ঢাকা, শুক্রবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৪ বৈশাখ ১৪২৫

2018-04-26

, ১০ শাবান ১৪৩৯

আয়তন বেড়েছে বাংলাদেশের

নতুন মানচিত্র শিগগিরই প্রকাশ হবে পাঠ্যপুস্তকসহ সর্বত্র

প্রকাশিত: ১০:৪২ , ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ আপডেট: ০২:০৩ , ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক : আয়তন বেড়েছে বাংলাদেশের। তাই আঁকা হয়েছে দেশের নতুন মানচিত্র। পাঠ্যপুস্তকসহ সর্বত্র শিগগিরি এই মানচিত্র প্রকাশিত হবে। বাণিজ্যিকভাবে নতুন মানচিত্র সবার কাছে পৌঁছে দেয়ার আয়োজনও প্রক্রিয়াধীন।

খালি চোখে হয়তো চট করে পরিবর্তন বোঝা কঠিন, যারা মানচিত্র নিয়ে কাজ করছেন কিংবা মানচিত্রের বিভিন্ন দিক নিয়ে যাদের আগ্রহ আছে তারা খুটিয়ে দেখলে বুঝবেন দেশের নতুন মানচিত্রে পরিবর্তনগুলো। দেশের আয়তন বেড়েছে জলে ও স্থলে। বৈশাখী টেলিভিশনকে  এমন কথাই জানিয়েছেন দেশের আয়তন ও সমুদ্রসীমা বিশেষজ্ঞ সাবেক রিয়ার এডমিরাল খোরশেদ আলম।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বধীন সরকাররে কূটনৈতিক তৎপরতায় ২০১১ সালে প্রটকল চুক্তির পর ভারতের আসাম, ত্রিপুরা, মেঘালয় ও পশ্চিমবঙ্গ সীমান্ত এলাকায় এক হাজার দুশো তেতাল্লিশটি পিলার বসিয়েছে বাংলাদেশ। এছাড়া ৩৬.১৮ বর্গ কিলোমিটার আয়তন বেড়েছে ২২৬৭ দশমিক ৬৮২ একর অপদখলীয় জমি ও ১১১টি ছিটমহলে। ৭৫টি নতুন দ্বীপ স্থায়ীভাবে জেগে ওঠায়ও আয়তন বেড়েছে বলে জানান খোরশেদ আলম। তবে ৫৬ হাজার বর্গমাইলের বাংলাদেশের নতুন আয়তন বেড়ে কত হয়েছে তা জানতে আরো কিছুদিন অপেক্ষা করতে হবে।

এ’বছরের মাঝামাঝি জরিপ অধিদপ্তরের আঁকা দেশের সবশেষ মানচিত্র বিভিন্ন মন্ত্রণালয়সহ সরকারি গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরে পাঠানো হয়েছে। পাঠ্যপুস্তকে নতুন মানচিত্র যুক্ত করার বিষয়টি শিক্ষা মন্ত্রণালয়কে জানানো হলেও তার বাস্তবায়ন বাকি আছে এখনো।

আঁকা নতুন মানচিত্রে দেখা যায়, সমুদ্রতীরবর্তী দক্ষিণ ভাসান চর এবং পুটনি দ্বীপ বরাবর নতুন তটভুমি যুক্ত হয়েছে। ফলে সমুদ্রসীমা যেমন বাড়ছে তেমনি মানচিত্রের নীচের অংশে কক্সবাজারের সেন্টমার্টিন, বরগুনার রুপার চর হয়ে তটরেখা সুন্দরবন পর্যন্ত বিস্তৃত হয়েছে।

 

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is