ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০১৯, ৭ চৈত্র ১৪২৫

2019-03-21

, ১৪ রজব ১৪৪০

জীবনে প্রেম আসে নানাভাবে 

প্রকাশিত: ০১:৩৫ , ১২ জুন ২০১৮ আপডেট: ০১:৩৭ , ১২ জুন ২০১৮

ডেস্ক প্রতিবেদন: জীবন মাত্রই প্রেমময়। মানুষের জীবনে প্রেম নানাভাবে আসে। ঘুম থেকে ওঠা ইস্তক প্রেম পায় অনেকের। ধরুন এই মুহূর্তে আপনি কোনও একটি রিলেশনে আছেন। কিন্তু প্রতি মুহূর্তে মনে হচ্ছে বোধহয় এর চেয়েও বেটার অপশন পাওয়া যেত। কখনও মনে হচ্ছে প্রাক্তন বোধহয় এখনকার চাইতে ভালো ছিল। এই রকম ক্রাইসিসে অনেকেই ভোগেন। প্রেম নিয়ে বেশি প্রত্যাশা রাখবেন না। স্বাভাবিক ভাবে যা আসবে, তাই গ্রহণ করুন।

নিজের কাছে সৎ থাকুন: লং ড্রাইভ, রোমান্টিক ডেট, উইকএন্ডে আলাদা করে সময় কাটানো এগুলোতে যে কোনও সম্পর্ক আরও পোক্ত হয়। সঙ্গীকে অনেক কাছ থেকে চেনা যায়। নিজের চাহিদা, অভিযোগ একে অপরকে খুলে বলুন। কোনও কিছু লুকোছাপা না রাখাই ভালো। প্রেমিক বা প্রেমিকা ছাড়াও অন্য কারোর সঙ্গে আপনার ভালো সম্পর্ক থাকতেই পারে। তা সঙ্গীর কাছে লুকিয়ে অশান্তি না বাড়ানোই ভালো।

ক্রাশকে ইগনোর করুন: ক্রাশ আর প্রেম যে আলাদা এই বিষয়টা আগে নিজের কাছে ক্লিয়ার রাখুন। ক্রাশ প্রায়শই খাওয়া যায়। যার-তার প্রতি। কিন্তু প্রেম অমন ভাবে আসে না। প্রেমটা একজনের সঙ্গেই হয়। ক্রাশের সঙ্গে প্রেমিক বা প্রেমিকার তুলনা টানবেন না। তাতে ঝামেলা, মনখারাপ বাড়বে। দূরত্ব বাড়বে। যোগাযোগ কমবে।
ক্রাশের চাপ কতটা সত্যি: ধরা যাক আপনার ক্রাশকে নিয়ে আপনি অনেক স্বপ্নের জাাল বুনে ফেলেছেন। এদিকে তার আপনার উপর কোনও রকম অনুভূতি নেই। ফলস্বরূপ উপরি পাওনা মনখারাপ, ডিপ্রেশন। তাই সত্যি জেনে তবেই প্রেম করুন।

ভালো খারাপ পাল্লায় মেপে নিন: ডেটিং এমনিতে বেশ স্বাস্থ্যকর। ভালো খানা পিনা হয়, অভিজ্ঞতা বাড়ে। যার সঙ্গে ডেটিং এ যাচ্ছেন সে বড়ই বাধ্য ( ছেলে অথবা মেয়ে), দেখতে হ্যান্ডসাম এই দেখে বিচার করবেন না। প্রেমে অন্ধ না হওয়াই ভালো। মাত্র কয়েকদিনের ভ্যালিডিটি এই মানসিকতা নিয়ে প্রেম না করাই ভালো। যাকে সঙ্গী হিসাবে বেছে নিচ্ছেন তার ভালো খারাপ উভয়ই বিচার্য।
সুসম্পর্কের অর্থ কি: টাকা, পয়সা, সৌন্দর্য কোনও কিছুই স্থায়ী নয়। মানেন তো ? এই সব কিছু দিয়ে কিন্তু প্রেম ঠেকানো যায় না। আসলে দুটো মানুষের সম্পর্কে এই তিনটি জিনিসের খুব প্রয়োজন। বিশ্বাস, ভরসা আর ভালোবাসা। এবং সম্পর্কের প্রতি শ্রদ্ধা। এর বেশি সত্যি আর কিছুর প্রয়োজন পড়ে না।

নিকট বন্ধুর মতামত নিন: প্রেমে আমরা অনেক সময় তাল-জ্ঞান-মাত্রা সবই হারিয়ে ফেলি। তাই ভুল ভ্রান্তি কিছুই ধরা পড়ে না। উল্টে কেউ যদি সঙ্গীর খুঁত ধরে তাহলে বিরক্ত লাগে বইকি। এসব ক্ষেত্রে খুব কাছের বন্ধুদের পরামর্শ মেনে চলুন। একটা মানুষকে এক একজন ভিন্ন ভাবে চেনে। তাই আপনি ছাড়াও অন্য কারোর মতামত ভীষণ ভাবে জরুরি।

মনের প্রতি বিশ্বাস রাখুন: সারাদিন ফোনালাপ, চ্যাট অনেক তো হল। অনেকের সঙ্গেই হল। বানিয়ে বানিয়ে বেশ কিছু কথাও বললেন। কিন্তু মনের শান্তি হল কি ? আগের জন ভালো ছিল, এখনের জন খারাপ বা কয়েকদিনের ট্রায়াল তো। দেখাই যাক না। এই মনোভাব এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন। নিজের উপর ভরসা রাখুন। ভালো থাকা আর ভালোভাবে বাঁচা কেউ আটকাতে পারবে না।

এই বিভাগের আরো খবর

সম্পর্ক দৃঢ় করতে যা করবেন

অনলাইন ডেস্ক: সম্পর্ক তৈরি করার চেয়ে রক্ষা করা কঠিন। আর এর জন্য দু’জনের মধ্যে সুস্থ্য সম্পক গড়তে হবে। সঙ্গীকে  দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক...

দুধে রসুন মিশিয়ে খেলে যা হয়

ডেস্ক প্রতিবেদন : উপকারিতা: রসুন-দুধ ঘুম বাড়াতে সহায়তা করে। এছাড়াও শরীরের খারাপ কোলেস্টেরল কমিয়ে আনে। রক্ত জমাট বাঁধা প্রতিরোধ করে, রক্ত...

কুমড়ায় বাড়ে দৃষ্টিশক্তি

ডেস্ক প্রতিবেদন : মিষ্টি কুমড়া অনেকেরই পছন্দের একটি সবজি।শুধু স্বাদেই নয়, গুণেই এটি অনন্য একটি খাবার। মিষ্টি কুমড়ায় প্রচুর পরিমাণে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is