ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ মে ২০১৮, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫

2018-05-24

, ৯ রমজান ১৪৩৯

ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ

প্রকাশিত: ১০:০৯ , ২৩ জানুয়ারী ২০১৮ আপডেট: ১০:৪৮ , ২৩ জানুয়ারী ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : চিকিৎসার নামে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালের বিরুদ্ধে। রোগী ভর্তির সপ্তাহ-দশদিনের মাথায় মোটা অংঙ্কের বিল বানিয়ে জোর করে পাঠানো হচ্ছে অন্য হাসপাতালে। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, সেবা নয় বাণিজ্যের কৌশল নিয়েছে হাসপাতালটির মতিঝিল শাখা। তবে, অভিযোগ অস্বীকার করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছেন কেবল স্পর্শকাতর রোগীদেরই অন্য হাসপাতালে পাঠায় তারা।

জান্নাতুন নাহার। গেল ষোল জানুয়ারি উরুর হাড় ভেঙ্গে গেলে ভর্তি হন রাজধানীর মতিঝিলের ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল। প্রায় এক সপ্তাহ নানা পরীক্ষা-নীরিক্ষা করে হাসপাতালের চিকিৎসক। দৈনিক আসে মোটা অঙ্কের হিসাব। হঠাৎই রোগীর অভিভাবককে জানানো হয় এ হাসপাতলে তার চিকিৎসা সম্ভব নয়।

ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশনের এই প্রতিষ্ঠানটি ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়েছে রাজধানীর শাহজাহানপুর এলাকায়। সারিবদ্ধভাবে কয়েকটি ভবনে চলছে এর চিকিৎসা কার্যক্রম। সকাল সন্ধ্যা রোগীতে ঠাঁসা হাসপাতাল। তবে, যতোটা সেবা দেয়া হচ্ছে তার চেয়ে বেশি প্রতারণার অভিযোগ রোগীর অভিভাবকের।

তবে, হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. হারুন অর রশীদ অভিযোগ অস্বীকার করে বললেন, চিকিৎসা সেবার অবমূল্যায়ন করেনি ইসলামী ব্যাংক।

এদিকে, বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার নামে যে ব্যয়ের ফর্দ অভিযোগকারী রোগীর অভিভাবককের হাতে ধরিয়ে দেয়া হয়েছে তার আদৌ কোনো প্রয়োজন ছিলনা কী না খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

 

এই বিভাগের আরো খবর

পটুয়াখালীতে স্লুইসগেট ভেঙ্গে হুমকির মুখে মানুষের জীবন-জীবিকা

পটুয়াখালী প্রতিনিধি: পটুয়াখালী সদর উপজেলার কমলাপুরে স্লুইসগেট ভেঙ্গে যাওয়ায় হুমকির মুখে পড়েছে প্রায় ৩০ হাজার মানুষের জীবন-জীবিকা।...

স্বাভাবিক হচ্ছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের যানজট পরিস্থিতি

ন্যাশনাল ডেস্ক : টানা কয়েকদিনের অসহনীয় যানজটের পর স্বাভাবিক হচ্ছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পরিস্থিতি। বিকল্প পথে যান চলাচলের কারণে...

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে তীব্র যানজট, চরম ভোগান্তি যাত্রীদের

ন্যাশনাল ডেস্ক : ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক যেন থমকে আছে। কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রামের মিরসরাই পর্যন্ত যানবাহনের সারি। হাইওয়ে পুলিশ বলছে, ফেনীর...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is