ঢাকা, সোমবার, ২৫ জুন ২০১৮, ১১ আষাঢ় ১৪২৫

2018-06-23

, ৯ শাউয়াল ১৪৩৯

নারীর রুটিন চেকআপ কতটা প্রয়োজন?

প্রকাশিত: ০২:২৬ , ১৪ জুন ২০১৮ আপডেট: ০২:২৭ , ১৪ জুন ২০১৮

স্বাস্থ্য ডেস্ক: পুরুষরা অনেক সময় অফিস থেকেই হোক অথবা কি নিজ উদ্যোগে স্বাস্থ্যের রুটিন চেকআপ করিয়ে নেন। কিন্তু বাড়িতে থাকা নারী সদস্যটি অনেক সময় থাকেন অন্ধকারে। বছর বছর কোনো রুটিন পরীক্ষা-নিরীক্ষা তাঁর করা হয়ে ওঠে না। অন্তত বয়স বেড়ে শরীর খারাপ লাগার আগ পর্যন্ত তা আর হয়ে উঠে না। তার মানে কি নারীদের রুটিন চেকআপের প্রয়োজন নেই? তা নয়। পুরুষদের মতো নারীদেরও উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, স্ট্রোক ইত্যাদি রোগের ঝুঁকি আছে। বরং নারীরা এর বাইরে আরও কিছু রোগের ঝুঁকিতে থাকেন, যেখানে রুটিন পরীক্ষার ভূমিকা আছে। যেমন স্তন ক্যানসার, জরায়ু বা জরায়ুমুখের ক্যানসার।

আবার কিছু রোগ আছে যা নারীদের বেশি হয়। যেমন-থাইরয়েডের সমস্যা বা নানা ধরনের বাত। তাই নারীদেরও রুটিন পরীক্ষার দরকার আছে। এখন জেনে নিন কী হতে পারে আপনার এই সব রুটিন পরীক্ষা থেকে।

* পূর্ণবয়স্ক নারীদের বছরে অন্তত একবার রক্তচাপ মাপা উচিত। ২০ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে রক্তে শর্করা বা চর্বি পরীক্ষা শুরু করা উচিত। যদি আপনি ওজনাধিক্য বা স্থূলতায় ভোগেন, পরিবারে ডায়াবেটিস বা হৃদরোগের ইতিহাস থাকে, তবে অল্প বয়সেই শুরু করতে হবে। আর গর্ভাবস্থায় রক্তচাপ মাপা এবং রক্তে শর্করা দেখাটা জরুরি।

* ২১ বছর বয়স থেকে জরায়ুমুখ ক্যানসার স্ক্রিনিং শুরু করা উচিত। এ জন্য চিকিৎসককে দিয়ে পরীক্ষা করা যায়, সঙ্গে প্যাপস স্মেয়ার টেস্ট। প্রতি ৩ বা ৫ বছর পরপর করলে ভালো।

* ব্রেস্ট সেলফ এক্সামিনেশন বা নিজে পরীক্ষা করা শিখে নিয়ে নিজে নিজে মাসে একবার নিজের স্তন পরীক্ষা করুন। এটা শুরু করা উচিত ২০ বছর বয়স থেকেই। যদি পরিবারে স্তন ক্যানসারের ইতিহাস থাকে বা স্তনে কোনো অস্বাভাবিকতা ধরা পড়ে, তবে আলট্রাসনোগ্রাফি বা ম্যামোগ্রাফি চিকিৎসকের পরামর্শে করতে পারেন। ৪০ বছরের আগে সাধারণত ম্যামোগ্রাফির কথা বলা হয় না।

* এ ছাড়া বছরে অন্তত একবার দাঁত ও চোখ পরীক্ষা করিয়ে নেওয়া ভালো।

* ৫০ বছরের পর কোলন ক্যানসার নির্ণয় করতে কলনোস্কোপি পরীক্ষার ওপর জোর দেওয়া হয়। তবে চিকিৎসকের সন্দেহ হলে এর আগেও করা যায়।

নিয়মিত বা রুটিন পরীক্ষা-নিরীক্ষা অনেক অনির্ণীত রোগকে আগে নির্ণয় করতে সাহায্য করে। অনেক জটিলতাও এড়ানো যায়। মনে রাখবেন, পরিবারে নানা রোগের ইতিহাস, মুটিয়ে যাওয়া, জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি সেবন ইত্যাদি আপনার নানা ধরনের রোগের ঝুঁকি বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই সময় থাকতেই সতর্ক হওয়া উচিত।

এই বিভাগের আরো খবর

তীব্র গরমে সুস্থ থাকার উপায়

ডেস্ক প্রতিবেদন: বর্ষা এসে গেছে। কিন্তু গরম কমেনি। বাইরে প্রখর রোদ, ভেতরে গরম হলকা বাতাস। এই অসহ্য গরমেই অনেকে ঈদ শেষে দূরের যাত্রা সম্পন্ন...

নিজেকে অনুপ্রাণিত করার উপায় 

ডেস্ক প্রতিবেদন: প্রতিদিন খুব ভোরে ঘুম থেকে ওঠে ব্যায়াম করবেন বলে ছয় মাস ধরে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। প্রত্যয়টি কোনোভাবে বাস্তবের মুখ দেখছে না।...

সাবধান! আপেলে মোমের প্রলেপ!

ডেস্ক প্রতিবেদন: আপেল চকচকে দেখাতে, খোসার আর্দ্রতা বজায় রাখতে গায়ে লাগানো হচ্ছে মোমের প্রলেপ। মোম মাখানো আপেল খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন...

বিয়ে করলে হৃদরোগের শঙ্কা কমে

ডেস্ক প্রতিবেদন: বিয়ে করলে হৃদরোগ বা স্ট্রোকের শঙ্কা অনেকটাই কমে যায় বলে দাবি করেছে গবেষকরা। ব্রিটেনের কিল বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল সমীক্ষক...

বিশ্বজুড়ে এখন যোগ ব্যায়ামের জয়জয়কার- নরেন্দ্র মোদি

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পালন করা হচ্ছে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস । এ উপলক্ষে উত্তরাখান্ডের দেহরাদুনের ফরেস্ট রিসার্চ...

বিয়ে করলে সুস্থ থাকে হৃদযন্ত্র, কমে স্ট্রোকের আশঙ্কা

ডেস্ক প্রতিবেদন: বিয়ে নিয়ে বিভিন্ন মতবাদ আছে। নানা মানুষ নানা কথা বলে বিয়ে নিয়ে। বিয়ের পক্ষে বিপক্ষে লোকের সংখ্যাও নেহাত কম নয়। তবে যারা...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is