ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১০ ফাল্গুন ১৪২৪

2018-02-21

, ৫ জমাদিউল সানি ১৪৩৯

ঢাকা টেস্টে শ্রীলঙ্কার কাছে লজ্জার হার বাংলাদেশের

প্রকাশিত: ১০:১৩ , ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ আপডেট: ০৭:৪৭ , ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ঢাকা টেস্টে ব্যাটসম্যানদের বাজে ব্যাটিংয়ের মাসুল গুণলো বাংলাদেশ। মিরপুরে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে মুশফিক, তামিম, মাহমুদুল্লাহদের দায়িত্বহীন ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশকে ২’শ ১৫ রানে পরাজয়ের লজ্জায় ডুবিয়েছে শ্রীলঙ্কা। ফলে মাত্র আড়াই দিনেই শেষ হলো ঢাকা টেস্ট। আকিলা ধনাঞ্জয়ার ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে স্বাগতিকরা অলআউট হয় মাত্র ১’শ ২৩ রানে। দারুণ ব্যাটিং করে ম্যাচ ও সিরিজ সেরা হয়েছেন রোশেন সিলভা।

মিরপুর টেস্টে জিততে হলে বাংলাদেশকে অতিক্রম করতে হতো কঠিন পথ। স্পিনিং উইকেটে চতুর্থ ইনিংসে জয়ের জন্য স্বাগতিক বাংলাদেশকে ৩’শ ৩৯ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় শ্রীলঙ্কা। এই উইকেটে এত রান তোলা বিশ্বের যে কোন দলের জন্যই কঠিন ছিলো। যদিও স্বাগতিক বাংলাদেশের হাতে সময় ছিলো প্রায় আড়াই দিন।

টেস্ট ম্যাচে ব্যাটিং করার জন্য যে ধরণের মানসিকতা দরকার হয় তার ছিঁটেফোঁটাও এদিন দেখা যায়নি স্বাগতিক দলের ব্যাটসম্যানদের মাঝে। লঙ্কানদের ঘায়েল করতে গিয়ে উল্টো নিজেরাই নাস্তানাবুদ হয়েছেন। তামিম ইকবালকে দিয়ে উইকেট বিলিয়ে আসার লজ্জায় ডোবা শুরু। পাহাড় সমান রান তাড়া করতে গিয়ে বাংলাদেশ কোন ফরম্যাটে ব্যাট চালাবে সেই পরিকল্পনা ছিলো কি না, তা নিয়েও রয়েছে সংশয়। মধ্যাহ্ন বিরতির আগেই দলকে খাদের কিনারে রেখে আসেন ইমরুল কায়েস।

সদ্য অধিনায়কত্ব হারানো মুশফিকুর রহিম ও প্রথম টেস্টের সেঞ্চুরিয়ান মুমিনুলও ব্যর্থতার বৃত্ত থেকে বেরুতে পারেননি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারা দীর্ঘদিন ধরে খেললেও, অভিজ্ঞতার প্রতিফলন দেখাতে পারেননি ঢাকা টেস্টে ব্যাটিংয়ের সময়। প্রত্যেকেই খেলতে থাকেন ঝুঁকিপূর্ণ ও দায়িত্বহীন বাজে শট।

আসাযাওয়ার মিছিলে অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ যোগ দিলে পরাজয় নিশ্চিত হয়ে পড়ে স্বাগতিকদের। টেস্ট ক্রিকেটে ক্রমেই বাংলাদেশ দলের বোঝা হয়ে ওঠা সাব্বিরও পারেননি সামর্থ্যরে প্রমাণ দিতে। ২৩ রানে শেষ ৬ ব্যাটসম্যান অসহায় আত্মসমর্পণ করেন লঙ্কান বোলারদের কাছে। যেই উইকেটে লঙ্কান তরুণ ক্রিকেটাররাও রান পেয়েছেন, সেখানে বাংলাদেশের অভিজ্ঞরাও নিজেদের শ্রীহীন ব্যাটিংয়ের খেসারত দিয়েছেন উইকেট বিলিয়ে। তাতে বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংস গুটিয়ে যায় মাত্র ১’শ ২৩ রানে। সাথে লাল সবুজের দলটির নামের পাশে যোগ হলো ২’শ ১৫ রানের বিব্রতকর পরাজয়ের লজ্জা।

এদিকে, সাদা পোশাকের অভিষেকেই রঙিন পারফরম্যান্স উপহার দিয়ে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন ধসিয়ে দিয়েছেন আকিলা ধনাঞ্জয়া। দ্বিতীয় ইনিংসে শিকার করেছেন ৫ উইকেট। প্রথম ইনিংসে উইকেটশূণ্য থাকা রঙ্গনা হেরাথ ৪ উইকেট তুলে নেন। ওয়াসিম আকরামকে পেছনে ফেলে বাঁ হাতি বোলার হিসেবে টেস্টে এখন সবচেয়ে বেশি উইকেটের মালিক রঙ্গনা হেরাথ।

এর আগে দ্বিতীয় ইনিংসে শ্রীলঙ্কা অলআউট হয় ২’শ ২৬ রানে। প্রথম ইনিংসে সফরকারীদের ২’শ ২২ রানের জবাবে স্বাগতিক বাংলাদেশ অলআউট হয় ১’শ ১০ রানে।

 

এই বিভাগের আরো খবর

দল থেকে বাদ পড়ে আত্মহত্যা পাকিস্তানি ক্রিকেটারের!

ডেস্ক প্রতিবেদনঃ করাচির অনূর্ধ্ব-১৯ দল থেকে বাদ পড়ে আত্মহত্যা করেছেন পাকিস্তানের তরুণ ক্রিকেটার মোহাম্মদ জারাইব।সোমবার গলায় ফাঁস দিয়ে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is