ঢাকা, সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮, ৭ কার্তিক ১৪২৫

2018-10-22

, ১১ সফর ১৪৪০

বিশ্বে আমি সবচেয়ে বেশি উত্যক্তের শিকার: মেলানিয়া ট্রাম্প

প্রকাশিত: ০২:৪৮ , ১২ অক্টোবর ২০১৮ আপডেট: ০২:৪৮ , ১২ অক্টোবর ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নিজেকে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি উত্যক্তের শিকার বলে দাবি করেছেন মার্কিন ফার্স্টলেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেছেন, ‘বিশ্বে আমি সবচেয়ে বেশি উত্যক্তের শিকার।’

বৃহস্পতিবার এবিসি চ্যানেলকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেছেন। 

মার্কিন ফার্স্ট লেডি হিসেবে গত সপ্তাহে প্রথমবারের মতো এক সফরে আফ্রিকার কয়েকটি দেশে গিয়েছিলেন মেলানিয়া। তার নিজের ‘বি বেস্ট’ ক্যাম্পেইন এবং নারী ও শিশুদের স্বাস্থ্য বিষয়ে কাজ করতেই এ সফর বলে জানিয়েছিলেন তিনি।

এবিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ‘বি বেস্টের’ প্রসঙ্গওটি উঠে আসে। এসময় মেলানিয়া বলেন, ‘আমি বলতে পারি, বিশ্বে আমি সবচেয়ে বেশি উত্যাক্তের শিকার।’

উপস্থাপক টম এললামাস এ সময় মেলানিয়ার কাছে জানতে চান, ‘সত্যি আপনি পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি উত্যক্তের শিকার?’

জবাবে মেলানিয়া বলেন, ‘অন্যতম, যদি আপনি সত্যিকারার্থে দেখেন লোকজন আমার সম্পর্কে তাহলেই বুঝতে পারবেন।’

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার পরামর্শ নেন কিনা জানতে চাইলে মেলানিয়া বলেন, ‘আহ! এমনটা যদি হতো। তিনি আমার কথা শোনেন। তারপর নিজের যেভাবে ভালো লাগে সেই অনুযায়ী কাজটা করেন।’

হোয়াইট হাউজের কিছু লোককে তিনি বিশ্বাস করেন না বলেও জানান মেলানিয়া। এ ব্যাপারে তিনি ট্রাম্পকে ‘সৎ পরামর্শও’ দিয়েছিলেন বলে জানান ফার্স্টলেডি। এই পরামর্শের পর ট্রাম্প কি করেছিলেন জানতে চাইলে মেলানিয়া বলেন, ‘কিছু লোক আর সেখানে কাজ করছে না।’
 

এই বিভাগের আরো খবর

খাশোগি হত্যার বিষয়ে জানতেন না যুবরাজ- সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবাইর। এই হত্যার ঘটনাকে...

রাশিয়ার সঙ্গে পরমাণু অস্ত্র চুক্তি বাতিল করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাশিয়ার সঙ্গে করা পরমাণু অস্ত্র চুক্তি থেকে বেরিয়ে আসতে চাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। স্থানীয় সময় শনিবার নেভাদায় সাংবাদিকদের...

আফগানিস্তানে চলছে ভোটগ্রহণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কড়া নিরাপত্তা ও তালেবান বিদ্রোহীদের হুমকির মুখেই আফগানিস্তানে চলছে ভোটগ্রহণ। শনিবার স্থানীয় সময় সকাল ৭টা থেকে এ...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is