ঢাকা, বুধবার, ১৬ জানুয়ারী ২০১৯, ৩ মাঘ ১৪২৫

2019-01-17

, ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০

স্বাধীনতা যুদ্ধের স্মারক উপহার দিলো ভারত

প্রকাশিত: ০৬:৪৫ , ২৫ এপ্রিল ২০১৮ আপডেট: ১০:২৩ , ২৫ এপ্রিল ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের স্মারক হিসেবে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর কাছে দুটি পিটি-৭৬ ট্যাংক এবং একটি এমআই-০৪ হেলিকপ্টারসহ কিছু সামগ্রী হস্তান্তর করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা।

বুধবার বিমান বাহিনী ঘাঁটি বাশারে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব সামগ্রী গ্রহণ করেন সেনাবাহিনীর চিফ অব জেনারেল স্টাফ লে. জেনারেল নাজিমউদ্দীন এবং বিমান বাহিনীর সহকারী প্রধান (প্রশাসন) এয়ার ভাইস মার্শাল এম আবুল বাশার।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে প্রদর্শনের জন্য ২০১৭ সালের ২২ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এসব স্মারক উপহার দেন ভারতের পরারাষ্ট্র বিষয়কমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।

স্মারকগুলোর মধ্যে রয়েছে- দুটি পিটি-৭৬ ট্যাংক, একটি এমআই-০৪ হেলিকপ্টার, ২৫টি পিস্তল, রাইফেল, মেশিনগান, মর্টার ও রকেট লঞ্চার এবং বিপুল পরিমাণ নিদর্শন, ঐতিহাসিক ফটো, অডিও ও ভিডিও ক্লিপ, মানচিত্র, যুদ্ধের রেকর্ড, সংবাদপত্রের কাটিং ও প্রামাণ্যচিত্র।

স্মারক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে ভারতের হাইকমিশনার বলেন, ‘বাংলাদেশের সশস্ত্র বাহিনীর কাছে মুক্তিযুদ্ধের আরো কিছু স্মারক হস্তান্তর করতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত।’

তিনি জানান, বেশির ভাগ স্মারক সামগ্রী বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। আর এখন পিটি-৭৬ ট্যাংক ও এমআই-০৪ হেলিকপ্টারের মতো বড় জিনিসগুলো বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর হাতে তুলে দেয়া হলো।

পিটি-৭৬ ভারতীয় সেনাবাহিনীর আর্মার্ড রেজিমেন্টের হালকা ধরনের উভয়চর ট্যাংক। যুদ্ধের সময় এসব ট্যাংক নদী ও জলাশয় পারাপারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিল।

এসব ট্যাংক যুদ্ধের সময় পাকিস্তানী বাহিনীকে উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল ও পশ্চিমাঞ্চলে পিছু হটাতে অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল।

মুক্তিযুদ্ধের সময় এম আই-৪ হেলিকপ্টর ভারতীয় বিমানবাহিনীতে পরিবহন হেলিকপ্টার হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছিল।

পূর্বাঞ্চলে যৌথ বাহিনীর আকাশপথে পরিচালিত অপারেশনে এ হেলিকপ্টার ব্যাপকভাবে ব্যবহার করা হয়েছিল। দ্রুত সিলেট দখল করতে এগুলো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিল।

 

এই বিভাগের আরো খবর

চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেন আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম দিকপাল বরেণ্য চলচ্চিত্র নির্মাতা আমজাদ হোসেন আর নেই।  দুপুরে ব্যাংকের একটি হাসপাতালে...

বৈশাখী টেলিভিশন ও ডেসটিনি'র এমডির হৃদযন্ত্রে আবারো অস্ত্রোপচার

নিজস্ব প্রতিবেদক : বৈশাখী টেলিভিশন ও ডেসটিনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মাদ রফিকুল আমীনের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে। ইব্রাহিম...

ডেসটিনির চেয়ারম্যান ও এমডির মুক্তির দাবিতে বিশাল মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক : ডেসটিনি টু থাউজেন্ড লিমিটেডের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসেন এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ রফিকুল আমীন এর মুক্তির জোর...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is