ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫

2018-11-15

, ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

কোটা সংস্কার আন্দোলনের তিন নেতাকে  জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ

প্রকাশিত: ০৩:৩৩ , ১৬ এপ্রিল ২০১৮ আপডেট: ০৩:৩৩ , ১৬ এপ্রিল ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) বিরুদ্ধে কোটা সংস্কার আন্দোলনের তিন ছাত্রনেতাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। তবে পুলিশ বলছে, তাদের তুলে আনা হয়নি, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়েছে। এরপর তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

সোমবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে সংবাদ সম্মেলন শেষ করে ফেরার পথে চানখাঁরপুল এলাকা থেকে তাদের রিকশা থামিয়ে মাইক্রোবাসে তুলে নেয়া হয় বলে জানিয়েছেন সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদেরকেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক হাসান আল মামুন।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের ওই তিন নেতা হলেন- ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নুর,যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক আহমদ ও যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান।

হাসান আল মামুন বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলনে সম্পৃক্ত কেন্দ্রীয় কমিটির তিন নেতা সংবাদ সম্মেলন শেষ করে ফেরার পথে চানখারপুল এলাকা থেকে গোয়েন্দা পুলিশ তাদের তুলে নিয়ে যায়।

এর আগে বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে আগামী দুদিনের মধ্যে কোটা সংস্কার আন্দোলনে সম্পৃক্তদের নামে দেয়া মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়। দু’দিনের মধ্যে মামলা প্রত্যাহার না হলে ফের আন্দোলনে নামার ঘোষণা দেন ওই তিন নেতা। এরপরই পুলিশ তাদের তুলে নেয় বলে ঢাবি ক্যাম্পাস এলাকায় গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে।

এ বিষয়ে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার দেবদাস ভট্টাচার্য বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলনের ওই তিন নেতাকে তুলে আনা হয়নি। তাদের কিছু বিষয়ে জিজ্ঞাবাদের জন্য ডাকা হয়েছে। পরে ছেড়েও দেয়া হয়।

বেলা ৩টায় ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক রাশেদ খান ইউএনবিকে মোবাইল ফোনে বলেন, সংবাদ সম্মেলন শেষে ফেরার পথে তাদের চানখারপুল এলাকা থেকে ডিবি পুলিশ একটি মাইক্রোবাসে করে নিয়ে যায়। পরে আড়াইটার দিকে ছেড়ে দেয়।

এ বিষয়ে আজ বিকালে সংবাদ সম্মেলন করে কথা জানান কোটা সংস্কার আন্দোলনের এই নেতা।

প্রসঙ্গত, চাকরিতে কোটা সংস্কার আন্দোলন গতি পেলে গত ১০ এপ্রিল জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাকরিতে আর কোটা ব্যবস্থা না রাখার ঘোষণা দেন। পরদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের রাজু ভাস্কর্যের সামনে সংবাদ সম্মেলন করে আন্দোলন প্রত্যাহার করে নেন শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনের সময় ঢাবি উপচার্যে্যর বাসভবনে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এই পরিপ্রেক্ষিতে রমনা থানায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও পুলিশ চারটি মামলা করে।

ওসব মামলা প্রত্যাহার ও শিক্ষার্থীদের হয়রানি না করার দাবিতে আজ আন্দোলনকারীরা সংবাদ সম্মেলন করে। এরপরই পুলিশ তিন নেতাকে নিয়ে যায়।

 

এই বিভাগের আরো খবর

বাংলাদেশে অবাধ গণতন্ত্রের চর্চা দেখতে চায় জার্মানি: রাষ্ট্রদূত

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশে নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত পিটার ফারেন হোল্টজ বলেছেন, ‘জার্মানি বাংলাদেশে অবাধ গণতন্ত্রের চর্চা দেখতে...

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি জালিয়াতির অভিযোগে শিক্ষার্থী আটক

সিলেট প্রতিনিধি: সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম বর্ষে ভর্তি হতে আসা এক শিক্ষার্থীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is