ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৮, ৬ মাঘ ১৪২৪, ২ জুমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
শিরোনামঃ
ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব, জুমার নামাজে লাখো মুসল্লি ৭৫ উর্ধ্ব প্রবীণ কারাবন্দিদের মুক্ত করার উদ্যোগ সংস্কার হয়নি চট্টগ্রাম মহানগরীর ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক সরকারের কারণেই ডিএনসিসি নির্বাচন ভণ্ডুল: বিএনপি এক জঙ্গি চট্টগ্রামের নাফিস তরুণদের অগ্রণী ভূমিকা পালনের আহ্বান স্পিকারের ফরিদপুরে কাভার্ডভ্যানের সাথে সংঘর্ষে মোটরসাইকেলের দু’আরোহী নিহত  ‘ফ্রিডারিকে’ তাণ্ডবে বিপর্যস্ত উত্তর ইউরোপ রংপুরে দগ্ধ আরো দু’জনের মৃত্যু  অস্থির সবজির বাজার, ঝাঁঝ কমেছে পেঁয়াজের স্প্যানিশ কোপা ডেল’রে ফুটবলে রিয়াল মাদ্রিদের জয়  খালেদা মামলার কার্যক্রম ব্যাহত করেছেন: হাছান মাহমুদ শ্রীলংকাকে রেকর্ড ব্যবধানে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ ঢাকা আঞ্চলিক গণিত উৎসব অনুষ্ঠিত উখিয়া ক্যাম্পে বন্য হাতির আক্রমণে রোহিঙ্গার মৃত্যু মজুরি বোর্ড গঠনকে ইতিবাচক দেখছেন পোশাক শ্রমিকরা টঙ্গীতে জোড়া খুনের ঘটনায় ৫ জন গ্রেফতার ডিসেম্বরের মধ্যে পদ্মা সেতু নির্মাণের চেষ্টা চলছে অসুস্থ আইভী ল্যাব এইডে ভর্তি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হলেন ১৫৫ জন

সুস্থ শরীরের জন্য রুটির বিকল্প নেই

প্রকাশিত: ০৫:১১ , ০৪ জানুয়ারী ২০১৮ আপডেট: ০৫:২৪ , ০৪ জানুয়ারী ২০১৮

ডেস্ক প্রতিবেদন: কেউ ওজন কমাতে, কেউ কেউ আবার অভ্যাসের কারণেই রাতে রুটি খেয়ে থাকেন। শরীরকে সুস্থ এবং রোগমুক্ত রাখতে রুটির কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে। রুটিতে একাধিক পুষ্টিকর উপাদান থাকে যা হার্টের রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা হ্রাস পায়। এছাড়া একাধিক ছোট-বড় শারীরিক সমস্যার প্রকোপ কমাতেও বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে রুটি।

গমে থাকা ভিটামিন বি, ভিটামিন ই, সিলিকন, ক্লোরিন, সালফার, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, কপার, আয়োডিন, জিঙ্ক, ম্যাঙ্গানিজ, ক্যালসিয়াম এবং প্রাকৃতিক লবণ নানা দিক থেকে শরীরকে চাঙা রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

আটায় ফ্যাট থাকে না বললেই চলে। সেই সঙ্গে গ্লাইসেমিক ইনডেক্স কম থাকার কারণে রুটি খেলে হার্টের কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। সেই সঙ্গে হঠাৎ করে সুগার বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা কম থাকায় ডায়াবেটিক রোগীদের জন্যও এই খাবার খুবই উপকারি। এখানেই শেষ নয়, রুটিতে প্রচুর মাত্রায় ভিটামিন বি১, বি২, বি৩, বি৬, এবং বি৯ থাকে, যা ক্যান্সার রোগের প্রকোপ কমানোর পাশাপাশি আরও নানাভাবে শরীরের উপকারে লাগে। তাই রুটি খাওয়ার অভ্যাস একেবারেই খারাপ নয়।

প্রশ্নটা হল রাতে রুটি খাওয়া কি উপকারি? একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে রাতে রুটি খেলে শরীরের অন্দরে এই পরিবর্তনগুলি হয়ে থাকে। যেমন গবেষণা করে দেখা গেছে, রাতে রুটি খেলে শরীরে এনার্র্জি মাত্রা বৃদ্ধি পায়, ফলে ক্লান্তি দূর হয়ে শরীর একেবারে চাঙা হয়ে ওঠে। এছাড়া ওজন হ্রাসে সাহায্য করে।

রুটিতে ক্যালরির পরিমাণ খুব কম থাকে। মাত্র ৭০। তাই রাতে রুটি খেলে ওজন বৃদ্ধির কোনও সম্ভাবনাই থাকে না। তাই যারা ওজন কমানোর বিষয় বদ্ধপরিকর, তারা ইচ্ছা হলে ডিনারের মেনুতে রুটি রাখতেই পারেন। প্রসঙ্গত, যেমনটা আপনাদের সকলেরই জানা আছে যে, রাত যত বাড়তে থাকে, তত আমাদের শরীরের মেটাবলিজম রেট কমতে শুরু করে। তাই  রাতে বেশি ক্যালরিযুক্ত খাবার খেলে ওজন বৃদ্ধির সম্ভাবনা বেড়ে যায়। এবার নিশ্চয় বুঝতে পরেছেন রাতে রুটি খাওয়ার উপকারিতা কতটা।

একাধিক গবেষণায় দেখা  গেছে, রুটি খেলে শরীরে জমে থাকা অতিরিক্ত ফ্যাট ঝড়তে শুরু করে। ফলে নিমেষে ওজন কমে। আর্থাৎ রাতে রুটি খেলে ওজন তো বাড়েই না। উল্টো কমতে শুরু করে।

রুটিতে উপস্থিত ফাইবার শরীরে প্রবেশ করা মাত্র হজম ক্ষমতা বাড়াতে শুরু করে।  সেই সঙ্গে গ্যাস-অম্বল এবং বদ-হজমের মতো সমস্যাও কমিয়ে দেয়। এখানেই শেষ নয়, দেখা গেছে রাতে ভাত এবং রুটির মধ্যে রুটি তাড়াতাড়ি হজম হয়। ফলে বদ-হজমের আশঙ্কা কমে।

আগেও আলোচনা করা হয়েছে, রুটির গ্লাইসেমিক ইনডেক্স খুব কম হওয়ার কারণে এটি খাওয়া মাত্র রক্তে সুগারের মাত্রা বেড়ে যাওয়ার কোনও আশঙ্কা থাকে না। ফলে ডায়াবেটিকরা নিশ্চিন্তে সকাল-বিকাল রুটি খেতেই পারেন। প্রসঙ্গত, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতেও রুটির কোনও বিকল্প হয় না, তাই যাদের পরিবারে এই মারণ রোগের ইতিহাস রয়েছে, তারা রাতে রুটি খাওয়া শুরু করতে পারেন।

একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত রুটি খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে। ফলে হঠাৎ করে প্রেসার বেড়ে যাওয়ার কারণে হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোক হওয়ার আশঙ্কা কমে। সেই সঙ্গে রুটিতে উপস্থিত একাধিক উপকারি উপাদান ব্রেন পাওয়ার বৃদ্ধিতেও বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

খনিজের ঘাটতি পূরণ করে শরীরকে সুস্থ রাখতে যে যে ভিটামিন এবং খনিজের প্রতিনিয়ত প্রয়োজন পরে, সেগুলি সবই রয়েছে রুটিতে। তাই রাতে হোক কী দিনে রুটির কোনও বিকল্প হয় না বললেই চলে।

রুটিতে প্রচুর মাত্রায় জিঙ্ক রয়েছে, যা ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধির পাশাপাশি বলিরেখা কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

রুটিতে উপস্থিত সেলেনিয়াম এবং ফাইবার একাধিক ক্যানসার রোগের প্রকোপ কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। তাই যাদের পরিবারে এমন রোগের ইতিহাস রয়েছে তারা রাতে রুটি খাওয়ার বিষয় ভেবে দেখতে পারেন।

এই বিভাগের আরো খবর

উত্তরা মেডিকেলের ৫৭ শিক্ষার্থীকে শিক্ষা কার্যক্রম নিয়ে কাল আদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ঢাকার উত্তরা আধুনিক মেডিকেল কলেজে ‘আগে এলে আগে পাবেন’ ভিত্তিতে ভর্তি হওয়া ৫৭ শিক্ষার্থীকে শিক্ষা কার্যক্রম থেকে...

গাজর ওজন কমায়

ডেস্ক প্রতিবেদন: ওজন কমানোর জন্য কত কী করছেন। কখনও জিমে ছুটছেন। কখনও কঠিন ডায়েট করছেন।  কিন্তু ওজন কমার বদলে, বেড়েই যাচ্ছে! কিন্তু জানেন কি?...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is