রানা প্লাজায় হতাহতদের ৪৪টি শিশু অর্কা হোমসে আপডেট: ০৪:৪৪, ২৪ এপ্রিল ২০১৭

গাইবান্ধা প্রতিনিধি: রানা প্লাজা দুর্ঘটনায় হতাহত শ্রমিক পরিবারের ৪৪টি শিশু বেড়ে উঠছে গাইবান্ধার অর্কা হোমস নামে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে। লেখাপড়া, খেলাধুলা, বিনোদন ও মাতৃস্নেহে বেড়ে উঠছে এসব শিশু। তাদের সব খরচ বহন করা হচ্ছে এই প্রতিষ্ঠান থেকে। 

২০১৪ সালের ২২ ডিসেম্বর গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নের হোসেনপুর গ্রামে চালু হয় অর্কা হোমস। তিনতলা ভবনে এই হোমসে রয়েছে লাইব্রেরি, ক্লাশরুম, বিনোদনের ব্যবস্থা, খেলাধুলার জন্য রয়েছে বিশাল মাঠ। রানা প্লাজা ট্রাজেডিতে নিহত ও আহত শ্রমিক পরিবারের ৪৪টি শিশুর ঠাঁই হয়েছে এই হোমসে। 

২৩টি ছেলে ও ২১টি মেয়ে শিশু বেড়ে উঠছে, পাচ্ছে শিক্ষার আলো। এদের লেখাপড়া চলে পাশের হোসেনপুর মুসলিম একাডেমিতে। তৃতীয় থেকে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত  লেখাপড়া করছে শিশুরা। 

রানা প্লাজার এসব শিশুদেরকে মাতৃøেহে দেখাশোনা করছেন অর্কা হোম কর্তৃপক্ষ। এই শিশুদের লেখাপড়া, থাকা-খাওয়া সহ সকল খরচ বহন করা হচ্ছে অর্কা হোমস থেকে। সাভারে রানা প্লাজা দুর্ঘটনায় নিহত হয় ১১শ’ ৩৫ জন শ্রমিক।