ঢাকা, শনিবার, ২৫ মে ২০১৯, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

2019-05-24

, ১৯ রমজান ১৪৪০

অক্টোবরে নির্বাচনকালীন সরকার

প্রকাশিত: ১২:৪২ , ২০ জুন ২০১৮ আপডেট: ০২:৫৬ , ২১ জুন ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: নির্বাচনকালীন সরকার অক্টোবরের দিকে গঠন হতে পারে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বুধবার সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে ঈদ পরবর্তী পর্যালোচনা সভা শেষে সাংবাদিকদের একথা জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচনের শিডিউল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে নির্বাচনকালীন সরকার দায়িত্ব গ্রহণ করবে। নির্বাচনকালীন সরকার বলতে নতুন কোনো সরকার গঠিত হবে না। বর্তমান সরকারই নির্বাচনকালীন সরকারের দায়িত্ব নেবে। তবে নির্বাচনকালীন সরকারের আকার এতো ঢাউস হবে না। মন্ত্রিপরিষদের আকার ছোট হবে। তবে এ বিষয়টি পুরোপুরি প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ারে। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত তিনি নেবেন।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনকালীন সরকার শুধু রুটিন কাজ করবে। মন্ত্রীরা কোনো প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে পারবেন না।’

বিএনপি নির্বাচনে না আসলে নির্বাচন একতরফা হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কোনো একতরফা নির্বাচন হবে না। অনেক বেশি দল নির্বাচনে আসবে। বিএনপি না আসলে নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হবে কেন? নির্বাচন কমিশন নির্বাচন পরিচালনা করবে। সেখানে যদি সংবিধান লঙ্ঘন হয় তখনই নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হবে। বিএনপি অন্ধ হলে কি প্রলয় বন্ধ হবে?

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি না এলেই একতরফা নির্বাচন হয় এমন নয়। এবার বিএনপির জন্য অন্যরা অপেক্ষা করবে না, বহু দল অংশ (নেবে)...এবার পার্টিসিপেশন অনেক বেশি। ইনক্লুসিভ নির্বাচন হবে। বিএনপিও তো বলেছে তারা আন্দোলনও করবে, নির্বাচনেরও প্রস্তুতি নিচ্ছে। তাহলে অসুবিধা কী? একতরফা কেন হবে, বাংলাদেশে কি আর কোনো দল নেই? আপনি যাবেন না বলে কি অন্যরা আসবে না?’বিএনপির উদ্দেশে প্রশ্ন রেখে ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতীয় নির্বাচনকে তারা ভয় পাচ্ছেন কেন? সিটি নির্বাচনকে তো ভয় পাচ্ছেন না।

বিএনপিকে উদ্দেশ করে তিনি আরও বলেন, জাতীয় নির্বাচনকে তারা ভয় পাচ্ছে কেন? সিটি নির্বাচনকে তো ভয় পাচ্ছে না।

বিএনপির আন্দোলনের ঘোষণা বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘দেশে কোনো আন্দোলন হবে না এটা জানি। কারণ বিএনপির আন্দোলনে দেশের মানুষ সাড়া দেবে এমন কোনো বস্তুগত পরিস্থিতি দেশে বিরাজমান নেই। বিএনপিরও সাবজেক্টিভ প্রিপারেশন বা প্রস্তুতিমূলক কিছু নেই। সাবজেক্টিভ প্রিপারেশন মানে সুসংগঠনগত প্রস্তুতি, সেটাও তাদের নেই। আবার অবজেক্টিভ কন্ডিশন হলো দেশের জনগণের মুড, সেখানেও কোনো অবস্থা নেই।’

রাস্তা বিষয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, যেখানেই রাস্তা সমস্যা তা দ্রুত সমাধান করবেন। এবার ঈদ সব মিলিয়ে মানুষ স্বস্তিতে যাতায়াত করতে পেরেছে। তেমনি কোরবানির ঈদেও যাতে মানুষ নির্বিঘ্নে যাতাযোত করতে পারে সে প্রস্তুতি নিতে হবে।

তিনি বলেন, ঈদে মহাসড়কগুলোতে যাতে গরুর হাট বসতে না পারে সেজন্য সংশ্লিষ্টদের নজর রাখতে হবে আগে থেকেই। গরুর হাটের কারণে রাস্তায় যানজট তৈরি হয়।

 

এই বিভাগের আরো খবর

খালেদার চিকিৎসায় সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে: ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগ সরকার এতোটা নিষ্ঠুর ও অমানবিক নয় যে, জেলখানায় খালেদা জিয়াকে বিনা চিকিৎসায় মেরে ফেলবে। বলেছেন আওয়ামী লীগের...

সরকার কৃষকদের প্রতি সঠিক দায়িত্ব পালন করছে না: ডক্টর কামাল

নিজস্ব প্রতিবেদক : সরকার কৃষকদের প্রতি সঠিক দায়িত্ব পালন করছে না বলে অভিযোগ করেছেন গণফোরাম সভাপতি ডক্টর কামাল হোসেন। সকালে জাতীয়...

মধুর ক্যান্টিনে সংঘর্ষ, সাতজনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে ছাত্রলীগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে ছাত্রলীগের দুইপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় সাতজনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে ছাত্রলীগ।...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is