ঢাকা, শনিবার, ২৫ মে ২০১৯, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

2019-05-24

, ১৯ রমজান ১৪৪০

অনেক বাঁধা অতিক্রম করে এগিয়ে চলেছে নারীরা: স্পিকার

প্রকাশিত: ০১:১৮ , ০৮ মার্চ ২০১৮ আপডেট: ০৭:৪৫ , ০৮ মার্চ ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: অনেক বাধা পেরিয়েই নারীরা এগিয়ে চলেছেন আর এই অগ্রযাত্রাকে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে, বৈশাখী টেলিভিশনের নারী দিবস উদযাপনের অনুষ্ঠানে একথা বলেন বিশিষ্টজনেরা। সকালে বৈশাখী টেলিভিশনের কার্যালয়ে কেক কেটে দিবসের অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন রিন শারমিন চৌধুরী। এ সময় বৈশাখী পরিবারের পক্ষ থেকে স্পিকার শিরিন শারমিন চৌধুরীসহ পাঁচজন গুনী নারীকে সম্মাননা দেয়া হয়। আরো উপস্থিত ছিলেন বৈশাখী টেলিভিশনের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক টিপু আলমসহ অন্যান্যরা। স্বাগত বক্তব্যে স্পিকার বলেন, অনেক বাঁধা অতিক্রম করে নারীরা আজ এগিয়ে চলেছে। সামনের আরো দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে হবে।
আন্তর্জাতিক নারী দিবস উদযাপনে প্রতিবছরের মতো এবারও বর্ণাঢ্য আয়োজন করেছে বৈশাখী টেলিভিশন। কৃতি পাঁচ নারীকে সম্মাননা প্রদানের পাশাপাশি রয়েছে দিনভর নানা অনুষ্ঠানমালা। বৃহস্পতিবার সকালে বৈশাখী টেলিভিশন কার্যালয়ে আড়ম্বরপূর্ণ এই আয়োজনের উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী। নিজ নিজ ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের জন্য এ সময় বৈশাখী পরিবারের পক্ষ থেকে মানবাধিকার নেত্রী সুলতানা কামাল, রাজনীতিবিদ ডাক্তার দীপু মনি, কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন, তথ্য প্রতিমন্ত্রী ও সংস্কৃতিজন তারানা হালিম এবং একাত্তরের কণ্ঠসৈনিক শাহীন সামাদকে সম্মাননা স্মারক দেয়া হয়।
অনুষ্ঠানে বৈখাখী টেলিভিশনকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে স্পিকার বলেন, অনেক বাঁধা অতিক্রম করে এগিয়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশের নারীরা। স্বমহিমায় হচ্ছেন উদ্ভাসিত। তবে এখনো পথ অতিক্রম করা বাকী রয়েছে।
সম্মাননায় দায়িত্ব আরো বেড়ে যাওয়ার কথা উল্লেখ করে সুলতানা কামাল জানান, নারীর অধিকার রক্ষায় সবাইকেই আরো সচেতন ভূমিকা রাখতে হবে। এসময় ড. দীপু মনি, নারীকে যথাযোগ্য মর্যাদায় আসীন করতে বঙ্গবন্ধু ও তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূমিকার করা স্মরণ করেন। আর সম্মাননার প্রতিক্রিয়ায়  শাহীন সামাদ বলেন, এতে কাজের দায়িত্ব আরো বেড়ে যায়।
স্বাগত বক্তব্যে বৈশাখী টেলিভিশনের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক টিপু আলম বলেন, নারীর অগ্রযাত্রার পথে সবসময় পাশে আছে বৈশাখী পরিবার।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। তিনি বলেন, ১৯৭১ সালেই নারীকে যথাযোগ্য সম্মান জানানোর কাজটি শুরু করেছিলেন বঙ্গবন্ধু।
আয়োজনের অন্যতম সহযোগি প্রতিষ্ঠান অ্যাননটেক্স এর পরিচালক আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, কর্মক্ষেত্রসহ সর্বক্ষেত্রে নারীর নিরাপদ পরিবেশ নিশ্চিতে সবাইকে এগিয়ে আসা উচিত।
দিনব্যাপী এই আয়োজনে রযেছে নানা অনুষ্ঠানে সাজানো বৈচিত্র্যময় পরিবেশনা।

এই বিভাগের আরো খবর

অদূরদর্শীতার কারণেই কৃষিখাত ধ্বংসের মুখে: মির্জা ফখরুল 

নিজস্ব প্রতিবেদক: সরকারের দুর্নীতি আর অদূরদর্শীতার কারণেই দেশের কৃষিখাত আজ ধ্বংসের মুখে পড়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা...

হালদায় নমুনা ডিম ছেড়েছে মা মাছ

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: এশিয়ার একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদীতে মা মাছ নমুনা ডিম ছেড়েছে। শনিবার-২৫ মে ভোর থেকে ডিম...

শাহজালালে বিমানে উঠার সময় রোহিঙ্গা দুই নারী গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান উঠার সময় ধরা পড়লেন দুই রোহিঙ্গা নারী। শনিবার ভোরের দিকে গ্রেফতার হওয়া...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is