ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ২৯ কার্তিক ১৪২৫

2018-11-13

, ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

মেয়াদ ফুরালেও চলছে ১৩ হাজার সিএনজি অটোরিকশা

প্রকাশিত: ১০:৩৮ , ২৮ জানুয়ারী ২০১৮ আপডেট: ১০:৩৯ , ২৮ জানুয়ারী ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : মেয়াদোত্তীর্ণ ও ঝুঁকিপূর্ণ প্রায় ১৩ হাজার সিএনজি অটো রিকশা ঢাকা ও চট্টগ্রামের রাস্তায় চালু রাখার তৎপরতা চলছে। নিয়ম অনুযায়ী এগুলো যাত্রী পরিবহনের অযোগ্য ঘোষণা না করে কার্যকরিতা পরীক্ষার জন্য বুয়েটের বিশেষজ্ঞদের দায়িত্ব দিয়েছে রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি- বিআরটিএ। আর এগুলোর পরিবর্তে নতুন করে সমান সংখ্যক সিএনজি অটোরিকশা আমদানির অনুমতি চায় মালিকরা।

ঢাকা এবং চট্টগ্রামের রাস্তায় চালু ১৩ হাজার সিএনজি আটোরিকশার মেয়াদ শেষ হয়েছে গত ডিসেম্বর মাসে। নিয়ম অনুযায়ী এগুলোর যাত্রী পরিবহন ছাড়পত্র বাতিল না করে আরো তিন মাস চলাচলের অনুমতি দিয়েছে সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ বিআরটিএ।

১৫ বছর যাত্রী পরিবহনের পর এসব সিএনজি আটোরিক্সা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। যে কোন সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশংকা খোদ চালকদের।

মালিকদের একাংশ এসব অটোরিক্সার মেয়াদ বাড়ানোর তদবির করছে। আর অন্যরা সমান সংখ্যক নতুন অটোরিক্সা আমদানির অনুমতি চায়।

তবে এরইমধ্যে এসব সিএনজি অটোরিকশায় আরো তিনমাস যাত্রী পরিবহনের অনুমতি দিয়েছে বিআরটিএ। মেয়াদ আরো বাড়ানো যাবে কিনা তা পরীক্ষা করে দেখতে বুয়েটের বিশেষজ্ঞদের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। কিন্তু এসব অটোরিকশার ইঞ্জিন তৈরি আরো ৮ বছর আগেই বন্ধ করে দিয়েছে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান।

বিআরটিএ বলছে, বুয়েটের বিশেষজ্ঞ দলের প্রতিবেদন পাবার পরই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেবেন তারা।

ঢাকার রাস্তায় চালু অন্য গণপরিবহনের তুলনায় মেয়াদ উত্তীর্ণ অটোরিক্সার ফিটনেস অনেক ভালো বলেও দাবী করেন তিনি।

 

এই বিভাগের আরো খবর

কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটে চারঘণ্টা পর ফেরি চলাচল শুরু

মাদারীপুর প্রতিনিধি: ঘন কুয়াশার কারণে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটে চার ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে। শনিবার- ৪ নভেম্বর দিবাগত রাত...

ময়লা ফেলার ট্রাকে চড়ে যাত্রা !

নিজস্ব প্রতিবেদক : শ্রমিকেদের ধর্মঘটে রোববার রাজধানীতে গণপরিবহণের সংকট দেখা দেয়ায় নিরুপায় যাত্রীদের সিটি কর্পোারেশনের ময়লা ফেলার ট্রাকে...

পরিবহন ধর্মঘটে ভোগান্তি চরমে

নিজস্ব প্রতিবেদক : সড়ক পরিবহন আইন সংস্কারসহ ৮ দফা দাবিতে সকাল ৬টা থেকে সারাদেশে চলছে ৪৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘট। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is