ঢাকা, বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৮ ফাল্গুন ১৪২৫

2019-02-20

, ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪০

শেরপুরের বেশক’টি নদীতে অবাধে বালু উত্তোলন

প্রকাশিত: ০৪:১৪ , ১০ আগস্ট ২০১৮ আপডেট: ০৪:১৪ , ১০ আগস্ট ২০১৮

শেরপুর প্রতিনিধি: শেরপুরের বালিঝুড়ি, মহারশিসহ বেশকটি নদীতে অবাধে চলছে বালু উত্তোলন। স্থানীয়দের দাবি এভাবে বালু তুলতে থাকলে নদীগুলো হারাবে নব্যতা। সেই সাথে ধ্বংস হবে নদী তীরবর্তি স্থাপনা। এলাকাবাসীর অভিযোগ হাইকোর্টের রিট-পিটিশনের কথা বলে দিনের পর দিন বালু উত্তোলন করছে ভূমিদস্যুরা। জেলা প্রশাসক জানালেন, অবৈধ বালু উত্তোলনের সাথে যারা জড়িত তাদের কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না।

শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার বালিঝুড়ির নদীর ছয় একর জায়গায় বালি উত্তলনের বৈধ ডাক থাকলেও বাকিগুলোতে নেই কোন সরকারি ডাক। শুধু বালু উত্তোলনের বৈধতা নিয়ে নয় সরকারি ডাকের জায়গা নির্ধারণ নিয়েও রয়েছে নানান জটিলতা।

স্থানীয় এক ভূমিদস্যু হাইকোর্টের রিট-পিটিশনের নাম ভাঙ্গিয়ে দীর্ঘ তের বৎসর যাবত বালু উত্তোলন করে ধ্বংস করেছে নদীতীরবর্তি সামাজিক বনায়ণ প্রকল্পের গাছপালা আর বিভিন্ন স্থাপনা।

এদিকে, উজানের জিরো পয়েন্ট থেকে দ্রুত বালু তোলা বন্ধ না করলে মহারশী নদীর উপর নির্মিত ব্রিজটি যে কোন মুহুর্তে ধসে গিয়ে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।

জেলা প্রসাশক জানালেন, উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞা নিষ্পত্তি হওয়ার পর ভূমিদস্যুদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

জেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ও জীববৈচিত্র রক্ষায় প্রসাশনের দ্রুত হস্তক্ষেপের দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসির।
 

 

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is