ঢাকা, সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮, ৮ শ্রাবণ ১৪২৫

2018-07-22

, ৯ জিলকদ্দ ১৪৩৯

জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিলেন ট্রাম্প

প্রকাশিত: ১০:৪২ , ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭ আপডেট: ১০:৪৩ , ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিশ্বনেতাদের হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এই ঘোষণার মধ্য দিয়ে ট্রাম্প জেরুজালেমের ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের কয়েক দশকের নীতি বদলে দিয়েছেন। মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেয়া হচ্ছে বলেও জানান ট্রাম্প। এই সিদ্ধান্তে ফিলিস্তিনসহ বিভিন্ন দেশে বিক্ষোভ চলছে। এ কারণে মধ্যপ্রাচ্যে নতুন করে অস্থিরতা তৈরি করবে বলে আশংকা বিশ্লেষকদের।

দীর্ঘদিন জেরুজালেমকে রাজধানী বলে দাবি করে আসছে ইসরাইল। আর ভবিষ্যৎ ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে জেরুজালেমকে চায় ফিলিস্তিনি নেতারা। এই অবস্থায় জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিলে তার ভয়াবহ পরিণতির ব্যাপারে হুঁশিয়ারি করা সত্ত্বেও ঘোষণা থেকে সরে আসলেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বুধবার হোয়াইট হাউসে এক ভাষণে ট্রাম্প বলেন, জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতির এটাই সময়। তেল আবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তর করারও ঘোষণা দেন তিনি।

ট্রাম্পের এই ঘোষণা যুক্তরাষ্ট্রের কয়েক দশকের নীতিকে বদলে দিয়েছে। তবে, দীর্ঘদিনের ইসরাইল-ফিলিস্তিন সংঘাত এড়াতে যুক্তরাষ্ট্র দুই রাষ্ট্র নীতিকে সমর্থন দিতে প্রস্তুত বলে জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ইসরাইল। অন্যদিকে, এই ঘোষণাকে দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন ফিলিস্তিনি নেতা মাহমুদ আব্বাস। তিনি বলেন, শান্তি আলোচনা প্রক্রিয়ায় মধ্যস্থতা করার যোগ্যতা হারিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এক প্রতিক্রিয়ায় ফিলিস্তিনি সংগঠন হামাস জানিয়েছে, এই সিদ্ধান্ত নরকের দরজা খুলে দেবে। নিন্দা জানিয়েছেন যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, সৌদি আরবসহ অনেক দেশের নেতারা। এরই মধ্যে ঘোষণার প্রতিবাদে গাজা ও তুরস্কের ইস্তাম্বুলে মার্কিন কনস্যুলেটের সামনে বিক্ষোভ হয়েছে।

 

এই বিভাগের আরো খবর

চুক্তিতে না পৌঁছালে ‘বেক্সিট ফি’ পরিশোধ করবে না যুক্তরাজ্য

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইউ) সাথে বাণিজ্যিক চুক্তিতে পৌঁছতে না পা্রলে যুক্তরাজ্য ৩৯ বিলিয়ন পাউন্ড (৫১ বিলিয়ন ডলার) বিল পরিশোধ...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is