ঢাকা, সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯, ১১ চৈত্র ১৪২৫

2019-03-25

, ১৮ রজব ১৪৪০

আসামের ৫০ লাখ মানুষ হারাতে পারে নাগরিকত্ব 

প্রকাশিত: ০৮:১৫ , ২৯ মার্চ ২০১৮ আপডেট: ০৮:১৫ , ২৯ মার্চ ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় আসাম রাজ্যের নাগরিকত্ব হারাতে পারে অন্তত ৫০ লাখ মানুষ। জাতীয় নাগরিকত্ব নিবন্ধন দপ্তর এনআরসি জানিয়েছে, দ্বিতীয় দফা তথ্য হালনাগাদ শুরু হবার পর নিজেদের ভারতীয় প্রমাণে ব্যর্থ হয়েছেন তারা। তাদের পূর্বপুরুষরা আসামের নাগরিক ছিল এমন কোনো তথ্যও নিশ্চিত করতে পারেননি তাঁরা। এদিকে, অনিবন্ধিত এসব নাগরিকের দাবি তাদের অবৈধ অনুপ্রবেশকারী আখ্যা দিয়ে আসাম ছাড়তে বাধ্য করা হচ্ছে। আসাম সরকারের এই পদক্ষেপের নিন্দা জানিয়েছে মানবাধিকার কর্মীরাও।

বাংলাদেশের পূর্ব সীমান্তে ভারতের আসাম রাজ্যে নাগরিকত্ব প্রমাণে দ্বিতীয় দফায় তথ্য হালনাগাদ শুরু হয়েছে। ফলে ন্যাশনাল রেজিস্ট্রি অব সিটিজেন্স-এনআরসি'র এই নতুন তালিকায় নাগরিকত্ব হারানোর শঙ্কায় রয়েছে অন্তত ৫০ লাখ মানুষ। বিতর্কিত এই তালিকা নিয়ে আবারও উত্তাল আসামসহ ভারতের বিভিন্ন রাজ্য। 

নাগরিকত্ব হারানোর ঝুঁকির মধ্যে থাকা অনেকেরই দাবি, প্রয়োজনীয় দলিল হারিয়ে ফেলেছেন তারা।  নাগরিকত্ব নিবন্ধন দপ্তর বলছে নাগরিকত্ব সনদ পেতে হলে পূর্বপুরুষরা আসামের নাগরিক ছিল এমন তথ্যও নিশ্চিত করতে হবে। এদিকে, আগামী ৩০ জুনের মধ্যে নাগরিকদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশের সময় বেঁধে দিয়েছে আদালত।

এদিকে, অনিবন্ধিত কাউকে আসামের নাগরিক বলে গণ্য করা হবেনা বলে জানিয়েছেন রাজ্যটির অর্থ ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমান্ত বিশ্ব শর্মা। তবে বাংলাদেশি হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের আসামে থাকতে বাঁধা নেই বলেও জানান তিনি। বিশ্ব শর্মার এমন মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছে মানবাধিকার কর্মীরা। তারা বলছে, সরকারের এই পদক্ষেপে  বৈধ দলিল থাকলেও ঝুঁকির মুখে পড়বে আসামে বসবাসকারী মুসলিম নাগরিকরা।
 
২০১৪ সালে বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর নাগরিক তালিকা তৈরির সিদ্ধান্ত নেয় আসাম সরকার। এরআগে গত ৩১ ডিসেম্বর নাগরিক নিবন্ধন তালিকার প্রথম খসড়া প্রকাশ করা হয়। তালিকায় আসামের তিন কোটি ২৯ লাখ বাসিন্দার মধ্য থেকে প্রথম পর্যায়ে প্রায় দুই কোটি বাসিন্দাকে বৈধ ভারতীয় নাগরিক হিসেবে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। 

এই বিভাগের আরো খবর

আইএসের শেষ ঘাঁটিও হাতছাড়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস তাদের নিয়ন্ত্রিত শেষ ঘাঁটি বাঘুজের দখল হারিয়েছে বলে ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন সমর্থনপুষ্ট সিরিয়ার...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is