ঢাকা, বুধবার, ২১ নভেম্বর ২০১৮, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

2018-11-21

, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

অস্তিত্ব হারাচ্ছে হবিগঞ্জের খোয়াই ও সুতাং নদী

প্রকাশিত: ১০:১৩ , ২৭ অক্টোবর ২০১৮ আপডেট: ১১:১৯ , ২৭ অক্টোবর ২০১৮

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: দখল আর দূষণে অস্তিত্ব হারাতে বসেছে হবিগঞ্জের খোয়াই ও সুতাং নদী। একদিকে আবর্জনা ফেলার কারণে অস্তিত্ব সংকটের মুখে খোয়াই নদী। অন্যদিকে শিল্প কারখানার বর্জ্যে মারাত্মকভাবে দূষিত হচ্ছে সুতাং নদীর পানি। ফলে পরিবেশ বিপর্যয়ের পাশাপাশি স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে নদী তীরের বাসিন্দারা। তবে, নদীদু’টিকে দখল ও দূষণমুক্ত করতে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলেন জেলা প্রশাসক।

ময়লার এই ভাগাড়ের দৃশ্য হবিগঞ্জের খোয়াই নদীর। কয়েক বছর ধরেই নদীর চৌধুরী বাজার পয়েন্টে ফেল হচ্ছে শহরের সব আবর্জনা। ফলে একদিকে যেমন নদীটি অস্তিত্ব সংকটে তেমনি নষ্ট হচ্ছে পরিবেশও। অন্যদিকে জেলার, মাধবপুর থেকে সদর পর্যন্ত প্রায় ৫০ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে গড়ে উঠেছে অর্ধশতাধিক শিল্প কারখানা। এসব কারখানার বর্জ্যও সরাসরি মিশছে সুতাং নদীসহ খাল-বিল ও জলাশয়ে।

এরইমধ্যে ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে নদী দু’টির পানি। নদী তীরবর্তী করাব, লুকড়া, নূরপুর, ব্রাহ্মণডোরা, রাজিউড়াসহ বেশ কয়েকটি ইউনিয়নের কৃষি ক্ষেত্রে এর নেতিবাচক প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। রয়েছে অবৈধ দখলের দৌরাত্মও।

এই অবস্থায় নদী দু’টিকে দখল আর দুষণের কবল থেকে রক্ষার তাগিদ দিলেন পরিবেশবাদীরা।

খোয়াই ও সুতাং নদীর দূষণ এবং অবৈধ দখলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

দখল-দূষণ রোধের পাশাপাশি খোয়াই নদীর বাঁধ সংস্কারেরও দাবি জানিয়েছে স্থানীয়রা।

 

এই বিভাগের আরো খবর

কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটে চারঘণ্টা পর ফেরি চলাচল শুরু

মাদারীপুর প্রতিনিধি: ঘন কুয়াশার কারণে কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটে চার ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে। শনিবার- ৪ নভেম্বর দিবাগত রাত...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is