ঢাকা, বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

2018-09-26

, ১৫ মহাররম ১৪৪০

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে পুলিশের পাশে স্বেচ্ছাসেবীরা

প্রকাশিত: ০৯:৫৫ , ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ আপডেট: ১০:০৩ , ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর সড়কে শৃঙ্খলা আনতে পুলিশের ট্রাফিক কর্মসূচিতে যুক্ত হয়েছে স্কাউট, গার্লস গাইড, বিএনসিসি ও রেডক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবীরা। এসব শিক্ষার্থী রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে ট্রাফিক পুলিশের পাশাপাশি ট্রাফিক নিয়ম কানুন সম্পর্কে পথচারীদের সচেতন করছে। তবে তারা বলছেন ট্রাফিক আইন না মানা যেন মানুষের স্বভাবসুলভ আচরণ হয়ে গেছে। সচেতনতা তৈরি করা গেলে পরিবর্তন আসবে বলে আশা এই ক্ষুদে স্বেচ্ছাসেবকদের। বিউটি সমাদ্দারের প্রতিবেদন।

এই কথাটা হয়তো সকলেরই জানা তবুও কেন জানি কোন কারণ ছাড়াই পথচারীরা তা মানতে চায় না। যেন মনে হয় জীবনের চেয়ে সময়ের মূল্যটাই বেশি।

রাস্তায় চলাচল সম্পর্কে সকলকে সচেতন করে তুলতেই ডিএমপির মাসব্যাপী কর্মসূচিতে যুক্ত হয়েছে রোভার স্কাউট, গার্লস গাইড, বাংলাদেশ ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর- বিএনসিসি রেডক্রিসেন্টসহ বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ক্ষুদে এই প্রতিনিধিরা। গেল কয়েকদিন ধরেই রাজধানীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে একরকম লাটিমের মতোই বনবন করে ঘুড়ছে মানুষের পিছনে পিছনে। চেষ্টা করছে রাস্তায় শৃঙ্খলা আনতে।

ফুট ওভারব্রীজ ব্যবহার না করা, যত্রতত্র গাড়ি থেকে নামাউঠা, রাস্তা বন্ধ করে নিজে আগে পার হবার প্রবণতা, রাস্তার যেখান সেখান দিয়ে পার হওয়ার অভ্যাস পরিত্যাগ করাতে দিনভর প্ররিশ্রম করছে এই শিক্ষার্থরা।

অনেক বুঝিয়েও স্বভাবের বাইরে নিতে পারছে না নিয়মভাঙ্গা পথচারীদের। তবু স্বপ্ন দেখছে হয়তো একদিন পরিবর্তন আসবে।

স্বেচ্ছাসেবী কর্মীদের সহায়তা পেয়ে বেশ স্বস্তির কথাই জানালেন ট্রাফিকের এই কর্মকর্তা।

তবে শুধু মাসব্যাপী নয় এই কর্মসূচির পরও যেন পথচারীরা ট্রাফিক আইন মেনে চলে সেই প্রত্যাশার কথা জানান তারা।

 

এই বিভাগের আরো খবর

বাংলাদেশেও বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ পোশাক কারখানাগুলো আছে: বার্নিকাট

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপদ কারখানারগুলো মধ্যে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক কারখানাগুলো রয়েছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত...

বিএনপির জনসভা দুইদিন পেছালো

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকায় বিএনপির জনসভা দুইদিন পেছানোর ঘোষণা দিলেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ঢাকায় বৃহস্পতিবার ২৭...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is