ঢাকা, বুধবার, ২২ আগস্ট ২০১৮, ৭ ভাদ্র ১৪২৫

2018-08-21

, ৯ জিলহজ্জ ১৪৩৯

খুলনা এখন আতঙ্কের নগরী: বিএনপি

প্রকাশিত: ০৭:০৮ , ১৪ মে ২০১৮ আপডেট: ০৭:০৮ , ১৪ মে ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: খুলনা এখন আতঙ্কের নগরীতে পরিণত হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। সরকার প্রশাসনকে দিয়ে প্রহসনের নির্বাচনের করার জন্যই খুলনাতে সেনাবাহিনী মোতায়েনের অনুমতি দেয়নি বলেও অভিযোগ করে দলের সিনিয়র নেতারা। তবে, জনগণ যদি ভোট দিতে পারে তাহলে বিএনপির প্রার্থী বিপুল ভোটে জয়লাভ করবে বলেও মন্তব্য করেন তারা।

খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন পরিস্থিতি এবং সমসাময়িক বিষয় নিয়ে রাজধানীর নয়াপল্টনের দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করা হয়। এসময় দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করে বলেন, খুলনা সিটি নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত জেনে সরকার প্রশাসন ও সন্ত্রাসীদের দিয়ে নেতাকর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি করছে। জনগণ সুষ্ঠুভাবে ভোট দিতে পারবে কি না- তা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেন রিজভী আহমেদ।

জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান অভিযোগ করে বলেন, খুলনায় সরকার ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যৌথভাবে বিএনপির সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। তবে জনগণের রায় বিএনপির দিকে থাকবে বলেই জানান বিএনপির এই নেতা।

অপর এক আলোচনা সভায় দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, জাতীয় নির্বাচনের নীল নকশার অংশ হিসেবেই খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। নির্বাচন কমিশন এবং দুদক এই নীল নকশার অংশ হয়েই কাজ করছে বলেও অভিযোগ করেন বিএনপির এই নেতা।

 

এই বিভাগের আরো খবর

ঈদের দিন গণভবনে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন প্রধানমন্ত্রী

 নিজস্ব প্রতিবেদক: পবিত্র ঈদুল-আজহার দিন গণভবনে দলীয় নেতাকর্মী, বিচারক ও বিদেশি কূটনীতিকসহ সর্বস্তরের মানুষের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়...

বঙ্গবন্ধু হত্যার ৪৩ বছর পরও বিচার হয়নি পরিকল্পনাকারীদের

কূটনৈতিক প্রতিবেদকঃ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পর আদালতে বিচার কার্যক্রম শেষ হলেও হত্যার পরিকল্পনাকারীদের বিচার...

নির্বাচন প্রক্রিয়া পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই: ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশের যে কোনো সংকট মোকাবেলায় প্রৎস্তুত রয়েছে তার দল ও...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is