বর্ষবরণে মেতে উঠেছে সারা দেশ

প্রকাশিত: ০২:২৫, ০৮ অক্টোবর ২০১৮

আপডেট: ০২:২৫, ০৮ অক্টোবর ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: এলো বাংলা নতুন বছর ১৪২৪; পহেলা বৈশাখে, দেশজুড়ে উৎসব-আনন্দে বর্ষবরণে মেতেছে বাঙালি জাতি। প্রাণে প্রাণে বাজছে বাংলার নিজস্ব সংস্কৃতির জয়গান। এবারো পহেলা বৈশাখের মূল আয়োজন রমনার বটমূলে। ছায়ানটের শিল্পীদের মনোমুগ্ধকর পরিবেশনা উপভোগ করতে ভিড় করেছে হাজারো মানুষ। বটমূলে বর্ষবরণের অনুষ্ঠান শুরু ঠিক সকাল ছয়টায় দশ মিনিটে।

গানে গানে, কবিতায়, বাদ্যযন্ত্রের মুর্ছনায় শুরু হয়েছে নতুন নতুন বছরের প্রথম দিন। রাগ ভৈরবী দিয়ে শুরু হয় ছায়ানটের পরিবেশনা। সে রাগের অনিন্দ্য মূর্ছনায় এরই মধ্যে ভরে উঠেছে রমনার চারিদিক। তবলা আর মৃদঙ্গের স্বর আর সুর যেনো সৃষ্টি করেছে এক অপরূপ দ্যোতনা।

ভোরের আলো যখন ফুটতে শুরু করেছে তখন থেকেই দিকে দিকে বেজে ওঠে, এসো এসো হে বৈশাখ এসো এসো। অনেকেই সেই গান গাইতে গাইতে ঢুকে পড়তে থাকেন রমনা বটমূল চত্তরে। ছায়ানটের আয়োজনে ঐতিহ্যবাহী এই অনুষ্ঠান বর্ষবরণের সূচনা বলেই বিবেচিত।

শিল্পীদের সোনালি রঙা পরিচ্ছদে সকালের সোনালী আলো পড়ে চারিদিক করে তুলেছে স্বর্ণময়। 
এ বছর ছায়ানটের এই আয়োজনের মূল প্রতিপাদ্য ‘আনন্দ, আত্মপরিচয়ের সন্ধান ও মানবতা।
ছায়ানট এ বছর উদযাপন করছে ৫০ বছর পূর্তি। ফলে আয়োজনে থাকছে বাড়তি কিছু।

প্রথমাংশে বাদন, যা এরই মধ্যে শুরু হয়েছে। দ্বিতীয়াংশে গান-কবিতা আবৃতি আর শেষ পর্বে থাকবে একটি লোকপালার উপস্থাপনা। আর ঐতিহ্য মেনে ছায়ানট প্রধান সনজিদা খাতুনের একটি দিকনির্দেশনামূলক বক্তৃতাতো থাকবেই।

বৈশাখী সারা দেশ
বাংলার ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি ধারণ করে বর্ণাঢ্য আয়োজনে সারাদেশে চলছে বর্ষবরণ উৎসব। মঙ্গল শোভাযাত্রা, আনন্দ র‌্যালি, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বৈশাখী মেলাসহ বাঙালির চিরায়ত ঐতিহ্যের নানা আয়োজনে বরণ করা হচ্ছে নতুন বছরকে।

সন্ত্রাস, নাশকতা ও জঙ্গিবাদমুক্ত অসাম্প্রদায়িক দেশ গড়ার অঙ্গীকারে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনায় বাংলা নতুন বছরের প্রথমদিনটি উদযাপন করছে সর্বস্তরের মানুষ। বিভাগীয় শহরসহ জেলা পর্যায়ে বর্ষবরণের নানা আয়োজনে শামিল হয় উৎসব প্রিয় বাঙালি।

খুলনা: 
খুলনায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শিববাড়ি মোড় থেকে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়। এছাড়া বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, পেশাজীবী সংগঠনের উদ্যোগে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

রাজশাহী: 
রাজশাহী বিশ্ববিদালয়ের চারুকলা বিভাগ থেকে বের করা হয় মঙ্গল শোভাযাত্রা। এছাড়া নগরীর আলুপট্টির মোড় থেকে জেলা প্রশাসন, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক ঐক্য জোটসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংঙ্গঠন বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালি বের করে। নগরীর বিভিন্ন স্থানে আয়োজন করা হয় পান্তা-ইলিশের উৎসব।

ময়মনসিংহ: 
ময়মনসিংহ নগরীর স্টেশনরোডে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন ধর্মমন্ত্রী আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। পরে শোভাযাত্রাটি নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

রংপুর: 
রংপুর জিলা স্কুল মাঠ থেকে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে বের করা হয় বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা। পরে বিভিন্ন সংগঠনের আয়োজনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেন নানা শ্রেণি ও পেশার মানুষ।

বরিশাল:
বরিশাল সিটি কলেজ প্রাঙ্গণে চারুকলার উদ্যোগে বের করা হয় মঙ্গল শোভাযাত্রা। পরে মঙ্গল গান-নৃত্য, গুনীজন ও মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা দেয়া হয়।

সিলেট
সিলেট জেলা প্রশাসন,  শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয় ও এমসি কলেজের উদ্যোগে নগরীতে বের করা হয় বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা। 

এছাড়া যশোর, কুড়িগ্রাম গাজীপুর, টাঙ্গাইল, মেহেরপুর, পাবনা, নাটোর, সাতক্ষীরা, নারায়ণগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, কুমিল্লা, ফেনী, কক্সবাজার, বান্দরবানসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে আয়োজন করা হয় বর্ষবরণের নানা অনুষ্ঠান।

এই বিভাগের আরো খবর

ক্ষতির মুখে ফরিদপুরের বিনোদন কেন্দ্রগুলো

ফরিদপুর সংবাদদাতা: করোনা ভাইরাসের...

বিস্তারিত
করোনায় আক্রান্ত অভিনেতা কিরণ কুমার

বিনােদন ডেস্ক: শরীরে করোনাভাইরাসের...

বিস্তারিত
করোনা যোদ্ধাদের নিয়ে গান গাইলেন মাধুরী

বিনোদন ডেস্ক: মহামারি করোনা ভাইরাসের...

বিস্তারিত
ছেলেমানুষী’ মুক্তি পাচ্ছে ইউটিউবে

বিনোদন ডেস্ক: বিশ্বের কয়েকটি দেশ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *