ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-21

, ১৯ জিলহজ্জ ১৪৪০

বিশ্ব ধরিত্রী দিবস আজ

প্রকাশিত: ১১:৩৬ , ২২ এপ্রিল ২০১৭ আপডেট: ১১:৩৬ , ২২ এপ্রিল ২০১৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ বিশ্ব ধরিত্রী দিবস। ‘পরিবেশ ও জলবায়ু সম্পর্কে সঠিক শিক্ষণ বা জ্ঞান অর্জন’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে একযোগে পালন করা হচ্ছে দিবসটি। জলবাযু পরিবর্তনের বিরুপ প্রভাবে দেশে দিন দিন কমছে সুপেয় পানির উৎস।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পরিবেশ বিপর্যয়ে সুপেয় পানির যে সংকট দেখা দেবে তা মোকাবেলায় ভূগর্ভস্থ পানির ব্যবহার কমাতে হবে। এক্ষেত্রে বিকল্প হতে পারে প্রাকৃতিক জলাধারগুলো। এজন্য এসব জলাধার সংরক্ষণের পরামর্শও দিচ্ছেন তারা।

বাংলাদেশের প্রায় সকল জেলার অধিকাংশ বাসা বাড়ি এমনকি অফিস আদালতের সামনে পুকুর কিংবা দিঘী ছিলো একসময়ের আবশ্যিক দৃশ্য। দৈনন্দিন নানাবিধ ব্যবহারের পাশাপাশি প্রাকৃতিক এই জলাধারগুলো যোগান দিত সুপেয় পানিরও। তবে বর্তমানের চিত্র সম্পূর্নই ভিন্ন। পানির সংস্থানের জন্য বিভিন্ন স্থানে বসানো হচ্ছে গভির নলকূপ। অনেকক্ষেত্রেই মানা হচ্ছে না কোন নিয়মনীতি। ফলে, ভূগর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নামছে।

এই অবস্থায় প্রাকৃতিক জলাধার সৃষ্টি আর বৃষ্টির পানি সংরক্ষণের পরামর্শ দিলেন বিশেষজ্ঞরা। পাশাপাশি উপকূলীয় মানুষের পানির সমস্যা মেটাতে দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনার প্রয়োজনীয়তার কথাও বলেন পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড.দেলোয়ার হোসেন।

পরিস্থিতি বিবেচনায় পটুয়াখালী জেলায় সরকারি মালিকানাধীন পুকুর ও দিঘীগুলো সুপেয় পানির উৎস হিসেবে ব্যবহার করতে এরই মধ্যে কাজ শুরু হয়েছে বলে জানালেন পটুয়াখালী জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ হামিম হাসান।

পরিবেশ বিপর্যয় রোধে ভূগর্ভস্থ পানির প্রতি নির্ভরতা যেমন কমাতে হবে, তেমনি প্রাকৃতিক জলাধারগুলো সংরক্ষণ প্রয়োজন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is