ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ৫ পৌষ ১৪২৫

2018-12-19

, ১০ রবিউস সানি ১৪৪০

চট্টগ্রামে বিমানের সিডিউল বিপর্যয়, যাত্রীদের বিক্ষোভ

প্রকাশিত: ০২:৪৭ , ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ আপডেট: ০২:৪৭ , ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : সিডিউল বিপর্যয়ে পড়েছে চট্টগ্রাম শাহআমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। ফ্লাইট রি-শিডিউল করায় বৃহস্পতিবার সকালে বিমানবন্দরের ভেতরে অপেক্ষমান বাংলাদেশ বিমানের মাসকটগামী যাত্রীরা বিক্ষোভ করেছে। পরে বিমানবন্দর ও বাংলাদেশ বিমানের কর্মকর্তারা উপস্থিত হয়ে তাদের আশ্বাস দিয়ে শান্ত করেন।

আটকেপড়া যাত্রীরা সাংবাদিকদেরা বলেন,  বুধবার সন্ধ্যা থেকে বিমানবন্দরের ভেতরে আটকা রয়েছি। অসংখ্য যাত্রীরা এখানে দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। মাসকাটগামী বিমানের সিডিউল সময় ছিল বুধবার রাত ১০টা। কর্তৃপক্ষ তা বাতিল করে জানায় আজ বৃহস্পতিবার ভোর ৫টায় বিমান ছাড়বে। তাই সারা রাত কেটেছে বিমান বন্দরের ভেতরে। অথচ ভোরেও ফ্লাইট দিতে পারেনি। কর্তৃপক্ষ বলছে সন্ধ্যা সাতটায় ফ্লাইট ছাড়বে। 

বিমানবন্দরে অপেক্ষামান যাত্রীরা অভিযোগ করেন, ফ্লাইট বিলম্ব হলে নিয়ম হচ্ছে আট ঘণ্টা অপেক্ষা করলে হোটেল সুবিধা দেবে। কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে গত রাত থেকে আমরা এখানে ভোগান্তি পোহাচ্ছি। 

শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক উইং কমান্ডার সারওয়ার-ই-জাহান সাংবাদিকদের বলেন, মাসকটগামী বিমানের ফ্লাইট ছিল রাত ১০টায়। এরপর ভোর পাঁচটায় রি-সিডিউল করা হয়। সর্বশেষ সন্ধ্যা সাতটায় রি-সিডিউল করা হলে যাত্রীদের মধ্যে একটু উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা বিমানের কর্মকর্তাদের সাথে আলাপ করে যাত্রীদের শান্ত করার চেষ্টা করি। সর্বশেষ বিমানের কর্মকর্তারা যত দ্রুত সম্ভব ঢাকা থেকে অন্য বিমানে যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছানোর আশ্বাস দিলে যাত্রীরা শান্ত হন।

বিমানবন্দর সূত্র জানায়, বুধবার ইউএস-বাংলার একটি বিমানে ত্রুটি দেখা দেয়ার কারণে বিমানটি শাহআমানতে জরুরি অবতরণ করে। এতে বিমানের সামনে চাকা ভেঙে গিয়ে দুর্ঘটনায় পতিত হয়ে রানওয়ে বন্ধ হয়ে যায়। এ কারণে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত প্রায় সাড়ে  চার ঘণ্টা বিমানবন্দরটিতে বিমান উঠানামা বন্ধ রাখা হয়। এ কারণে বিমানের সিডিউল বিপর্যয় হয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর

নারায়ণগঞ্জে ইলেকট্রনিক ট্রেন চালুর প্রস্তাব অনুমোদন 

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: ‘নারায়ণঞ্জ সিটি করপোরেশনে লাইট রেল ট্রানজিট (এলআরটি) স্থাপনের নীতিগত প্রস্তাব’ এ অনুমোদন দিয়েছে সরকারের একটি...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is