ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬

2019-04-24

, ১৮ শাবান ১৪৪০

ডায়াবেটিস প্রতিরোধে কদবেল

প্রকাশিত: ০৯:২৬ , ০৯ জুন ২০১৮ আপডেট: ০৯:২৯ , ০৯ জুন ২০১৮

ডেস্ক প্রতিবেদন: ফল খাবেন না একেবারে বাদ দেবেন? খেলে কোন কোন ফল থাকবে তালিকায়? সেই নিয়ে আলোচনার চিন্তার শেষ নেই। জেনে নিন কদবেলের উপকারিতা। 

কদবেলে রয়েছে ট্যানিন নামক উপাদান, যা দীর্ঘস্থায়ী ডায়রিয়া ও পেট ব্যথা ভালো করে। কাঁচা কদবেল ছোট এলাচ, মধু দিয়ে মাখিয়ে খেলে বদহজম দূর হয়। ডায়াবেটিস প্রতিরোধেও কদবেল অনেক উপকারী। কদবেলে থাকা খনিজ উপাদান ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী। কদবেল রক্ত পরিষ্কার করতে সাহায্য করে। 

কদবেল পাতার রস পানির সঙ্গে নিয়মিত পান করলে পেপটিক আলসার দ্রুত ভালো হয়। আলসারের ক্ষত সারাতে তাজা কদবেল বেশ কার্যকর। এছাড়া,  ব্রণ ও মেছতায় কাঁচা কদবেলের রস মুখে মাখলে বেশ দ্রুত উপকার পাওয়া যায়।  

কদবেল নিয়মিত খেলে কিডনি সুরক্ষিত রাখে। যকৃত ও হৃৎপিণ্ডের জন্যও বিশেষ উপকারী। শ্বাসযন্ত্রের চিকিৎসায় কদবেল পাতার নির্যাস কার্যকর ভূমিকা পালন করে। দুধ-চিনির সঙ্গে কদবেলে পাতা মিশিয়ে এক ধরনের খাদ্য তৈরি হয়। এই রস শিশুদের পেট ব্যথার চিকিৎসায় চমৎকার কাজ করে। 

প্রতি ১০০ গ্রাম কদবেলে খনিজপদার্থ ২ দশমিক ২ গ্রাম, খাদ্যশক্তি ৪৯ কিলো ক্যালরি, পানীয় অংশ ৮৫ দশমিক ৬ গ্রাম, চর্বি শূন্য দশমিক ১ গ্রাম, আমিষ ৩ দশমিক ৫ গ্রাম, ক্যালসিয়াম ৫ দশমিক ৯ মিলিগ্রাম, শর্করা ৮ দশমিক ৬ গ্রাম, লৌহ শূন্য দশমিক ৬ মিলিগ্রাম, ভিটামিন-বি শূন্য  দশমিক ৮০ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি ১৩ মিলিগ্রাম এবং  প্রতি ১০০ গ্রামের শক্তি উৎপাদন ক্ষমতা ৪৯ কিলো ক্যালোরি।

এই বিভাগের আরো খবর

শ্বাসকষ্ট দূর করবে ব্যায়াম!

অনলাইন ডেস্ক: হাঁপানি বা শ্বাসকষ্ট যে কতটা কষ্টদায়ক রোগ, তা কেবল ভুক্তভোগীরা জানেন। এ রোগ নিরাময়ের জন্য হরেক রকম ওষুধ ও কৌশল আবিষ্কৃত...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is