ঢাকা, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯, ৯ চৈত্র ১৪২৫

2019-03-23

, ১৬ রজব ১৪৪০

ঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবস আজ

প্রকাশিত: ০৬:৪৭ , ১৭ এপ্রিল ২০১৮ আপডেট: ১০:৪১ , ১৭ এপ্রিল ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবস আজ। একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধ শুরুর তিন সপ্তাহের মাথায় নির্বাচিত প্রনিধিদের নিয়ে মেহেরপুরের বৈদ্যনাথ তলায় শপথ গ্রহণ করে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সরকার। এই সরকারের নেতৃত্বেই পরিচালিত হয় মুক্তিযুদ্ধ, ৯ মাসের সংগ্রামের মধ্যদিয়ে আসে চূড়ান্ত বিজয়। নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে এই সরকার গঠন স্বাধীনতা অর্জনে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করেন ইতিহাসবিদ-গবেষকগণ।

একাত্তরের পঁচিশেমার্চ নিরস্ত্র বাঙালির ওপর পাকিস্তানী বাহিনীর বর্বোরচিত গণগত্যা শুরুর পর থেকেই প্রতিরোধ লড়াই শুরু হয় দেশের বিভিন্ন এলাকায়। যার নির্দেশনা ৭ই মার্চের ভাষণেই দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু মেখ মুজিব।

দেশের ভেতর যখন প্রতিরোধ লড়াই চলছে তখন ৭০ এর নির্বাচনে বিজয়ী আওয়ামী লীগের নেতারা স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সরকার গঠনে তৎপর। বঙ্গন্ধুর পূর্ব নির্দেশ অনুযায়ী সীমান্তে পৌঁছে সংগঠিত করেন জনপ্রতিনিধিদের। মাত্র দু’ সপ্তাহের প্রচেষ্টায় ১০ই এপ্রিল গঠিত হয় প্রবাসী সরকার। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে রাষ্ট্রপতি, সৈয়দ নজরুল ইসলামকে উপ-রাষ্ট্রপতি ও তাজউদ্দিন আহমেদকে প্রধানমন্ত্রী, এম মনসুর আলীকে অর্থমন্ত্রী, এই এচ এম কামারুজ্জানকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং খন্দকার মোস্তাক আহমেদকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী করে সার্বভৌম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সরকার ঘোষণা করা হয়। বঙ্গবন্ধুর অনুপস্থিতিতে সৈয়দ নজরুল ইসলাম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করেন।
 
এরপর ১৭ই এপ্রিল প্রায় ৫০জন বিদেশী সাংবাদিক ও হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে বাংলাদেশের মুক্তাঞ্চল মেহেরপুরের বৈদ্যনাথ তলায় আম বাগানে আনুষ্ঠানিকভাবে শপথ গ্রহণ করে এই সরকার, যা পরবর্তীতে পরিচিত হয় মুজিবনগর সরকার নামে।

নয় মাস পাকিস্তানের কারাগারে বন্দি থাকলেও বঙ্গবন্ধুর পূর্ব নির্ধারিত পরিকল্পনাতেই যুদ্ধ চলেছে বলে মনে করেন গবেষকরা।
 
স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র নতুন প্রজন্মের জন্য পাঠ্যসূচিতে বাধ্যতামূলক করারও পরমর্শ দেন এই গবেষক ইতিহাসবিদ।

 

এই বিভাগের আরো খবর

প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাত করলেন সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত আবরারের পরিবারের সদস্যরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করেছেন সম্প্রতি রাজধানীতে বাসচাপায় নিহত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ...

চালসহ মুদিপণ্যের দাম অপরিবর্তিত 

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বাজারে চড়া সবজির দাম। অন্যদিকে, বৃদ্ধি পেয়েছে মাছ ও মাংসের মূল্য। তবে চালসহ মুদিপণ্যের দাম রয়েছে অপরিবর্তিত।...

বিএনপি সঠিক পথেই আছে : আমির খসরু

নিজস্ব প্রতিবেদক: বর্তমান সময়ে বিএনপি যেভাবে চলছে, এটাই সঠিক সঠিক পথ। আগামীতেও এভাবেই চলবে বলে দাবি করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য...

দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল নয়জনের

বৈশাখী ডেস্ক: দেশের বিভিন্ন স্থানে আজও সড়কে প্রাণ গেলো নয়জনের। এর মধ্যে বরিশালে বাস ও অটোরিক্সার সংঘর্ষে নারীসহ ৬জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is