ঢাকা, রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮, ৮ মাঘ ১৪২৪, ৪ জুমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
শিরোনামঃ
আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো দ্বিতীয় পর্বের আয়োজন আইন সংশোধন করে পাহাড়িদের জমির মালিকানা বুঝিয়ে দেয়া হবে- প্রধানমন্ত্রী ন্যাম ভবনে এমপি লুৎফুল্লাহর ছেলের ঝুলন্ত লাশ বদলে যাচ্ছে পদ্মা পাড়ের আর্থসামাজিক চিত্র এ’বছর হজে যেতে পারবেন ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন সংগঠন অনুযায়ী জঙ্গিদের আলাদা সেলে রাখা হচ্ছে- কারা মহাপরিদর্শক ঢাবি’র রেজিস্টার্ড গ্রাজুয়েট নির্বাচনে গণতান্ত্রিক ঐক্য পরিষদের জয় আইভীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি জামিন পেলেন আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদ ফাইনালে যেতে জিততেই হবে শ্রীলংকাকে ভৈরবে আমন ধানের বাম্পার ফলন দিল্লিতে বাজির গুদামে আগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৭ পোঁড়া বেগুনের অনেক গুণ সরকারি উন্নয়ন প্রকল্পে ব্যয়ের স্বচ্ছতা দেখবে দুদক উপকূলে কৃষি উন্নয়নে ব্লুগোল্ড প্রকল্প জাতিসংঘের দূতের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন মাশরাফি শাইনপুকুরে, সাকিব মোহামেডানে, তামিম কলাবাগানে নড়াইলে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ১২ জন গুলিবিদ্ধ  ট্রাম্পের ক্ষমতা গ্রহণের এক বছর যশোরে গুলিবিদ্ধ চার মৃতদেহ উদ্ধার

সমাজে হিজড়াদের সম্মানজনক পুনর্বাসনে প্রয়োজন রাজনৈতিক অঙ্গীকার

প্রকাশিত: ১০:২৮ , ১৪ জানুয়ারী ২০১৮ আপডেট: ০২:০২ , ১৪ জানুয়ারী ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : মানুষ হিসেবে হিজড়াদের অধিকার ফিরিয়ে দিতে সামাজিক সচেতনতা আগের চাইতে অনেক বাড়ছে। তবে সরকারের কোন সুনির্দিষ্ট কর্মসূচি না থাকায় সে প্রক্রিয়া খুব ধীর। সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, হিজড়াদের সম্মানজনক পুনর্বাসনের পাশাপাশি তাদের অধিকার রক্ষায় রাজনৈতিক অঙ্গীকার ছাড়া, সত্যিকার ভাবে তাদের সামাজিক মর্যাদা প্রতিষ্ঠা করা যাবে না।

হিজড়া মিতুর স্বপ্ন মেকআপ আর্টিস্ট হওয়া। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কাজ শিখছেন। নতুন প্রজন্মের এই হিজড়া মনে করেন বাজারে গিয়ে তালি বাজিয়ে টাকা তোলার চাইতে কাজ শিখে যোগ্যতা, দক্ষতা অর্জন করে করলে মাথা উঁচু করে বাঁচা যাবে। তবে মিতুকে এমন চিন্তা-মানিসকতায় আনতে, কাজ শেখাতে অনেক বন্ধুর পথ পেরিয়েছেন প্রশিক্ষক কেয়া শেখ।

ভারতের প্রয়াত চলচ্চিত্র নির্মাতা ঋতুপর্ণ ঘোষ-হিজড়াদের সাফল্যের প্রতীক। ঋতুপর্ণ উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন যে, নিজের সদিচ্ছা থাকলে প্রজনন প্রতিবন্ধীতা কারও কর্মক্ষমতা ও সৃষ্টিশীলতাকে দমাতে পারেনা। প্রয়োজন শুধু সুযোগের। সম্প্রতি ভারতেই হিজড়া গৌরি সওয়ন্তি বাচ্চা দত্তক নিয়ে মা হয়ে আলোচনায় উঠেছেন।

ঢাকার তেজগাঁয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে তরুন ব্লগার ওয়াশিকুর রহমান বাবুকে হত্যার পর দুই হত্যাকারীকে হাতে নাতে ধরেছিল লাবন্য হিজড়া। এর জেরে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগে ঢাকা ছাড়তে হয়েছে তকে। কিন্তু কাজের জন্য উদাহরণ হিসেবে বার বার উঠে আসে তার নাম।

সুন্দর অনেক চিন্তা শোনা গেলেও বাস্তবতা আজও যে নিষ্ঠুর তা সোহেল রানা নামে হিজড়ার জীবন গল্প বলে দেয়। বাংলাদেশ মেডিকেলের পরিচ্ছন্ন কর্মী হিসেবে ১১ বছর চাকরির পর বিনা কারনে চাকরি থেকে বহিস্কার করা হয়। আদালত থেকে পুনরায় নিয়োগের আদেশ পেলেও  ফিরে পাননি চাকরি।

হিজড়ারা মনে করেন, রাজনৈতিক অঙ্গীকার না থাকলে তাদের সম্মানজনক জীবনের জন্য কেউ কাজ করবে না। তাই রাজনৈতিক দলগুলোর নির্বাচনী ইশতেহারে তাদের রাষ্ট্রীয় অধিকার দেবার অঙ্গীকার দেখতে চান। চান সরকার ও বাইরের সব দল এক হয়ে তাদের জন্য কথা বলুক, কাজ করুক। তবেই পাল্টাবে সমাজ।

 

এই বিভাগের আরো খবর

লাইসেন্স ছাড়াই চলছে বিদেশী মুদ্রার অনানুষ্ঠানিক বাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক : ব্যাংক ও লাইসেন্স প্রাপ্ত মানি চেঞ্জার ছাড়াও রাজধানীর নানা এলাকায় চলছে লাইসেন্স ছাড়াই বিদেশী মুদ্রার অনানুষ্ঠানিক...

বৈদেশিক মুদ্রার বাজারে কৃত্রিম সংকটের আশংকা নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিদেশী মূদ্রার দাম নির্ধারণ হয় বাজারে মূদ্রার সরবরাহ ও চাহিদার উপর ভিত্তি করে। প্রতিটি অনুমোদিত ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান এই...

বেশি সাইবার নিরাপত্তা ঝুঁকিতে আর্থিক প্রতিষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো বেশি সাইবার নিরাপত্তা ঝুঁকিতে আছে। ব্যাংকিং খাতে তথ্য-প্রযুক্তির প্রসারের পাশাপাশি এ খাতে...

ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ৬৯ শতাংশ নারী সাইবার অপরাধের শিকার

নিজস্ব প্রতিবেদক:  গত চার বছরে সরকারি কর্র্তৃপক্ষের কাছে প্রায় সাতান্ন হাজার সাইবার অপরাধের অভিযোগ এসেছে। এসব অপরাধে ক্ষতিগ্রস্তরা...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is