ঢাকা, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১২ ফাল্গুন ১৪২৪

2018-02-23

, ৭ জমাদিউল সানি ১৪৩৯

রোহিঙ্গা ইস্যু

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিসংঘে আবারো প্রস্তাব গৃহীত

প্রকাশিত: ০৯:৫৩ , ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭ আপডেট: ০৯:৫৩ , ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গাদের অধিকার সুরক্ষার একটি প্রস্তাব জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলে গৃহীত হয়েছে। তবে, চীনের বিরোধিতার মুখে সর্বসম্মতিক্রমে প্রস্তাবটি পাস না হওয়ায় হতাশা ব্যক্ত করেছে বাংলাদেশ। এর আগে, মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার জেইদ রাদ আল হুসেইন বলেন, রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমারের সেনাবাহিনী গণহত্যার মতো অপরাধ করেছে, যে কারণে তাদের বিচার হতে পারে।

বাংলাদেশের অনুরোধে মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে বিশেষ অধিবেশন ডাকে জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিল। মঙ্গলবার জেনেভায় অনুষ্ঠিত অধিবেশনটি  দুই পর্বে মোট ছয় ঘন্টা ধরে চলে। শেষ পর্বে রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার সুরক্ষা সংক্রান্ত বাংলাদেশের উত্থাপিত প্রস্তাবটির ওপর ভোটাভুটি হয়। প্রস্তাবের পক্ষে ভোট পড়ে ৩৩টি। আর প্রস্তাব পাস সমস্যা সমাধানে সহায়ক হবে না মত দিয়ে বিপক্ষে ভোট দেয় চীনসহ ৩ টি দেশ। অন্যদিকে ভারতসহ ৯টি দেশ ভোটদান থেকে বিরত থাকে।

ভোটের ফলাফলে হতাশা জানিয়েছেন জেনেভায় বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি শামীম আহসান। ভোটাভুটির আগে প্রস্তাবের বিরোধিতা করে জাতিসংঘে মিয়ানমারের স্থায়ী প্রতিনিধি তিন লিন বলেন, একটি নির্দিষ্ট গোষ্ঠীর ওপর গুরুত্ব দিয়ে মানবাধিকার রক্ষার প্রস্তাব বাজে দৃষ্টান্ত তৈরি করবে।

অধিবেশনের প্রথম পর্বে যোগ দিয়ে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম মিয়ানমারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহবান জানান। জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান জেইদ রাদ আল হুসেইন বলেন, রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমারের সেনবাহিনী গণহত্যার মতো অপরাধ সংঘঠিত করেছে। সহিংসতায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি জানান তিনি।

 

এই বিভাগের আরো খবর

সিরিয়ায় সরকারি বাহিনীর হামলায় নিহতের সংখ্যা চারশ’র বেশি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সিরিয়ার পূর্ব ঘৌতায় পঞ্চম দিনের মতো চলছে সরকারি বাহিনীর হামলা। এতে নিহতের সংখ্যা চারশ’ ছাড়িয়েছে। রুশ বাহিনীর সহায়তায়...

সিরিয়ায় সহিংসতা অব্যাহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সিরিয়ার বিদ্রোহী অধ্যুষিত পূর্ব ঘাউতায় সরকারি বাহিনী ও বিদ্রোহীদের মধ্যে সহিংসতা অব্যাহত রয়েছে। সরকারি বাহিনীর...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is