অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে হাতিয়ায় যুবলীগ কর্মী নিহত

প্রকাশিত: ০৫:১৯, ০৮ অক্টোবর ২০১৮

আপডেট: ০৫:১৯, ০৮ অক্টোবর ২০১৮

নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালীর হাতিয়ায় যুবলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে নিজ দলের ভেতরকার প্রতিপক্ষের হামলায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের এই অঙ্গসংগঠনের একজন কর্মী নিহত হয়েছেন। 

এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধসহ আহত হয়েছেন আরো তিনজন। এদেরকে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার উপজেলার চরকিং ইউনিয়নের ভৈরববাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে হাতিয়া থানা সূত্রে জানা গেছে। 

নিহত নুরুল আলম (৩০) চরকিং ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের নূর হোসেনের ছেলে। 

স্থানীয় থানা ও যুবলীগ সূত্রগুলো জানায়, দলীয় কোন্দলে গত ৩০ মার্চ এক হামলায় যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আশ্রাফউদ্দিন নিহত হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে ভৈরব বাজারে এই হত্যা মামলার আসামি ধরতে গোয়েন্দা পুলিশ অভিযানে গেলে, এ সময় ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি পুলিশকে সহযোগিতা করেন।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে পুলিশ চলে যাওয়ার পরপরই সাবেক সংসদ সদস্য মোহাম্মদ আলীর অনুসারী ও মামলার আসামি আবু তাহের ও মুরাদসহ আরও কয়েকজন মনির উদ্দিনের বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই নুরুল আলম মারা যান এবং আর তিনজন আহত হন।

হাতিয়া থানার ওসি আবদুল মজিদ বলেন, এ পরিস্থিতিতে বড় ধরণের সংঘাত সহিংসতা এড়াতে ঘটনাস্থল ও আশেপাশের এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে বলে হাতিয়া থানার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

স্মর্তব্য, গত ৩০ মার্চ যুবলীগ নেতা আশরাফ উদ্দিন উপজেলার আফাজিয়া বাজারে সন্ত্রাসীদের গুলিতে আহত হন। ১১ দিন পর ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

এই বিভাগের আরো খবর

স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান কাদেরের

অনলাইন ডেস্ক: করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে...

বিস্তারিত
ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের সতর্ক করলেন কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঈদ উপলক্ষ্যে...

বিস্তারিত
ঘর থেকে বের হলে পথেই থাকতে হবে: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনা সংক্রমণ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *