ঢাকা, বুধবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৮, ১২ বৈশাখ ১৪২৫

2018-04-24

, ৮ শাবান ১৪৩৯

ডুবে গেলো চীনের উপকূলে দুর্ঘটনা কবলিত তেল ট্যাংকারটি

প্রকাশিত: ০৭:১৬ , ১৪ জানুয়ারী ২০১৮ আপডেট: ০৭:১৬ , ১৪ জানুয়ারী ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ অবশেষে সাগরে ডুবে গেলো চীনের উপকূলে দুর্ঘটনা কবলিত তেল ট্যাংকার 'সানচি’। একথা জানিয়েছে চীনের  গণমাধ্যম । জাহাজটিতে থাকা ৩২ জন নাবিকই এখন মৃত বলে জানিয়েছেন ইরানের কর্মকর্তারা। নাবিকদের ৩০ জন ইরানি এবং ২ জন বাংলাদেশি।

গত ৬ জানুয়ারি রাতে পানামার পতাকাবাহী সানচি জাহাজটি ইরান থেকে তেল বহন করে দক্ষিণ কোরিয়ার দিকে যাচ্ছিল। কিন্তু পূর্ব চীন সাগরের সাংহাই উপকূল থেকে ২৬৯ কিলোমিটার দূরে হং কংয়ের সিএফ ক্রিসটাল জাহাজের সঙ্গে সানচির সংঘর্ষ হলে এতে আগুন ধরে যায়।

ট্যাংকারটিতে এক লাখ ৩৬ হাজার টন তেল ছিল। চীনের সেন্ট্রাল টিভি’র খবরে বলা হয়েছে, সানচিতে দুপুরের দিকে ‘হঠাৎ করেই আগুনের মাত্রা বেড়ে গিয়ে’ এক পর্যায়ে সেটি ডুবে যায়।

এটি ডুবে যাওয়ার আগ পর্যন্ত চালানো উদ্ধার অভিযানে তিনটি লাশ উদ্ধার করা সম্ভব হয়। তার মধ্যে শনিবার উদ্ধারকর্মীরা সনাচির ডেক- এ একটি লাইফবোট থেকে দুইটি মৃতদেহ উদ্ধার করেন। এর আগে জ্বলন্ত জাহাজের কাছে সমুদ্রে ভাসমান অবস্থায় এক নাবিকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

কিন্তু এখন এটি ডুবে যাওয়ার ফলে নিখোঁজ ২৯ নাবিকের বেঁচে থাকার আর আশা নেই বলে জানিয়েছেন ইরানি কমান্ডো ইউনিটের মুখপাত্র।
 

এই বিভাগের আরো খবর

কানাডায় পথচারীদের ওপর গাড়ি হামলাকারীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কানাডার টরেন্টোতে পথচারীদের ওপর গাড়ি হামলায় গ্রেফতার চালক অ্যালেক মিনাসিয়ানের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ গঠন করা...

নিরস্ত্রীকরণ চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র বের হলে পরিণতি খারাপ হবে: ইরান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: অর্থনৈতিক সহযোগিতার বিনিময়ে পারমাণবিক অস্ত্র তৈরি থেকে বিরত থাকার শর্তে বিশ্বের ছয়টি শক্তিধর রাষ্ট্রের সঙ্গে হওয়া...

ভারতে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে ৩৪ মাওবাদী নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের মহারাষ্ট্রে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে ৩৪ মাওবাদী বিদ্রোহী নিহত হয়েছে। রয়টার্সের বরাত দিয়ে মহারাষ্ট্র পুলিশের...

উন্নত বিশ্বের কাতারে যেতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের সহযোগিতা প্রয়োজন: অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : উন্নয়নশীল দেশের তালিকাভুক্তির পর বাংলাদেশের উন্নয়নে বিশ্ব স¤প্রদায়ের সহযোগিতা চেয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is