ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ৮ ফাল্গুন ১৪২৪

2018-02-19

, ৩ জমাদিউল সানি ১৪৩৯

খালেদাকে অন্য কোনো মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়নি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত: ০৭:১৮ , ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ আপডেট: ০৭:১৯ , ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের পর বন্দি খালেদা জিয়াকে নাশকতার বিভিন্ন মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে বলে যে খবর এসেছে, তা ঠিক নয় বলে জানিয়াছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল

মঙ্গলবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেছেন, “খালেদা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হয়েছেন, সেই মামলায় তিনি কারাবন্দি আছেন। এছাড়া কোনো মামলায় তাকে শোন অ্যারেস্ট কিংবা এ ধরনের কোনো কিছু আমলে আনা হয়নি।”

নাশকতার মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসনকে গ্রেপ্তার দেখানোর যে খবর ছড়িয়েছে, তা ভুল বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, “তার নামে সে সমস্ত ওয়ারেন্ট রয়েছে সেগুলোতে তাকে আটক দেখানো হয়নি। এটা একটা ভুল ইনফরমেশন ছড়িয়েছে। তিনি দণ্ডপ্রাপ্ত যেটাতে, সেটাতেই তিনি কারাবরণ করছেন।”

জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি আদালত ৫ বছর কারাদণ্ডের রায় দেওয়ার পর খালেদা এখন ঢাকার পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি।

এর মধ্যে বিভিন্ন সংবাদপত্রে খবর এসেছে, নাশকতার তিনটি মামলায় খালেদাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

এদিকে আরও দুটি দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করতে কারাগারে পরোয়ানা (প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট) গেছে।

এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “সেগুলোতে তিনি যথাসময়ে কোর্টে যাবেন, এখানে আমাদের কিছু করার নেই। ওই দুটি মামলায় তিনি জামিনেও আছেন।”

তিনি বলেন, “কোনোটাই (অ্যারেস্ট) দেখানো হবে না, যদি উনি সময়মতো কোর্টে হাজির হন। এখানে তো অন্য কিছু নেই। উনি কোর্টে হাজির হবেন, কোর্ট ডিসিশন নেবে। কোর্ট কী করবেন, তাকে অ্যারেস্ট দেখাবেন, না কী করবেন, সেটা তো আমাদের কিছু করার নেই।”

সাজাপ্রাপ্ত খালেদা বর্তমানে কারাগারে থাকলে কারা কর্তৃপক্ষই মামলার নির্ধারিত দিনে তাকে আদালতে নিয়ে যাবে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

সরকার খালেদা জিয়ার কারাবাসকে দীর্ঘায়িত করতে চাইছে বলে বিএনপির অভিযোগের জবাবে তিনি বলেন, “সরকার কোনো বিষয়েই কোনো রকম উৎসাহ দেখাচ্ছে না, আইনি প্রক্রিয়ায় যেটুকু চলছে সেভাবেই চলছে।

তিনি বলেন, “কোর্ট থেকে যেসব সিদ্ধান্ত আসছে আমরা সেগুলো বাস্তবায়ন করছি। এখানে কোনো রাজনৈতিক প্রভাব বা রাজনৈতিক অভিলাষ নেই। কোর্টের সিদ্ধান্তের বাইরে কোনো কিছু হচ্ছে না।”

খালেদাকে পরিত্যক্ত কারাগারে রাখায় বিএনপির সমালোচনার প্রতিক্রিয়ায় কামাল বলেন, “তার সুবিধার জন্যই তাকে এই কারাগারে রাখা হয়েছে। দীর্ঘ পথে কাশিমপুরে নিয়ে গেলে, অনেক ধরনের অসুবিধা হত।

তিনি বলেন, “তার একটা সামাজিক ভ্যালুও রয়েছে, তিনি একাধিকবার দেশের প্রাইম মিনিস্টার ছিলেন। এ সমস্ত চিন্তাভাবনা করেই তাকে একটা সুন্দর জায়গায় অবস্থানের জন্যই ঢাকায় এই কারাগোরে রাখা হয়েছে।”

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, “এখানে সব ফ্যাসিলিটি আছে, সব ফ্যাসিলিটি তাকে দেওয়া হচ্ছে। তিনি যে ফ্যাসিলিটি পাবেন সব তাকে দিচ্ছি। কাজেই কারাগার নিয়ে বিভ্রান্তির কোনো সুযোগ নেই। জেলকোড অনুযায়ী ডিভিশনে যেসব সুবিধা পাওয়ার কথা সবই তিনি পাচ্ছেন।”

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

খালেদা প্রার্থীতার যোগ্যতা হারালে সরকারের কিছু করার নেই

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি: আদালতের নির্দেশে খালেদা জিয়া নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার যোগ্যতা হারালে সেখানে সরকারের করার কিছু নেই বলে জানিয়েছেন...

গণ-অভ্যুত্থানের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে গণ-অভ্যুত্থানের মাধ্যমে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is