ঢাকা, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৫

2018-10-22

, ১১ সফর ১৪৪০

মানবতাবিরোধী অপরাধ

মৌলভীবাজারের ২ রাজাকারের মৃত্যুদণ্ড, ৩ জনের আমৃত্যু কারাদণ্ড

প্রকাশিত: ০১:২৪ , ১০ জানুয়ারী ২০১৮ আপডেট: ০৬:০৯ , ১০ জানুয়ারী ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ মানবতাবিরোধী অপরাধে মৌলভীবাজারের দুই আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও তিন জনকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। ১৮ জনকে হত্যার দায়ে নেসার আলী ও ওজায়ের আহমেদকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আদালত রায় ঘোষণার সময় পর্যবেক্ষণে বলেন, এই বিচারের মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস উঠে এসেছে।

’৭১ সালে মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে মানবতাবিরোধী নানা অপরাধ করেন শামসুল হোসেন তরফদারসহ পাঁচ আসামি। হত্যা, গণহত্যা, লুট অগ্নিসংযোগসহ বিভিন্ন অপরাধের অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

বুধবার মৌলভিবাজারের এই পাঁচ রাজাকারের মধ্যে আটক ওজায়ের আহমেদ চৌধুরী ও ইউনুস আহমেদকে আদালতে হাজির করা হয়। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ সকাল থেকে মামলার ২০২ পৃষ্ঠার রায় পড়া শুরু করেন। তাদের বিরুদ্ধে সুনিদিষ্ট পাঁচটি অভিযোগের বিষয় আদালত রায়ের মাধ্যমে তুলে ধরেন। রায়ে আসামিদের বিরুদ্ধে নিরস্ত্র ১৮জনকে হত্যার দায়ে মৃত্যুদণ্ডসহ বিভিন্ন মেয়াদে সাজা ঘোষণা করা হয়।

আদালত রায়ে কিছু পর্যবেক্ষণে বলেন, এই রায়ের মধ্য দিয়ে একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস উঠে এসেছে। এছাড়া দণ্ড দেয়ার ক্ষেত্রে বয়স বিবেচনা করা হবে না বলেও জানায় আদালত।

রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করা হবে বলে জানিয়েছেন আসামিপক্ষের আইনজীবীরা।

মামলার অন্য আসমিরা হলেন মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার শামসুল হোসেন তরফদার, মোবারক মিয়া ও ইউনুস আহমেদ। এই তিন আসামি পলাতক রয়েছেন। এর আগে, গত বছরের ২০ নভেম্বর উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে মামলাটি রায়ের জন্য অপেক্ষমান রাখে ট্রাইব্যুনাল।

 

এই বিভাগের আরো খবর

জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে ফের চাঁদাবাজির মামলা 

সাভার প্রতিনিধি: গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বিরুদ্ধে আশুলিয়ায় আরেকটি চাঁদাবাজির মামলা দায়ের করা হয়েছে। এক...

হাতিরঝিলে প্ল্যানের বাইরের স্থাপনা অপসারণের ওপর স্থিতাবস্থা জারি

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর হাতিরঝিল-বেগুনবাড়ি প্রজেক্টে লে আউট প্ল্যানের বাইরে থাকা  স্থাপনা সাত দিনের মধ্যে অপসারণ করতে হাইকোর্টের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is