ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৮, ১৩ বৈশাখ ১৪২৫

2018-04-25

, ৯ শাবান ১৪৩৯

যে গ্রহে রাত নেই

প্রকাশিত: ০৩:১২ , ১২ এপ্রিল ২০১৮ আপডেট: ০৩:১২ , ১২ এপ্রিল ২০১৮

ডেস্ক প্রতিবেদন: এ গ্রহটিকে বলা হয় ‘ট্যাটুইন গ্রহ’। কিন্তু তার সঙ্গে ‘ট্যাটু’ বা উল্কির কোনো সম্পর্ক নেই। আসলে ‘স্টার ওয়রস’ ছবির নায়ক লিউক স্কাইওয়াকের বাড়ি ছিল ট্যাটুইনে। সেখান থেকেই এই নামকরণ। এ গ্রহের আকাশে দুই সূর্য। একই সঙ্গে দু’দুটি সূর্যকে নিয়মিত প্রদক্ষিণ করে চলে এই গ্রহটি। এর নাম ‘কেপলার-১৬৪৭-বি’।

বছর ছয়েক আগে আশ্চর্য এই ভিন গ্রহটির সন্ধান পেয়েছেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। এই ভিন গ্রহটি রয়েছে পৃথিবী থেকে ৩ হাজার ৭০০ আলোকবর্ষ দূরে। এ গ্রহটি তার দুটি সূর্যকে প্রদক্ষিণ করতে সময় নেয় ১ হাজার ১০৭ দিন। মানে, তিন বছরের একটু বেশি।

সূর্যকে প্রদক্ষিণ করতে যে সময় নেয় পৃথিবী, আবিষ্কৃত এ ভিনগ্রহটি তার দুটি সূর্যকে প্রদক্ষিণ করতে সময় নেয় তার চেয়ে তিন গুণ বেশি। এই ভিন গ্রহটি যে দুটি সূর্যকে প্রদক্ষিণ করে তার একটি আমাদের সূর্যের চেয়ে সামান্য বড়। অন্যটি সামান্য ছোট। এই ভিন গ্রহটির বয়স ৪৪০ কোটি বছর। মানে, আমাদের পৃথিবীরই প্রায় সমবয়সী।

আমেরিকার লেহিগ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশিষ্ট জ্যোতির্বিজ্ঞানী জোশুয়া পেপার এই ভিন গ্রহটির অন্যতম আবিষ্কারক। তবে এ আবিষ্কারে রয়েছেন চার মহাদেশের ১০ দেশের মোট ৪০ বিজ্ঞানী।

সান দিয়েগোয় আমেরিকান অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সোসাইটির বৈঠকে এ আবিষ্কারের কথা ঘোষণা করার পর সংশ্লিষ্ট গবেষণাপত্রটি বিজ্ঞান জার্নাল ‘অ্যাস্ট্রোফিজিক্যাল জার্নাল লেটার্স’-এ ছাপা হয়েছে। এ আবিষ্কার সম্পর্কে জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা বলেছেন, এভিন গ্রহটির ভর ও ব্যাসার্ধ একেবারে আমাদের বৃহস্পতির মতোই।

এবং আকারে বৃহস্পতির মতোই বড়। আর তার পুরোটাই গ্যাসে ভরা। পৃথিবীর মতো পাথুরে গ্রহ এটা নয়। দুটি সূর্যকে প্রদক্ষিণ করা ভিন গ্রহগুলোকে বলা হয় ‘সারকাম-বাইনারি প্ল্যানেট’। তবে এই গ্রহটি রয়েছে তার সূর্যের চেয়ে অনেকটা দূরে। যাকে বলা হয় ‘হ্যাবিটেব্ল জোন’।

যদিও এই গ্রহটিতে প্রাণের সম্ভাবনা কম, সেটি গ্যাসে ভরা বলে। তবে এ গ্রহের যদি বড় কোনো চাঁদ থাকে, যদি তার সন্ধান মেলে কোনোদিন, তাহলে সেই চাঁদে প্রাণের সম্ভাবনা থাকতে পারে। দুই সূর্যকে প্রদক্ষিণ করে বলে এই গ্রহে সূর্যাস্ত হয় না।

এই বিভাগের আরো খবর

লবণের ইতিকথা

ডেস্ক প্রতিবেদন: বিশ শতকের শুরু পর্যন্ত এক পাউন্ড লবণের বার মুদ্রা হিসেবে ব্যবহৃত হতো বর্তমান ইথিওপিয়াতে। মধ্যযুগে বিশ্বের অনেক অঞ্চলে...

জেলে বদলে গেছেন রাম রহিম?

ডেস্ক প্রতিবেদন: ভারতের পাঞ্জাবের ডেরা সাচ্চা সওদা’র প্রাক্তন প্রধান গুরমিত রাম রহিম সিংহ ইনসান এবং তাঁর পালিত কন্যা হানিপ্রীত। দুই...

মাইন্ড ম্যাপিংয়ে বাড়ে সৃজনশীলতা 

ডেস্ক প্রতিবেদন: আমাদের মস্তিষ্কের ব্যবহার, চিন্তার চিত্রায়ন, মনে ছবি আঁকা বা মাইন্ড ম্যাপিংয়ের মাধ্যমে সৃজনশীলতা বৃদ্ধি করা যায়। শব্দ,...

যে গ্রহে রাত নেই

ডেস্ক প্রতিবেদন: এ গ্রহটিকে বলা হয় ‘ট্যাটুইন গ্রহ’। কিন্তু তার সঙ্গে ‘ট্যাটু’ বা উল্কির কোনো সম্পর্ক নেই। আসলে ‘স্টার ওয়রস’ ছবির...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is