ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ৩ কার্তিক ১৪২৫

2018-10-18

, ৭ সফর ১৪৪০

কক্সবাজারের পাহাড়ী এলাকায় ঝুঁকি নিয়ে ৩ লাখ মানুষের বাস

প্রকাশিত: ১০:১১ , ১৩ জুন ২০১৮ আপডেট: ০৯:৫২ , ১৩ জুন ২০১৮

কক্সবাজার প্রতিনিধি : কক্সবাজার পৌরসভার বিভিন্ন পাহাড়ী এলাকায় ঝুঁকি নিয়ে বাস করছে প্রায় ৩ লাখ মানুষ। গত ৮ বছরে কক্সবাজারে পাহাড় ধসে মারা গেছে ২শ’ ২৫ জন। পাহাড়গুলো বালিমাটির হওয়ায় বৃষ্টিতে ধসের আশংকা বেড়ে যায় বলে জানালেন, পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। পাহাড় ধসে প্রাণহানীর আশংকায় এসব মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

কক্সবাজার পৌরসভার ১২টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৬টি ওয়ার্ড জুড়েই রয়েছে ছোট-বড় এমন হাজারো পাহাড়। এসব পাহাড় কেটে বা পাহাড়ের পাদদেশে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বাস করছে কয়েক লাখ মানুষ। প্রতিনিয়তই এসব পাহাড় কেটে নতুন নতুন বসতি তৈরি করছে তারা।

পরিবেশ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সাইফুল আশরাফ জানান, কক্সবাজারের পাহাড়গুলো বালিমাটির হওয়ায় বেশি বৃষ্টিতে ধসের আশংকা বেড়ে যায়।

গত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে এসব পাহাড় আরো ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। এদিকে, পাহাড়ে বসবাসকারীদের মাইকিং করে নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিচ্ছে জেলা প্রশাসন।

গত ৮ বছরে কক্সবাজারে পাহাড় ধসে মারা গেছে ২’শ ২৫ জন।

 

এই বিভাগের আরো খবর

কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল এখনো বন্ধ

ন্যাশনাল ডেস্ক : পদ্মায় নাব্যতা সংকটের কারণে কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌরুটের ফেরি চলাচল চতুর্থ দিনের মতো বন্ধ রয়েছে। সংকট নিরসনে ড্রেজিং চলছে...

চতুর্থদিনের মতো কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া রুটে ফেরি চলাচল বিঘ্নিত

বৈশাখী ডেস্ক: পদ্মা নদীতে নাব্যতা সংকট প্রকট হওয়ায় টানা চতুর্থদিনের মতো বিঘ্নিত হচ্ছে কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া রুটে ফেরি চলাচল। দু-একটি ছোট...

বগুড়ায় নাম সর্বস্ব ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সেন্টারের দৌরাত্ম

বগুড়া প্রতিনিধি : বগুড়া শহরের অলিগলিতে গড়ে উঠেছে নাম সর্বস্ব ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার। অনুমোদনবিহীন এসব চিকিৎসাসেবা কেন্দ্রে ভুল...

প্রায় অচলাবস্থায় শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী ফেরি চলাচল

ডেস্ক প্রতিবেদন : পদ্মা নদীতে নাব্যতা সংকট প্রকট হওয়ায় এখনও প্রায় অচলাবস্থায় মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌ-রুটের ফেরি চলাচল। দু-একটি...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is