ঢাকা, রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮, ৮ মাঘ ১৪২৪, ৪ জুমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
শিরোনামঃ
আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো দ্বিতীয় পর্বের আয়োজন আইন সংশোধন করে পাহাড়িদের জমির মালিকানা বুঝিয়ে দেয়া হবে- প্রধানমন্ত্রী ন্যাম ভবনে এমপি লুৎফুল্লাহর ছেলের ঝুলন্ত লাশ বদলে যাচ্ছে পদ্মা পাড়ের আর্থসামাজিক চিত্র এ’বছর হজে যেতে পারবেন ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন সংগঠন অনুযায়ী জঙ্গিদের আলাদা সেলে রাখা হচ্ছে- কারা মহাপরিদর্শক ঢাবি’র রেজিস্টার্ড গ্রাজুয়েট নির্বাচনে গণতান্ত্রিক ঐক্য পরিষদের জয় আইভীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি জামিন পেলেন আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ ফাইনালে যেতে জিততেই হবে শ্রীলংকাকে ভৈরবে আমন ধানের বাম্পার ফলন দিল্লিতে বাজির গুদামে আগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৭ পোঁড়া বেগুনের অনেক গুণ সরকারি উন্নয়ন প্রকল্পে ব্যয়ের স্বচ্ছতা দেখবে দুদক উপকূলে কৃষি উন্নয়নে ব্লুগোল্ড প্রকল্প জাতিসংঘের দূতের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন মাশরাফি শাইনপুকুরে, সাকিব মোহামেডানে, তামিম কলাবাগানে নড়াইলে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ১২ জন গুলিবিদ্ধ  ট্রাম্পের ক্ষমতা গ্রহণের এক বছর যশোরে গুলিবিদ্ধ চার মৃতদেহ উদ্ধার

বিশ্বব্যাংকের পূর্বাভাস

চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি হবে ৬.৪ শতাংশ

প্রকাশিত: ০৮:২০ , ১০ জানুয়ারী ২০১৮ আপডেট: ০৮:২০ , ১০ জানুয়ারী ২০১৮


নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০১৭-১৮ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৬.৪ শতাংশ হবার পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্বব্যাংক।  প্রবৃদ্ধির হার কম দেখালেও বাংলাদেশের অর্থনৈতিক স্থিতিশীল অবস্থায় রয়েছে বলে মনে করছে সংস্থাটি। বুধবার সকালে ওয়াশিংটন থেকে প্রকাশিত গ্লোবাল ইকোনোমিক প্রসপেক্ট জানুয়ারী ২০১৮ প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৮-১৯-২০ অর্থবছরে অর্থনৈতিক প্রৃবদ্ধি হবে ৬ দশমিক ৭ শতাংশ।

প্রায় এক দশক ৬ শতাংশের বৃত্তে আটকে থাকার পর গত ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৭ শতাংশের ঘর অতিক্রম করে। চূড়ান্ত হিসাবে প্রবৃদ্ধি হয় ৭.১১ শতাংশ। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত জানান, আগামী দিনগুলোতে প্রবৃদ্ধি আর ৭ শতাংশের নিচে নামবে না। পরিকল্পনামন্ত্রী বলেছেন, ২০১৯ সাল নাগাদ প্রবৃদ্ধি হবে ৮ শতাংশ।

চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি নিয়ে সরকারের আশার সঙ্গে ভিন্ন মত প্রকাশ করেছে বিশ্বব্যাংক। বুধবার সকালে বিশ্বব্যাংকের গ্লোবাল ইকোনমিক প্রসপেক্ট শিরোনামের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৬.৪ শতাংশ হবে। যদিও সরকার এবারের বাজেটে ৭.২৪ শতাংশ প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ঠিক করেছে।

বছরের শুরুতে এবং মধ্যভাগে সদস্য রাষ্ট্রগুলোর অর্থনীতির বিভিন্ন সূচক ও গতি প্রকৃতি নিয়ে গ্লোবাল ইকোনমিক প্রসপেক্ট শিরোনামে হালনাগাদ তথ্য প্রকাশ করে বিশ্বব্যাংক। প্রবৃদ্ধি কম হলেও অর্থনীতির স্থিতিশীল বলেও মন্তব্য করেছে সংস্থাটি।

বিশ্ব ব্যাংকের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ২০১৮-২০ অর্থবছরে প্রৃবদ্ধি ৬.৭ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে। জাতীয় চাহিদা পূরণ ও রপ্তানি শক্তিশালী হবে এই সময়ে। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, নিম্নহারের সুদ ও অবকাঠামোগত উন্নয়নের কারণে বিনিয়োগ বৃদ্ধি পাবে। মধ্যপ্রাচ্য থেকে বৈদেশিক মুদ্রা আসার সম্ভাবনা রয়েছে। বেসরকারি খাতেও বিনিয়োগ বাড়তে পারে।

এদিকে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) সাম্প্রতিক বার্ষিক প্রতিবেদন ‘এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট আউটলুক ২০১৭’-এ বলা হয়েছে, এ অর্থবছর বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি হবে ৬. ৯ শতাংশ।

এই বিভাগের আরো খবর

ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষায় ইলেকট্রনিক ডিভাইসসহ ৫ পরীক্ষার্থী আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক: অগ্রণী ব্যাংকের অফিসার (ক্যাশ) পদে নিয়োগ পরীক্ষায় ইলেকট্রনিক ডিভাইস  ব্যবহার করে মাধ্যমে পরীক্ষা দেওয়ার অপরাধে পাঁচ...

পুঁজিবাজারের শত্রুরাই এটিকে ফাটকা বাজার বলে: অর্থমন্ত্রী

সিলেট প্রতিনিধি: অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন, পুঁজিবাজারকে যারা ফাটকা বাজার মনে করেন, তারাই পুঁজিবাজারের শত্রু। । আজ শনিবার...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is