ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই ২০১৮, ২ শ্রাবণ ১৪২৫

2018-07-16

, ৩ জিলকদ্দ ১৪৩৯

উত্তর ও পূর্বাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতির আরো উন্নতি

প্রকাশিত: ০৪:১০ , ১১ জুলাই ২০১৮ আপডেট: ০৪:১০ , ১১ জুলাই ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের উত্তর ও পূর্বাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতির আরো উন্নতি হয়েছে। লালমনিরহাট, নীলফামারী, কুড়িগ্রাম, সিরাজগঞ্জসহ বিভিন্ন অঞ্চলে নদনদীর পানি কমতে শুরু করেছে। তবে এসব এলাকায় বাড়ছে নদী ভাঙন। এদিকে, পানির চাপ বাড়ছে মধ্যাঞ্চলে। মাদারীপুরের শিবচরে পদ্মার ভাঙনে বিলিন হয়ে গেছে নানা স্থাপনাসহ শতধিক বাড়িঘর।

উত্তরাঞ্চলে বিভিন্ন নদ-নদীর পানি কমা অব্যাহত রয়েছে। সকল পয়েন্টেই পানি বিপদসীমার নীচ দিয়ে বইছে। এদিকে, পানি কমতে শুরু করায় দেখা দিয়েছে নদী ভাঙন। এছাড়া, বেশিরভাগ দুর্গত এলাকায় এখনো কোন ত্রাণ পৌঁছায়নি। ফলে তীব্র হচ্ছে শুকনো খাবার ও বিশুদ্ধ পানি সংকট।  

লালমনিরহাট বন্যার পানি নেমে গেলেও দূর্ভোগ কমেনি বানভাসি মানুষের। খাবার সংকটের পাশাপাশি বাড়ঝে পানিবাহিত রোগ।

ব্রহ্মপুত্র ও তিস্তা পানি কমতে থাকায় গাইবান্ধার বিভিন্ন এলাকায় দেখা দিয়েছে নদী ভঙন। দুই সপ্তাহের ব্যবধানে সাঘাটার বিভিন্ন এালাকায় বিলীন হয়েছে শতাধিক বাড়িঘর।

সিরাজগঞ্জেও বন্য পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। যমুনা নদীর পানি বিপদসীমা ১৭ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এদিকে, দেশের মধ্যাঞ্চলের নদনদীগুলোতে পানির চাপ বাড়ছে। মাদারীপুরের শিবচরে পদ্মা নদীর ভাঙনে বিলিন হয়ে গেছে দুটি স্কুলসহ কয়েক’শ বাড়িঘর।

এদিকে, সুনামগঞ্জের কুশিয়ারার নদীর পানি কমলেও, বেড়েছে সুরমা নদীর পানি। দিরাই পয়েন্টে সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ১৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে বইছে।

 

এই বিভাগের আরো খবর

মানবতাবিরোধী অপরাধে মৌলভীবাজারের চার রাজাকারের ফাঁসি

নিজস্ব প্রতিবেদক: নিজস্ব প্রতিবেদক: একাত্তরে মৌলভীবাজারের রাজনগরে মানবতাবিরোধী অপরাধে যুক্ত থাকার দায়ে তখনকার রাজাকার বাহিনীর চার...

পদ্মায় পানি বেড়ে শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি রুটে নৌযান চলাচল ব্যাহত

মাদারীপুর প্রতিনিধি: পদ্মায় পানি বেড়ে সৃষ্টি হয়েছে তীব্র ঘূর্ণি স্রোত। ফলে শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি নৌরুটে নৌযান চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। এদিকে,...

টাঙ্গাইলে মাইক্রোবাসের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরনে ৩ জন নিহত

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলে মাইক্রোবাসের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরনে ৩ জন নিহত হয়েছে। এঘটনায় আহত হয়েছে পুলিশের এসআইসহ ৪ জন। ভোরে,...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is