতকারে জানালেন তাদের পরিকল্পনার কথা।

বিদেশি খেলোয়াড় নয়, টেনিস কোর্টে দেশের কোনো টেনিস খেলোয়াড়ের প্রশিক্ষক হতে পারতেন আকতার হোসেন ও তাসোয়াত কলিংস। যদিও বাস্তবতা হাঁটছে ভিন্ন পথে। সম্প্রতি ইন্টারন্যাশনাল জুনিয়র টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপে চীন দলের কোচ হয়ে এসেছেন এক সময় বাংলাদেশের হয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলা এই দুই তরুণ। অভিজ্ঞ প্রশিক্ষক হিসেবে নিজেদের প্রমাণও করেছেন। এখন কাজ করছেন চীনের টেনিস উন্নয়নে। তারপরও দেশের হয়ে কাজ করার ইচ্ছে এখনও উকি দেয় তাদের মনে। তবে ফেডারেশনের সহযোগিতা মিলছে না কোন ভাবেই।

তাসোয়াত কলিংস বলেন, “প্রতিবার দেশে আসলেই ফেডারেশন আমাকে বলে যে আমি যদি খেলোয়াড়দের প্রশিক্ষণ করায় তারপর আর কিছু বলে না। আমি এটা দেখাতে চাই কিভাবে খেলোয়ার তৈরি করতে হয়।”   

কলিংসের মতো আকতার হোসেনও চান দেশের জন্য কাজ করতে। কিন্তু আর্থিক ভাবে সচ্ছল থাকার অনিশ্চয়তা, টেনিস নিয়ে ফেডারেশনের দীর্ঘমেয়াদি কোন পরিকল্পনা না থাকা তার ইচ্ছেটাকে অনেকটাই ম্লান করে দিয়েছে।

আকতার হোসেন বলেন, “আমরা যখন দেশে আসি তখন খেলোয়াড় আমাদের ওই ভাবে চেনে না। তারপরও আমরা যারা আছি যদি ভবিষ্যতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করা হয় তবে বাংলাদেশি হিসেবে অবশ্যই আমাদের সমর্থন থাকবে।  

বিষয়টি নিয়ে টেনিস ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক জানালেন, সাবেক টেনিস খেলোয়াড়দের নিয়ে কোন পরিকল্পনা নেই তাদের।

বাংলাদেশ টেনিস ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোর্শেদ বলেন, “যদি চীনে চলে যায় যাবে, সৌদি আরবে গেছে না তারা। আমরাও চেষ্টা করবো তাদেরকে ধরে রাখতে। আজকে তারা এসে বিনা মূল্যে কোচিং করছে। আমরা তাদের বলেছি এবার যাওয়ার আগে আমাদের টিমকে তোমরা কোচিং দিয়ে যাও।”

আকতার কলিংসের মতো এমন অনেক টেনিস খেলোয়াড় আছেন যারা দেশে, সহযোগিতা না পেয়ে পাড়ি জমিয়েছেন বিদেশে। তবে, রয়ে গেছে দেশের প্রতি ভালবাসা এবং দায়িত্ববোধ। সেই জায়গা থেকেই তারা বিশ্বাস করেন, টেনিসের উন্নয়নে একদিন তারা ডাক পাবেন।

এই বিভাগের আরো খবর

চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার ফুটবল কমিটির নতুন সভাপতি

ক্রীড়া প্রতিবেদক : চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার ফুটবল কমিটির সভাপতি মনোনীত হয়েছেন বরেণ্য সংগঠক তরফদার মোহাম্মদ রুহুল আমিন। বিভাগীয়...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is