ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

2018-11-21

, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

লক্ষ্মীপুর-ভোলা নৌযান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও মানছেন না কেউই

প্রকাশিত: ১০:২৩ , ১৭ মে ২০১৮ আপডেট: ১১:৩৩ , ১৭ মে ২০১৮

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: মার্চ থেকে অক্টোবর পর্যন্ত দ্বীপ জেলা ভোলায় লক্ষ্মীপুর থেকে নৌযান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও তা মানছেন না কেউই। ঝড় বৃষ্টি উপেক্ষা করে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে লঞ্চ, ট্রলার ও স্পিড বোটের মতো যানবাহন। নিষেধাজ্ঞা চলাকালে যাত্রীদের জন্য দুইটি সি-ট্রাক রয়েছে। তবে এগুলোর সেবার মান নিয়ে অভিযোগের শেষ নেই। অতিরিক্ত যাত্রী নেয়া এবং বেশি ভাড়া আদায় নিত্য দিনের চিত্র। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান জেলা প্রশাসক।

বৈরী আবহাওয়ার কারণে প্রতি বছর মার্চ থেকে অক্টোবর পর্যন্ত মেঘনা নদীর মোহনা উত্তাল থাকে। এই আটমাস নৌ দুর্ঘটনা এড়াতে মজু চৌধুরী হাট থেকে ভোলায় লঞ্চ, ট্রলার, স্পিড বোর্ডসহ সকল যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। যাত্রী পরিবহনের জন্য আছে দু’টি সি-ট্রাক।

তবে, সরকারি নিষেধাজ্ঞা মানছেন না নৌযান মালিকরা। ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে লঞ্চ, ট্রলার ও স্পিড বোর্ডের মতো যানবাহন।

সি-ট্রাক দুটি নিয়েও অভিযোগের শেষ নেই যাত্রীদের। অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন ও বেশি ভাড়া আদায়ের ঘটনা প্রতিদিনই ঘটছে।

যাত্রীদের নিরাপদ ভ্রমণ নিশ্চিত করাসহ হয়রানী বন্ধ করার আশ্বাস দিলেন লক্ষ্মীপুরের জেলা প্রশাসক।

বর্ষা মৌসুমে নজরদারি না বাড়ালে যে কোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরণের দুর্ঘটনা। এদিকে, নিরাপদ ভ্রমণ নিশ্চিত করতে সি-ট্রাক সংশ্লিষ্টদের অনিয়ম ও হয়রানী বন্ধে দাবি যাত্রীদের।

এই বিভাগের আরো খবর

চট্টগ্রামে সবচেয়ে বড় জুলুস

নিজস্ব প্রতিবেদক: পবিত্র ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী উপলক্ষে দেশের সবচেয়ে বড় জুলুস বের করা হয় চট্টগ্রামে। নগরীর ষোলশহর জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is