ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫

2018-11-15

, ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

খেলার প্রাণভোমরা আসলে খেলোয়াড়রাই: পেরেইরা

প্রকাশিত: ০৮:৫১ , ১৩ জুলাই ২০১৮ আপডেট: ০৮:৫১ , ১৩ জুলাই ২০১৮

রাশিয়ার মস্কো থেকে বিশেষ প্রতিনিধি এস.এম সুমন: প্রযুক্তির ছোঁয়া আর উন্নত ব্যবস্থাপনার দক্ষতায় ফুটবলে যতই পরিবর্তন আসুক না কেন, খেলাটির প্রাণভোমরা আসলে প্রতিভাবান খেলোয়াড়রাই। তারাই সাফল্যের আসল নায়ক। এমনটাই মনে করেন ফিফার টেকনিক্যাল কমিটির প্রধান এবং ব্রাজিলের সাবেক কোচ ও খেলোয়াড় আলবার্তো পেরেইরা। মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে ফিফার সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় রাশিয়া বিশ্বকাপে ব্যবহার হওয়া ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি বা ভিএআর প্রযুক্তিরও প্রশংসা করে টেকনিক্যাল কমিটি।

সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে বদলাচ্ছে ফুটবলও। বেড়েছে খেলার গতি ও বাণিজ্যের প্রসার। প্রযুক্তির ছোঁয়ায় অনেক কিছু বদলে দেয়া গেলেও প্রতিভা কখনো তৈরী করা যায় না। আর এই জায়গাতেই সবাইকে অপেক্ষা করতে হয় স্বতস্ফুর্ত বিকাশের ওপর। ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তী আলবার্তো পেরেইরা, যিনি খেলোয়াড় ও কোচ হিসেবে বিশ্বকাপ ট্রফি ছুঁয়েছেন, তিনি বললেন, প্রতিভা না থাকলে কোন দলই বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে সফল হতে পারবেনা। পেরেইরা এখন কাজ করছেন ফিফার টেকনিক্যাল কমিটির প্রধান হিসেবে। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বললেন, যে দলে যত বেশি মেধাবী খেলোয়াড় তারাই তত বেশি সফল হবে।

আলবার্তো পেরেইরা বলেন, ফুটবলে প্রতিনিয়ত পরিবর্তন আসলেও, আমি মনে করি প্রতিভাই সবকিছু। কোন দলে প্রতিভাবান খেলোয়াড় না থাকলে তারা সফল হতে পারবে না। উদাহরণ হিসেবে আমি বলতে পারি বিশ্বকাপে এই পর্যন্ত যারা সফল হয়েছে প্রতিটি দলেই বেশ কিছু অসাধারণ প্রতিভাধর খেলোয়াড় ছিলেন। তবে সফলতা পেতে হলে প্রতিভার সাথে প্রয়োজন অভিজ্ঞতা, টেকনিক, ট্যাকটিস।

এই প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ ফুটবলে ভিডিও এসিটেন্স রেফারী-ভিএআর প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। এই প্রযুক্তির সুবিধা ও অসুবিধা নিয়েও কথা বলেন পেরেইরা। তিনি বলেন, এই প্রযুক্তির ব্যবহারের সিদ্ধান্তটি আমি মনে করি ঠিক হয়েছে। অতীতে ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ এবং বিশ্বকাপেও অনেক বড় দল রেফারির ভুল সিদ্ধান্তের মাশুল দিয়েছে। ভিএআর প্রযুক্তি থাকায় এখন রেফারীদের সিদ্ধান্ত পূনর্মূল্যায়নের সুযোগ থাকছে। পাশাপাশি বক্সের ভিতরে ফাউলের প্রবণতা যেমন কমবে তেমনি ফরোয়ার্ডরাও বক্সের ভেতরে পড়ে গিয়ে বাড়তি সুবিধা নিতে পারবেনা।

ফিফা টেকনিক্যাল স্টাডি গ্র“পের বাকি সদস্যরা হলেন ফন বাস্তেন, বোরা মিলনোভিচ, ইমানুয়েল এমনিকে এবং এন্ডি রক্সবুর্গ। এই কমিটিই এবারের বিশ্বকাপের সেরা ফুটবলার, সেরা গোলকিপার এবং তরুণ ফুটবলার নির্বাচন করবে।

 

 

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

চমকে পরিপূর্ণ ছিল রাশিয়া বিশ্বকাপ

স্পোার্টস ডেক্স: বিশ্বকাপ ফুটবলের এবারের আসরের শুরুতে বোঝা যায়নি, অপেক্ষায় রয়েছে একগাদা চমক আর পরিবর্তনের ইঙ্গিত। আসর যত এগিয়েছে, একে একে...

বিশ্বকাপ জয়ী ফ্রান্স ফুটবল দলের রাজকীয় প্রত্যাবর্তন

স্পোর্টস ডেক্স: বিশ্বকাপ জয়ী ফ্রান্স ফুটবল দলকে রাজকীয় ভাবে বরণ করে নিলো  দেশবাসী। দেশে ফেরার পর তাদের বীরোচিত সংবর্ধনা দেয়া হয়। এদিকে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is