ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৮, ৬ মাঘ ১৪২৪, ২ জুমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
শিরোনামঃ
ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব, জুমার নামাজে লাখো মুসল্লি ৭৫ উর্ধ্ব প্রবীণ কারাবন্দিদের মুক্ত করার উদ্যোগ সংস্কার হয়নি চট্টগ্রাম মহানগরীর ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক সরকারের কারণেই ডিএনসিসি নির্বাচন ভণ্ডুল: বিএনপি এক জঙ্গি চট্টগ্রামের নাফিস তরুণদের অগ্রণী ভূমিকা পালনের আহ্বান স্পিকারের ফরিদপুরে কাভার্ডভ্যানের সাথে সংঘর্ষে মোটরসাইকেলের দু’আরোহী নিহত  ‘ফ্রিডারিকে’ তাণ্ডবে বিপর্যস্ত উত্তর ইউরোপ রংপুরে দগ্ধ আরো দু’জনের মৃত্যু  অস্থির সবজির বাজার, ঝাঁঝ কমেছে পেঁয়াজের স্প্যানিশ কোপা ডেল’রে ফুটবলে রিয়াল মাদ্রিদের জয়  খালেদা মামলার কার্যক্রম ব্যাহত করেছেন: হাছান মাহমুদ শ্রীলংকাকে রেকর্ড ব্যবধানে হারিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশ ঢাকা আঞ্চলিক গণিত উৎসব অনুষ্ঠিত উখিয়া ক্যাম্পে বন্য হাতির আক্রমণে রোহিঙ্গার মৃত্যু মজুরি বোর্ড গঠনকে ইতিবাচক দেখছেন পোশাক শ্রমিকরা টঙ্গীতে জোড়া খুনের ঘটনায় ৫ জন গ্রেফতার ডিসেম্বরের মধ্যে পদ্মা সেতু নির্মাণের চেষ্টা চলছে অসুস্থ আইভী ল্যাব এইডে ভর্তি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হলেন ১৫৫ জন

সমাজে হিজড়াদের সম্মানজনক পুনর্বাসনে প্রয়োজন রাজনৈতিক অঙ্গীকার

প্রকাশিত: ১০:২৮ , ১৪ জানুয়ারী ২০১৮ আপডেট: ০২:০২ , ১৪ জানুয়ারী ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : মানুষ হিসেবে হিজড়াদের অধিকার ফিরিয়ে দিতে সামাজিক সচেতনতা আগের চাইতে অনেক বাড়ছে। তবে সরকারের কোন সুনির্দিষ্ট কর্মসূচি না থাকায় সে প্রক্রিয়া খুব ধীর। সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, হিজড়াদের সম্মানজনক পুনর্বাসনের পাশাপাশি তাদের অধিকার রক্ষায় রাজনৈতিক অঙ্গীকার ছাড়া, সত্যিকার ভাবে তাদের সামাজিক মর্যাদা প্রতিষ্ঠা করা যাবে না।

হিজড়া মিতুর স্বপ্ন মেকআপ আর্টিস্ট হওয়া। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কাজ শিখছেন। নতুন প্রজন্মের এই হিজড়া মনে করেন বাজারে গিয়ে তালি বাজিয়ে টাকা তোলার চাইতে কাজ শিখে যোগ্যতা, দক্ষতা অর্জন করে করলে মাথা উঁচু করে বাঁচা যাবে। তবে মিতুকে এমন চিন্তা-মানিসকতায় আনতে, কাজ শেখাতে অনেক বন্ধুর পথ পেরিয়েছেন প্রশিক্ষক কেয়া শেখ।

ভারতের প্রয়াত চলচ্চিত্র নির্মাতা ঋতুপর্ণ ঘোষ-হিজড়াদের সাফল্যের প্রতীক। ঋতুপর্ণ উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন যে, নিজের সদিচ্ছা থাকলে প্রজনন প্রতিবন্ধীতা কারও কর্মক্ষমতা ও সৃষ্টিশীলতাকে দমাতে পারেনা। প্রয়োজন শুধু সুযোগের। সম্প্রতি ভারতেই হিজড়া গৌরি সওয়ন্তি বাচ্চা দত্তক নিয়ে মা হয়ে আলোচনায় উঠেছেন।

ঢাকার তেজগাঁয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে তরুন ব্লগার ওয়াশিকুর রহমান বাবুকে হত্যার পর দুই হত্যাকারীকে হাতে নাতে ধরেছিল লাবন্য হিজড়া। এর জেরে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগে ঢাকা ছাড়তে হয়েছে তকে। কিন্তু কাজের জন্য উদাহরণ হিসেবে বার বার উঠে আসে তার নাম।

সুন্দর অনেক চিন্তা শোনা গেলেও বাস্তবতা আজও যে নিষ্ঠুর তা সোহেল রানা নামে হিজড়ার জীবন গল্প বলে দেয়। বাংলাদেশ মেডিকেলের পরিচ্ছন্ন কর্মী হিসেবে ১১ বছর চাকরির পর বিনা কারনে চাকরি থেকে বহিস্কার করা হয়। আদালত থেকে পুনরায় নিয়োগের আদেশ পেলেও  ফিরে পাননি চাকরি।

হিজড়ারা মনে করেন, রাজনৈতিক অঙ্গীকার না থাকলে তাদের সম্মানজনক জীবনের জন্য কেউ কাজ করবে না। তাই রাজনৈতিক দলগুলোর নির্বাচনী ইশতেহারে তাদের রাষ্ট্রীয় অধিকার দেবার অঙ্গীকার দেখতে চান। চান সরকার ও বাইরের সব দল এক হয়ে তাদের জন্য কথা বলুক, কাজ করুক। তবেই পাল্টাবে সমাজ।

 

এই বিভাগের আরো খবর

লাইসেন্স ছাড়াই চলছে বিদেশী মুদ্রার অনানুষ্ঠানিক বাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক : ব্যাংক ও লাইসেন্স প্রাপ্ত মানি চেঞ্জার ছাড়াও রাজধানীর নানা এলাকায় চলছে লাইসেন্স ছাড়াই বিদেশী মুদ্রার অনানুষ্ঠানিক...

বৈদেশিক মুদ্রার বাজারে কৃত্রিম সংকটের আশংকা নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিদেশী মূদ্রার দাম নির্ধারণ হয় বাজারে মূদ্রার সরবরাহ ও চাহিদার উপর ভিত্তি করে। প্রতিটি অনুমোদিত ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান এই...

বেশি সাইবার নিরাপত্তা ঝুঁকিতে আর্থিক প্রতিষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো বেশি সাইবার নিরাপত্তা ঝুঁকিতে আছে। ব্যাংকিং খাতে তথ্য-প্রযুক্তির প্রসারের পাশাপাশি এ খাতে...

ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ৬৯ শতাংশ নারী সাইবার অপরাধের শিকার

নিজস্ব প্রতিবেদক:  গত চার বছরে সরকারি কর্র্তৃপক্ষের কাছে প্রায় সাতান্ন হাজার সাইবার অপরাধের অভিযোগ এসেছে। এসব অপরাধে ক্ষতিগ্রস্তরা...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is